kalerkantho

রবিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০২০। ৫ মাঘ ১৪২৬। ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

গলফ ভারোত্তোলনে এলো ৬ রুপা

৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



গলফ ভারোত্তোলনে এলো ৬ রুপা

কাঠমাণ্ডু থেকে প্রতিনিধি : গলফে কোর্সটা গুরুত্বপূর্ণ। কোর্সের জ্যামিতিক মাপ যাঁর যত বেশি চেনা, তাঁরই সম্ভাবনা থাকে বেশি। ২০১০-এ তালুর মতো চেনা কুর্মিটোলা কোর্সের সুবিধা কাজে লাগিয়ে যেমন এই গলফেই বাংলাদেশকে দুই সোনা এনে দিয়েছিলেন জামাল, দুলালরা। এবার নিজেদের কোর্সে সেই সুবিধা ভালোই কাজে লাগিয়েছে নেপালিরা। ছেলেদের গলফের ব্যক্তিগত ও দলীয় দুটি সোনাই নিয়েছে তারা। বাংলাদেশের মোহাম্মদ ফরহাদ, শাহাবুদ্দিনরা লড়াই করে শেষ পর্যন্ত রুপা এনে দিয়েছেন দেশকে। ব্যক্তিগত রুপা জিতেছেন মোহাম্মদ ফরহাদ। দলীয় ইভেন্টে তিনি রুপা জেতেন মোহাম্মদ সম্রাট, মোহাম্মদ শাহাবুদ্দিন ও মোহাম্মদ শফিকের সঙ্গে মিলে।

গলফের মেয়েদের বিভাগে নেপালের আধিপত্য ভেঙেছে অবশ্য শ্রীলঙ্কা। ব্যক্তিগত ও দলীয় দুই ইভেন্টেরই সোনা নিয়েছে তারা। বাংলাদেশ দুই ইভেন্টেই জিতেছে রুপা। ব্যক্তিগত ইভেন্টে রুপা জিতেছেন জাকিয়া সুলতানা। এই ইভেন্টে ব্রোঞ্জও লঙ্কানদের। দলীয় ইভেন্টে জাকিয়ার সঙ্গে ছিলেন নাসিমা আক্তার ও সোনিয়া আক্তার। দলগততে নেপালি মেয়েদের পেছনে ফেলে দ্বিতীয় হয়েছেন বাংলাদেশের মেয়েরা। গতবারের সোনা জেতা ডিসিপ্লিন ভারোত্তোলন হচ্ছে এবার পোখারায়। এখনো পর্যন্ত অবশ্য সেখানে সোনার দেখা মেলেনি। তবে কাল দুটি রুপা এনে দিয়েছেন রোকেয়া সুলতানা ও শাখায়েত হোসেন। ৭১ কেজি ওজনশ্রেণিতে রুপা জিতেছেন রোকেয়া। স্ন্যাচ ও জার্ক মিলিয়ে ১৫৫ কেজি তুলেছেন তিনি। এই ইভেন্টে সোনা জিতেছেন ভারতের মনপ্রীত কউর। ছেলেদের ৮৯ কেজিতে শাখায়েতের সঙ্গে সোনার লড়াই হয়েছে নেপালের বিকাশ থাপার। তাতে বিকাশ স্ন্যাচ ও জার্ক মিলিয়ে ২৬৯ কেজি তুলে জিতেছেন সোনা। শাখায়েত রুপা জিতেছেন ২৬৮ কেজি তুলে। গেমসে পঞ্চম দিনে এই ছয় রুপা ও বেশ কিছু ব্রোঞ্জ নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে বাংলাদেশকে। প্রথম ও দ্বিতীয় দিনেই চলে এসেছিল চার সোনা। এরপর টানা তৃতীয় দিন সোনাহীনই কাটাল বাংলাদেশ।

সোনার প্রত্যাশা আছে যে ইভেন্ট সেই ছেলেদের ক্রিকেটে কাল বাংলাদেশ ১০ উইকেটে হারিয়েছে ভুটানকে। প্রথমে ব্যাটিংয়ে নামা ভুটান ৭ উইকেটে তোলে ৬৯ রান। বাংলাদেশ লক্ষ্যে পৌঁছে যায় কোনো উইকেট না হারিয়েই। দুই ওপেনারের মধ্যে ২৮ বলে হাফসেঞ্চুরি পূরণ করেন সৌম্য সরকার। দলীয় খেলার মধ্যে কাল বাস্কেটবলে হতাশ করেছে বাংলাদেশ। মালদ্বীপের কাছে ৭৮-৬৭ পয়েন্টে হেরে গেছেন মিথুন বিশ্বাসরা। হ্যান্ডবলে মেয়েরা অবশ্য সেমিফাইনালে উঠেছে শ্রীলঙ্কাকে ৩৪-১৩ গোলে হারিয়ে। সেমিতে অবশ্য ফেভারিট ভারতের মুখোমুখি হবে তারা। ছেলেদের সেমিতে আজ প্রতিপক্ষ পাকিস্তান। অ্যাথলেটিকসেও কাল হতাশার দিন গেছে। দশরথে ৪ গুণন ১০০ মিটার রিলেতে আব্দুর রউফ-শরিফুল-মোহাম্মদ ইসমাইল-হাসান মিয়ারা হয়েছেনে চতুর্থ। মেয়েদের রিলেতেও সোনা, রুপা, তামা কিছুই জোটেনি। চতুর্থই হয়েছেন শরিফা খাতুন-সোহাগী আক্তার-তামান্না আক্তার-শিরিন আক্তাররা। এ দুই ইভেন্টেই সোনা জিতেছে শ্রীলঙ্কা। ওদিকে কাল মেয়েদের কাবাডিতে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে ব্রোঞ্জ জিতেছে বাংলাদেশ। কাল এই ইভেন্টের ফাইনাল খেলবে নেপাল-ভারত। এ দুটি দেশ পদক তালিকায়ও আধিপত্য করছে। ভারত ৮১ সোনা নিয়ে শীর্ষে, নেপাল জিতেছে ৪১ সোনা। ২৩ সোনা নিয়ে তৃতীয় স্থানে শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান জিতেছে ১৯ সোনা, এখনো চার সোনা বাংলাদেশের।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা