kalerkantho

রবিবার  । ১৫ চৈত্র ১৪২৬। ২৯ মার্চ ২০২০। ৩ শাবান ১৪৪১

গিবসনই হচ্ছেন নতুন বোলিং কোচ

১৯ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ক্রীড়া প্রতিবেদক : ওটিস গিবসনই হতে যাচ্ছেন বাংলাদেশের নতুন বোলিং কোচ। শার্ল ল্যাঙ্গাভেল্টকে তাদের কোচিং স্টাফে চেয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট বোর্ড, তাদের অনুরোধেই সাবেক প্রোটিয়া এই পেসারকে চুক্তি থেকে অব্যাহতি দেয় বিসিবি। এর পর থেকেই নতুন বোলিং কোচের সন্ধানে ছিল বোর্ড। শোনা যাচ্ছিল সিলেট থান্ডারের হয়ে বোলিং কোচ হিসেবে কাজ করা সাবেক প্রোটিয়া পেসার ন্যান্টে হেওয়ার্ড ও সাবেক ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটার ওটিস গিবসনের নাম। জানা গেছে, এবারের বিপিএলে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের কোচ হিসেবে কাজ করা গিবসনই হতে যাচ্ছেন বাংলাদেশের বোলিং কোচ। দুই মেয়াদে ইংল্যান্ডের পেস বোলিং কোচ হিসেবে কাজ করা গিবসনের সঙ্গে এ মাসের শুরুতেই আলোচনা হয়েছিল বিসিবি কর্তাদের। আলাপের পর গিবসন জানিয়েছিলেন, ‘আমরা এখনো কোনো সিদ্ধান্তে পৌঁছাইনি, কেবল আলাপ শুরু করেছি। যদি তরুণ পেস বোলারদের সাহায্য করার কোনো সুযোগ থাকে, তাহলে অবশ্যই সেই সুযোগটা নেব।’ আরেক ক্যারিবীয় কিংবদন্তি কোর্টনি ওয়ালশের পর অল্পদিনই বোলিং কোচ ছিলেন ল্যাঙ্গাভেল্ট, এরপর আবার আরেক ক্যারিবীয়কেই বোলিং কোচ হিসেবে পেতে যাচ্ছেন মুস্তাফিজ-রুবেলরা।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ২ টেস্ট ও ১৫ ওয়ানডে খেলা গিবসনের কোচিং ক্যারিয়ারটা বেশ সমৃদ্ধ। দুই মেয়াদে ইংল্যান্ডের বোলিং কোচ ছিলেন, মূল কোচ হয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলেরও। বাংলাদেশের বর্তমান প্রধান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো দায়িত্ব ছাড়ার পর ওটিস গিবসনকেই দক্ষিণ আফ্রিকা জাতীয় দলের কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকার বোর্ড। কিন্তু বিশ্বকাপের ভরাডুবির পর তার চাকরিটা যায়। দক্ষিণ আফ্রিকার নতুন কোচ মার্ক বাউচার তার সাবেক সতীর্থ ল্যাঙ্গেভেল্টকে ডেকে পাঠালে বাংলাদেশ দলের বোলিং কোচের জায়গাটা খালি হয়। সেখানেই আসতে যাচ্ছেন গিবসন।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা