kalerkantho

মঙ্গলবার  । ২০ শ্রাবণ ১৪২৭। ৪ আগস্ট  ২০২০। ১৩ জিলহজ ১৪৪১

‘জার্মান ক্লাসিকোয়’ শিরোপাভাগ্য

২৩ মে, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘জার্মান ক্লাসিকোয়’ শিরোপাভাগ্য

টানা সাতবারের বুন্দেসলিগা চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখ। সব শেষ যে দুইবার শিরোপার স্বাদ পায়নি, দুইবারই জিতেছিল বরুশিয়া ডর্টমুন্ড। ঐতিহ্য, জৌলুস, প্রতিপত্তিতে পিছিয়ে থাকলেও বায়ার্নকে জোর প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখে ফেলতে পারে ডর্টমুন্ডই। দ্য ক্লাসিক বা জার্মান ক্লাসিকো নামে পরিচিতি পাওয়া সেই ম্যাচ এখনো শিহরিত করে কোটি ফুটবলভক্তকে। এবার ২৬ মে ইদুনা পার্কে মুখোমুখি হচ্ছে দুই দল, যা ঘিরে চড়ছে উত্তেজনার পারদ। সেই ম্যাচে নির্ধারিত হতে পারে শিরোপাভাগ্যও। ২৬ ম্যাচ শেষে ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে বায়ার্ন। সমান ম্যাচে ৫৪ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে ডর্টমুন্ড। রবার্ত লেভানদোস্কি ও আর্লিং হালান্ডের পায়ের জাদুতে যে দল জিতবে, শিরোপার আরো কাছে পৌঁছবে তারা।

জার্মান ক্লাসিকোর প্রস্তুতিতে আজ ডর্টমুন্ড মুখোমুখি হচ্ছে উলফসবুর্গের। আর বায়ার্নের প্রতিদ্বন্দ্বী ফ্রাংকফুর্ট। করোনায় দীর্ঘ বিরতির পর দুই দলের ফেরাটা হয়েছে অবশ্য জয় দিয়েই। শালকেকে ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছিল ডর্টমুন্ড। বায়ার্ন ২-০ গোলে হারায় ইউনিয়ন বার্লিনকে। তরুণ বিস্ময় হালান্ড ও গোলমেশিন লেভানদোস্কি বল জালে জড়িয়ে জানিয়ে রেখেছেন, বিরতিতেও মরচে পড়েনি বুটে।

এদিকে বুন্দেসলিগা শুরুর আগে ৫১ পাতার বিশাল তালিকা ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে ক্লাবগুলোকে। হাত মেলানো যাবে না, থুতু ছিটানো যাবে না—এ রকম নানা নিয়ম ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে বুন্দেসলিগা খেলোয়াড়দের। সামাজিক দূরত্বে থেকে গোল উদযাপনও এর একটি। কিন্তু আবেগ কি আর নিয়ম মানে? হোফেনহেইমের বিপক্ষে হার্থা বার্লিনের মার্কো গ্রুইচকে গোলের পর তাঁর গালে চুমু এঁকে দিয়েছিলেন সতীর্থ দেদরিক বোয়েতা। জড়িয়ে ধরেন অন্য সতীর্থরাও। এরপর বায়ার্ন মিউনিখ-ইউনিয়ন বার্লিন ম্যাচেও একই অবস্থা। গোলের পর লেভানদোস্কিকে অভিন্দন জানাতে এগিয়ে আসেন অনেকে। দর্শকহীন গ্যালারিতে অন্তরঙ্গ এমন উৎসবে দুশ্চিন্তা হতেই পারে বুন্দেসলিগার আয়োজকদের। এএফপি

মন্তব্য