kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৩ জানুয়ারি ২০২০। ৯ মাঘ ১৪২৬। ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১          

তাহলে রিয়াল-লিভারপুল?

১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



তাহলে রিয়াল-লিভারপুল?

গ্রুপ পর্বের উত্তেজনা শেষ। এবার অপেক্ষা চ্যাম্পিয়নস লিগের নক আউটের ড্রর। রিয়াল মাদ্রিদ, অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের মতো দল গ্রুপ রানার্স-আপ হওয়ায় নক আউটেই অনেক ম্যাচে পাওয়া যেতে পারে ‘ফাইনালের স্বাদ’। কারণ চ্যাম্পিয়নস লিগের নিয়ম অনুযায়ী নিজেদের দেশের কোনো ক্লাব নক আউটে একে অন্যের মুখোমুখি হবে না। তাই স্পেন থেকে নক আউটে যাওয়া বার্সেলোনা, অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ ও ভ্যালেন্সিয়ার সঙ্গে দেখা হচ্ছে না রিয়ালের। ১৬ ডিসেম্বর হতে যাওয়া ড্রতে পিএসজির মুখেও পড়ার সম্ভাবনা নেই জিদানের দলের, তারা যে একই গ্রুপের সঙ্গী ছিল। উয়েফার নিয়মানুযায়ী গ্রুপ প্রতিপক্ষের সঙ্গে শেষ ষোলোয় দেখা হওয়ার নিয়ম নেই।

এমনকি এক গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন দলের সঙ্গে দেখা হবে না আরেক গ্রুপের শীর্ষ থাকা দলের সঙ্গেও। তাহলে সবচেয়ে বেশিবার চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতা রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে দেখা হতে পারে কেবল লিভারপুল, ম্যানচেস্টার সিটি, বায়ার্ন মিউনিখ, জুভেন্টাস অথবা লিপজিগের। জার্মানির লিপজিগ ছাড়া অন্য যে কাউকে রিয়াল পেলে সেটা ‘ফাইনালের আগের ফাইনাল’ মনে হবে।

অন্য দলগুলোর জন্যও অঙ্কটা একই। তাই বর্তমান চ্যাম্পিয়ন লিভারপুলের সুযোগ নেই নিজেদের দেশের অন্য তিন ক্লাব আর বার্সেলোনা, জুভেন্টাসের মতো অন্য গ্রুপের চ্যাম্পিয়নদের সঙ্গে খেলার। রিয়াল ও অ্যাতলেতিকো গ্রুপ রানার্স-আপ হওয়ায় মাদ্রিদের ক্লাব দুটির একটির সঙ্গে দেখা হতেই পারে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের। এমন সম্ভাবনার জন্যই জিদান মজা করে জানালেন, ‘লিভারপুলের সঙ্গে দেখা হলে কী আর করা যাবে, ওদের বিদায় করে দেব! ড্রতে তো কারো হাত নেই।’

পুরোটাই লটারি হওয়ায় রোনালদোর জুভেন্টাসের সঙ্গেও মুখোমুখি হওয়ার প্রবল ‘রোমাঞ্চ’ রয়েছে রিয়ালের। তাহলে নিজের পুরনো ঠিকানা সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ‘শত্রু’ হয়েই ফিরবেন রোনালদো? জুভেন্টাস গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় শঙ্কাটা উড়িয়ে দেওয়ার উপায় নেই। ড্রতে কারো হাত না থাকলেও টুইটার অ্যাকাউন্ট ‘লা লিগায়েনডাইরেক্টো’র পরিচালক অঙ্কে স্নাতকোত্তর ফ্রান মার্তিনেস নানা বিষয় মাথায় রেখে অঙ্ক কষেছেন একটা। তাঁর হিসাবে জুভেন্টাসের সঙ্গে রিয়ালের মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা ২০.৮৮ শতাংশ। আর লিভারপুলের সঙ্গে ২১.৮৮, ম্যানসিটি সঙ্গে ২১.৮৮, বায়ার্ন মিউনিখের সঙ্গে ১৮.০৮ আর লিপজিগের বিপক্ষে জিদানদের মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা ১৮.০৮ শতাংশ। সম্ভাবনা যা-ই থাক রিয়াল নিশ্চয়ই লিপজিগকেই পেতে চাইবে ড্রতে।

একইভাবে বার্সেলোনার সম্ভাব্য প্রতিপক্ষ অঙ্ক কষে বের করার চেষ্টা চালিয়েছেন ফ্রান মার্তিনেস। তাঁর হিসাবে চেলসির সঙ্গে লিওনেল মেসিদের খেলা পড়ার সম্ভাবনা ২৩.৩৮ শতাংশ। একইভাবে টটেনহামের বিপক্ষে ২২.৩৩, আতালান্তার সঙ্গে ১৮.৫৮, নাপোলির বিপক্ষে ১৮.৫৮ আর অলিম্পিক লিওঁর সঙ্গে খেলার সম্ভাবনা ১৭.১৩ শতাংশ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা