kalerkantho

শনিবার । ১০ ফাল্গুন ১৪২৬ । ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৮ জমাদিউস সানি ১৪৪১

মুশফিক-মার্শালের সেঞ্চুরি

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



মুশফিক-মার্শালের সেঞ্চুরি

ক্রীড়া প্রতিবেদক : কক্সবাজারে পাশাপাশি দুই মাঠে বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) ফাইনালে যাওয়ার লড়াই। যেখানে তৃতীয় রাউন্ডের ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাটিং নেওয়া দুই দলই যেন হয়ে উঠেছিল এক চাকার গাড়ি। ইসলামী ব্যাংক পূর্বাঞ্চলের বিপক্ষে মুশফিকুর রহিম যেমন একাই টেনেছেন উত্তরাঞ্চলকে, তেমনি দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে লড়াইয়ে ওয়ালটন মধ্যাঞ্চলও ছিল মার্শাল আইয়ুবসর্বস্ব। মুশফিক-মার্শাল, সেঞ্চুরি করেছেন দুজনই। তবে অন্যদের ব্যর্থতায় তাঁদের নিজ নিজ দল বড় ইনিংসও গড়তে পারেনি। উত্তরাঞ্চলকে ২৭২ রানে গুটিয়ে দেওয়ায় অবশ্য ‘একাই এক শ’র ভূমিকা পালন করেছেন পূর্বাঞ্চলের অফস্পিনার নাঈম হাসান। ১০৭ রান খরচে একাই যে নিয়েছেন ৮ উইকেট!

যদিও প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এটিই তাঁর সেরা বোলিং নয়। ৪৭ রানে ৮ উইকেট নেওয়া সেরা বোলিংকে পেছনে ফেলতে না পারলেও কাল কক্সবাজারে বেশ ভুগিয়েছেন মুশফিক ছাড়া উত্তরাঞ্চলের অন্যান্য ব্যাটসম্যানদের। দল নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকলেও এক প্রান্ত আগলে রাখা মুশফিক প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে নিজের একাদশ সেঞ্চুরি করেছেন ১১৭ বলে। পেসার হাসান মাহমুদের বলে বোল্ড হওয়ার আগে ১৫৭ বলে ১৬ বাউন্ডারি ও এক ছক্কায় করেছেন ১৪০ রান। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩১ রান করা অধিনায়ক নাঈম ইসলাম চতুর্থ উইকেটে মুশফিকের সঙ্গে গড়েছেন ৫৬ রানের পার্টনারশিপ। তবে ইনিংস সর্বোচ্চ ৭৪ রানের পার্টনারশিপ ষষ্ঠ উইকেটে মাহিদুল ইসলাম অঙ্কনকে (২৩) নিয়ে। টেল এন্ডার সানজামুল ইসলাম (২৯) অষ্টম উইকেটেও মুশফিককে ৫৮ রানের পার্টনারশিপে সঙ্গ দেওয়ায় উত্তরাঞ্চল আড়াই শ পেরিয়েছে। তবে প্রথম দিনের খেলা শেষ হওয়ার আগে পূর্বাঞ্চলও ভালো অবস্থায় নেই। ৩ রান তুলতেই হারিয়ে ফেলেছে ২ উইকেট।

বোলারদের সম্মিলিত পারফরম্যান্সে মধ্যাঞ্চলকে মাত্র ২৩৫ রানে শেষ করে দেওয়া দক্ষিণাঞ্চলও প্রথম দিন শেষ করেছে ২৯ রানে ২ উইকেট খুইয়ে। এর আগে ১৮৬ বলে মার্শালের ১১৬ রানের ইনিংসের সঙ্গে বোলার মুস্তাফিজুর রহমানের ৪ ছক্কা ও এক বাউন্ডারিতে সাজানো ২৬ বলে অপরাজিত ৩০ রানের ইনিংস যোগ হওয়াতেই দুই শ পেরিয়েছে মধ্যাঞ্চল। মুস্তাফিজের ইনিংসই যাদের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ!

সংক্ষিপ্ত স্কোর

(প্রথম দিনের শেষে)

মধ্যাঞ্চল-দক্ষিণাঞ্চল

মধ্যাঞ্চল : ৮২.২ ওভারে ২৩৫ (মার্শাল ১১৬, মুস্তাফিজ ৩০*, জাবিদ ২১; মেহেদী ৩/৭৮, শফিউল ২/২৪, নাসুম ২/৫১, রাজ্জাক ২/৬২)।

দক্ষিণাঞ্চল : ৯ ওভারে ২৯/২।

উত্তরাঞ্চল-পূর্বাঞ্চল

উত্তরাঞ্চল : ৮২.৪ ওভারে ২৭২ (মুশফিক ১৪০, নাঈম ইসলাম ৩১, সানজামুল ২৯, রনি ২৮; নাঈম হাসান ৮/১০৭, হাসান ২/৫০)।

পূর্বাঞ্চল : ৪.১ ওভারে ৩/২। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা