kalerkantho

সোমবার । ২৯ আষাঢ় ১৪২৭। ১৩ জুলাই ২০২০। ২১ জিলকদ ১৪৪১

আজ সিসিডিএমকে চিঠি দেবে কোয়াব

১০ মে, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ক্রীড়া প্রতিবেদক : করোনার কারণে থমকে পড়া প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ মাঠে গড়ানোর উদ্যোগ শুরু হয়ে গেছে। গতকাল ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সভা করেছে ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন (কোয়াব)। সে সভার সিদ্ধান্ত মতে আজ ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিস (সিসিডিএম) বরাবর চিঠি দেওয়া হবে, যেন ঈদের পরই ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ শুরু করা হয়।

গত কিছুদিন ধরেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিও পোস্টে নানা বিষয়ের পাশাপাশি প্রিমিয়ার লিগ শুরুর প্রক্রিয়া নিয়ে আলোচনা করতে দেখা গেছে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের। এ আসরটি জাতীয় দলের বাইরের ক্রিকেটারদের উপার্জনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পথ। সেটি বন্ধ থাকলে দেশের ক্রিকেটারদের আর্থিক সংকট বাড়বে। গতকাল কোয়াবের সভায় সে বিষয়টিই বেশি গুরুত্ব পেয়েছে বলে জানিয়েছে সংগঠনটির সদস্যসচিব দেবব্রত পাল, ‘এখন তো সরকার ধীরে ধীরে অনেক কিছুর ওপর থেকেই নিষেধাজ্ঞা তুলে দিচ্ছে। সে কারণে আমরাও সিসিডিএমকে অনুরোধ করব যেন ঈদের পর লিগটা শুরু করে দেওয়া হয়। এ আবেদন জানিয়ে আগামীকাল (আজ) সিসিডিএম চেয়ারম্যান বরাবর চিঠি দেব। করোনা সংক্রমণসংক্রান্ত সরকারি নির্দেশনা মেনে হলেও লিগ যেন শুরু হয়। এতে দেশের অসংখ্য ক্রিকেটারের রুটি রুজি জড়িত।’

এদিকে করোনার কারণে ইতিমধ্যেই দৈনন্দিন জীবনে হিমশিম খাচ্ছেন অনেকে। তাঁদের দিকে সাহায্যের হাতও বাড়িয়ে দিয়েছেন অনেক ক্রিকেটার। সংকটাপন্নদের জন্য ফান্ড গঠন করেছে কোয়াবও। ‘প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটাররা তাদের এক মাসের বেতনের অর্ধেক দিয়েছে। বিশ্বজয়ী অনূর্ধ্ব-১৯ দলও একটা ফান্ড দিয়েছে। বিভিন্ন সোর্স থেকে আমরা কিছু তুলেছি। সব মিলিয়ে ১৮ লাখের বেশি ফান্ড আমাদের হাতে আছে। আশা করছি কয়েক দিনের মধ্যে আমাদের টার্গেট ২৫ লাখ হয়ে যাবে’, সেই ফান্ড বরাদ্দের একটা ছকও গতকালের সভায় করা হয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন দেবব্রত, ‘আমরা দুস্থ ক্রিকেটারদের, সাবেক এবং বর্তমানদের নিয়ে একটা তালিকা করছি। সেই তালিকায় থাকা ক্রিকেটসংশ্লিষ্ট আম্পায়ার-স্কোরারদের আর্থিক সহায়তা দেব। এর বাইরে অন্তত ৫০০ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেব।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা