kalerkantho

মঙ্গলবার । ৫ ফাল্গুন ১৪২৬ । ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১

‘বাঘে-সিংহে’র গোলের লড়াই

১৯ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



‘বাঘে-সিংহে’র গোলের লড়াই

ছবি : মীর ফরিদ

ক্রীড়া প্রতিবেদক : বাংলাদেশ ফুটবল হাপিত্যেশ করছে গোলের জন্য! দলের সবার মুখে গোল না পাওয়ার হতাশা। একমাত্র গোলই পারে লাল-সবুজের ফুটবলকে মুক্তি দিতে। তাই আজ ‘বাঘে-সিংহে’র লড়াইয়ে গোলে মুক্তি মিললে লাল-সবুজে রাঙিয়ে যাবে বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপ।

একটু রঙের জন্য কত কী করছে বাংলাদেশ ফুটবল। গত একটি বছর কেটেছে তারা শুধুই ‘ভালো খেলা’র ট্যাগ নিয়ে। বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে শক্তিশালী দলগুলোর বিপক্ষে দারুণ লড়াই করে হাততালি কুড়িয়েছে। কিন্তু ম্যাচ জয়ে মোক্ষলাভ হয়নি কখনো। গোলের সম্ভাবনা জাগিয়েও জামাল ভূঁইয়ারা পারেননি গোল করে ম্যাচ জেতাতে। যেখানে পারার কথা সেই এসএ গেমসে বড় আশা নিয়ে গিয়েও ফিরেছে চরম হতাশা নিয়ে। তাই বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপের এই আসরটি হয়ে গেছে লাল-সবুজের ফুটবলের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। বাংলাদেশ দলে খেলা ফিরেছে আগে, এখন গোল ফিরলেই সব হতাশা ঝেড়ে জেগে উঠতে পারে দলটি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আজ গোল না পেলে যে সব শেষ হয়ে যাবে। এই ম্যাচ না জিতলে বাংলাদেশ ছিটকে যাবে টুর্নামেন্টের গ্রুপ পর্ব থেকেই।

গোলের এমন হাহাকার যে দোকানে কোটি টাকা দাম হলেও বাংলাদেশ দুবার ভাবত না! স্বাগতিক দলের কোচ জেমি ডে-ও গোলের জন্য হাপিত্যেশ করছেন, ‘খুব কঠিন এক সমীকরণের সামনে দাঁড়িয়ে আমরা। আমি খেলোয়াড়দের ওপর ভরসা রাখতে চাই, তারা নিশ্চয়ই এই ম্যাচে তাদের সেরাটা নিয়ে ফিরবে। গত ম্যাচেও ফিলিস্তিনের বিপক্ষে তারা ভালো ফুটবল খেলেছে। সুযোগ তৈরি করেছে, যদিও গোল পায়নি। তবে এই ম্যাচে গোল লাগবেই। ম্যাচ জিতে সেমিফাইনালে পৌঁছাতে হবে।’ ফিলিস্তিনের বিপক্ষে আগের ম্যাচে তারা অবশ্য তেমন ভালো খেলেনি। সাম্প্রতিক সময়ে তাদের রক্ষণের যে অহংকার সেটাও টুটে গিয়েছিল। আত্মসমর্পণ করে দুই গোল খেয়ে। তপু বর্মণের পোস্ট ঘেঁষে যাওয়া এক হেড ছাড়া গোলের সুযোগও তেমন ছিল না স্বাগতিকদের। মাঝমাঠে তাদের কোনো খেলাই হয়নি, তা ছাড়া দুই উইংও ছিল অকার্যকর। ওই ম্যাচে ব্রিটিশ কোচ যেভাবে ভালো খেলার দাবি করেছেন বাস্তবে আসলে তা নয়।

ওই ম্যাচে যা হওয়ার হয়ে গেছে। আজ ‘বাঘে-সিংহে’র বাঁচা-মরার লড়াই। যারা জিতবে তারাই সেমিফাইনালে উঠবে। শ্রীলঙ্কা মোটেও সহজ প্রতিপক্ষ নয়, অন্তত বাংলাদেশের তুলনায় তারা ভালো ফুটবল খেলেছে ফিলিস্তিনের সঙ্গে। সেই ম্যাচের কথা টেনে লঙ্কান কোচ পাকির আলীও বলেছেন, ‘শেষ পর্যন্ত ফিলিস্তিনের বিপক্ষে আমরা ৯০ মিনিট পর্যন্ত খুব ভালো লড়াই করেছি। দুর্ভাগ্য আমাদের, ইনজুরি টাইমে গিয়ে গোল খেয়েছি। আমাদের এই দলটা গত কয়েক বছর ভালো খেললেও ফল পাচ্ছে না। তাই আজ ভালো খেলার পাশাপাশি ম্যাচ জেতা আমাদের লক্ষ্য।’ অর্থাৎ লঙ্কানরাও চাইছে ভালো খেলার হিসাবটা ফলে মেলাতে। গত ডিসেম্বরে এসএ গেমসে কাঠমাণ্ডুতে বাংলাদেশ একমাত্র ম্যাচটি জিতেছিল এই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। ওই অনূর্ধ্ব-২৩ দলের লড়াই জেতার সুখস্মৃতি লঘু করে বাংলাদেশের বিদেশি কোচ এই শ্রীলঙ্কাকে কঠিন মানছেন, ‘ফিলিস্তিনের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার ম্যাচ দেখেছি। তারা রক্ষণাত্মক কৌশলে খেলেও হার ঠেকাতে পারেনি। তবে শ্রীলঙ্কা ভালো খেলেছে, ৯০ মিনিট পর্যন্ত প্রতিপক্ষকে আটকে রেখেছিল। তাদের বিপক্ষে আমাদের সতর্ক থাকার পাশাপাশি আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলতে হবে। আগের ম্যাচের মতো রক্ষণে ভুল করা চলবে না, আবার আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে ওদের রক্ষণের ওপর চাপ বাড়াতে হবে।’ রক্ষণভাগে নেই ইয়াসিন খান। ফ্লু-তে আক্রান্ত হয়ে এই ডিফেন্ডার এবং দুই নম্বর গোলরক্ষক শহীদুল আলম ক্যাম্প ছেড়ে গেছেন। যাঁরা আছেন তাঁদের মধ্যে জামাল ভূঁইয়ার ইনজুরিতে পড়াটা বড় দুঃসংবাদ। তাঁর খেলা, না খেলা নিয়ে সংশয় আছে।

এখন কে খেলবে আর কে খেলবে না, এ নিয়ে ভাবার সুযোগ নেই। যাঁরা একাদশে থাকবেন, তাঁদেরই দায়িত্ব এই ম্যাচ বের করার। দলের ভেতরও তাই পারস্পরিক আত্মবিশ্বাস সঞ্চারের কাজ চলছে। সেটা আক্রমণাত্মক ফুটবলে নিজেদের উজাড় করে দেওয়ার জন্য। এ জন্য পরিবর্তন আসবে একাদশেও, আজ খেলবে ৪-৪-২ ফরমেশনে। আগের ম্যাচে ফরোয়ার্ড লাইনে সাদউদ্দিন একা খেললেও কাল তাঁর সঙ্গে দেখা যেতে পারে মাহবুবুর রহমান কিংবা মতিন মিয়াকে। বাঁয়ে ইব্রাহিম থাকছেন, ডানে খেলতে পারেন রাকিব-আরিফের একজন। জেমি ডে-র এই পরিবর্তন যেন ওই গোলের স্বার্থেই, ‘একাদশে পরিবর্তন আসতে পারে। তবে সেটা হবে অ্যাটাকিং ফুটবলের স্বার্থে। ফরোয়ার্ড লাইনে সাদ-সুফিল-মতিনরা খেলতে পারে। সুযোগ তাদের সামনে আসবে, কাজে লাগানোর দায়িত্ব তাদের। শুধু স্ট্রাইকার নয়, মাঝমাঠের খেলোয়াড়দেরও গোলের জন্য ঝাঁপাতে হবে।’

গোল ছাড়া সব ভালো খেলাই বৃথা। ৯০ মিনিটে সেই গোলই পারে বাংলাদেশের সেমিফাইনালের দুয়ার খুলে দিতে। নির্ধারিত সময়ে ড্র থাকলে ভাগ্য নির্ধারণ হবে টাইব্রেকারে। ওই লটারির খেলার আগে সোনালি গোলে ফুটবলের মুক্তি চায় বাংলাদেশ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা