kalerkantho

মঙ্গলবার । ৫ ফাল্গুন ১৪২৬ । ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১

মুখোমুখি প্রতিদিন

সব পজিশনে খেলার জন্য প্রস্তুত আছি

২১ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সব পজিশনে খেলার জন্য প্রস্তুত আছি

একাদশ থেকে বাদ পড়ার আগে বিপিএলের প্রথম আট ম্যাচে করেন ১১৫ রান। ফিরে এক ম্যাচেই করলেন ৫৭ বলে অপরাজিত ১১৫। ঠিক পরের ম্যাচে কোয়ালিফায়ারে ৫৭ বলে অপরাজিত ৭৮ রান করে খুলনা টাইগার্সকে ফাইনালে নেওয়ার পথে রাখেন বড় ভূমিকা। বিপিএলের শেষবেলায় ফর্মে ফেরা নাজমুল হোসেনকে ফেরানো হয়েছে জাতীয় দলে। আর পাকিস্তান সফরে ভালো করার প্রত্যয়ই কাল শোনা গেল এই ব্যাটসম্যানের কণ্ঠে

প্রশ্ন : বিপিএলের শেষটা তো ভালো হলো। পাকিস্তান সফরে ভালো করার ব্যাপারে কতটা আশাবাদী?

নাজমুল হোসেন : শেষ কয়েকটি ম্যাচ ভালো খেলেছি। এ কারণে আত্মবিশ্বাস আছে। এটা ধরে রাখতে পারলে পাকিস্তানে ভালো করা সম্ভব।

প্রশ্ন : নিরাপত্তা ইস্যুতে পাকিস্তান সফর হওয়া নিয়ে অনেক সংশয় ছিল। শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশ যাচ্ছে। এ নিয়ে কী ধরনের চিন্তা করছেন?

নাজমুল : এগুলো নিয়ে আসলে চিন্তা করছি না। পেশাদার খেলোয়াড় হিসেবে খেলায় মনোযোগ দিচ্ছি। আর নিরাপত্তার বিষয়টি যেহেতু আমাদের হাতে নেই, সে কারণে তা নিয়ে ভাবছি না। গত বছরও পাকিস্তান গিয়েছিলাম খেলতে (২০১৮ সালের ডিসেম্বরে, ইমার্জিং টিমস এশিয়া কাপে খেলার জন্য)। এসব নিয়ে না ভেবে খেলায় মনোযোগ দিচ্ছি।

প্রশ্ন : বিপিএলের শুরুতে সেভাবে রান পাচ্ছিলেন না। শেষের দিকে অনেক রান করলেন। পরিবর্তনটা কোথায় হয়েছে?

নাজমুল : আমার মনে হয় মানসিকভাবে বদলটা এসেছে। প্রথম কয়েক ম্যাচে রান না করার কারণে আত্মবিশ্বাসের অভাব ছিল। পরে মানসিকভাবে প্রস্তুতি নেওয়ার চেষ্টা করেছি যে, এই ফরম্যাটেও আমি রান করতে পারি। ওই বিশ্বাসটা নিজের মধ্যে এনেছি। সে বিশ্বাস আসার কারণে শেষের কয়েক ম্যাচে ভালো রান করেছি।

প্রশ্ন : আপনি তো মূলত ওপেনার। পাকিস্তান সফরের স্কোয়াডে অনেক ওপেনার রয়েছেন। জাতীয় দলের ব্যাটিং পজিশন নিয়ে আলাদা কোনো ভাবনা?

নাজমুল : ব্যাটিং পজিশন নিয়ে আলাদা কিছু বলার নেই। সব পজিশনে খেলার জন্য প্রস্তুত আছি। সাধারণত তো টপ অর্ডারে ব্যাটিং করি। সেখানে সুযোগ পেলে অবশ্যই ভালো লাগবে। তবে পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে, যখন যেখানে সুযোগ আসবে, সেখানেই রান করতে হবে। কারণ বড় বড় ক্রিকেটাররা যেকোনো জায়গায় রান করার সামর্থ্য রাখেন। আমি সেভাবেই চিন্তা করছি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা