kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ২৬ চৈত্র ১৪২৬। ৯ এপ্রিল ২০২০। ১৪ শাবান ১৪৪১

মুখোমুখি প্রতিদিন

মুশফিক অল্পতে সন্তুষ্ট হতে চায়নি

জিম্বাবুয়ের সঙ্গে প্রথম টেস্ট সিরিজ জয়ে বড় ভূমিকা ছিল নাফিস ইকবালের। সাবেক এই ব্যাটসম্যান এই মুহূর্তে বিসিবি দক্ষিণাঞ্চল দলের ম্যানেজার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন চট্টগ্রামে। ড্রেসিংরুমের টিভিতে মুশফিকের ইনিংসটা দেখে কালের কণ্ঠকে জানিয়েছেন তাঁর মুগ্ধতার কথা—

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মুশফিক অল্পতে সন্তুষ্ট হতে চায়নি

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : মুশফিকের ইনিংসটা কেমন লাগল আপনার কাছে?

নাফিস ইকবাল : অসাধারণ! যেকোনো পর্যায়েই ডাবল সেঞ্চুরি করা খুব বড় অর্জন। ও যেভাবে ইনিংসটা তৈরি করেছে, উইকেটে সময় কাটিয়েছে, সব কিছুতেই ছিল পরিকল্পনা আর ধৈর্যের ছাপ। মুশফিককে অভিনন্দন।

প্রশ্ন : কোন ব্যাপারটা সবচেয়ে মুগ্ধ করেছে আপনাকে?

নাফিস : যখন জিম্বাবুয়ের মতো দলের বিপক্ষে ব্যাটিংয়ের সময় মনঃসংযোগে ব্যাঘাত ঘটতে পারে। মুশফিক একদমই সেই অনুভূতিটা আসতে দেয়নি মনের মধ্যে। ও অল্পতে সন্তুষ্ট হতে চায়নি। প্রায় পুরোদিনই তো ব্যাটিং করল (কাল), কোনো সুযোগও দেয়নি। মুশফিকের এই মানসিকতাটাই আমার খুব ভালো লেগেছে।

প্রশ্ন : মমিনুলের সঙ্গে গলে, ঢাকায় জিম্বাবুয়ের পক্ষে আগের ডাবল সেঞ্চুরির সময় এবং এবারও; বড় জুটি হয়েছে মুশফিকের। দুজনের জুটির রসায়নটা কী বলে আপনার মনে হয়?

নাফিস : দুজনেই খুব ভালো ব্যাটসম্যান। ওরা অনেক দিন ধরে একসঙ্গে খেলছে। তামিম, মমিনুল, মুশফিক; ওরা তো অনেক দিন ধরেই খেলছে আর টপ অর্ডারে দেখা যায় পর পর বা কাছাকাছি সময়ে ব্যাট করতে নামে। বাংলাদেশ দলের যে সংস্কৃতি, সেখান থেকেই তাদের মধ্যে বোঝাপড়াটা তৈরি হয়েছে। দুজন দুজনকে ভালো কমপিমেন্ট করে, বোঝাপড়াটা ভালো।

প্রশ্ন : মুশফিক একটু আক্ষেপ করেই বলছিলেন যে ইনিংস ঘোষণা না করলে ইনিংসটা আরো বড় করতে পারতেন, যেহেতু আরো দুই দিন বাকি...

নাফিস : কখন ইনিংস ঘোষণা করবে সেটা তো সম্পূর্ণ টিম ম্যানেজমেন্টের বিষয়। এখন ওদের দুটো উইকেট পড়ে গেছে বলে এমনটা মনে হচ্ছে, তখন নাও হতে পারত। দেখা গেল এক দিন ওরা ব্যাট করে ড্র করে ফেলেছে, আমাদের সময় টাটেন্ডা টাইবুর ওই সিদ্ধান্ত নিয়েও সমালোচনা হয়েছিল। আগে থেকে বলা মুশকিল। যেহেতু দলীয় খেলা, দলের স্বার্থ সবার আগে। দলের জন্য, জেতার জন্য যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, সেটাই সবচেয়ে ভালো।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা