kalerkantho

রবিবার । ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১০ রবিউস সানি ১৪৪১     

সেই চিলিকে পেল আর্জেন্টিনা

৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সেই চিলিকে পেল আর্জেন্টিনা

২০১৫ ও ২০১৬ সালে দুইবার আর্জেন্টিনার বুক ভেঙেছিল চিলি। টানা দুই কোপা আমেরিকার ফাইনালে লিওনেল মেসির দল হারে অ্যালেক্সিস সানচেস-আর্তুরো ভিদালদের কাছে। গত কোপা আমেরিকার তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে লাল কার্ডই দেখে বসেন মেসি। এরপর ক্ষোভ উগরে কনমেবলকে একহাত নেওয়ায় নিষিদ্ধ হন তিন মাস। সেই চিলিকেই ২০২০ কোপা আমেরিকায় নিজেদের গ্রুপে পেয়েছে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়া যৌথভাবে আয়োজন করবে এবারের টুর্নামেন্ট। আর্জেন্টিনা-চিলি ম্যাচ দিয়ে কোপার উদ্বোধন ১২ জুন বুয়েনস এইরেসে। আর ফাইনাল কলম্বিয়ায় ১২ জুলাই। দুই দেশের দূরত্ব সাত হাজার কিলোমিটার। ভ্রমণক্লান্তি মেনেই তাই ১২ দলকে খেলতে হবে ফুটবলের সবচেয়ে প্রাচীন এই টুর্নামেন্ট।

বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল গ্রুপ ‘বি’তে পেয়েছে এশিয়ার অতিথি কাতারকে। এই গ্রুপের অন্য দলগুলো কলম্বিয়া, ভেনিজুয়েলা, ইকুয়েডর ও পেরু। গত কোপা আমেরিকার ফাইনালে পেরুকে হারিয়েই শিরোপা জিতেছিল ব্রাজিল। ১৪ জুন ভেনিজুয়েলার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এবারের অভিযান শুরু করবে তিতের দল। ২০২২ বিশ্বকাপের স্বাগতিক কাতার খেলেছিল এ বছরের কোপা আমেরিকাতেও। নিজেদের গ্রুপে তলানির দল হয়ে বিদায় নেয় শুরুতে। তাদের অভিযান শুরু হবে ১৪ জুন পেরুর বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে।

গ্রুপ ‘এ’তে চিলি ছাড়া আর্জেন্টিনার সঙ্গী বলিভিয়া, উরুগুয়ে, প্যারাগুয়ে ও অতিথি দল অস্ট্রেলিয়া। লুই সুয়ারেস, এদিনসন কাভানিদের নিয়ে গড়া দল উরুগুয়েও অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে উঠবে আর্জেন্টিনার। এবার নতুন ফরম্যাটের টুর্নামেন্টের প্রতিটি গ্রুপের সেরা চার দল টিকিট পাবে কোয়ার্টার ফাইনালের। শেষ আটের ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে ৪ ও ৫ জুলাই। এরপর দুটি সেমিফাইনাল মাঠে গড়াবে ৮ জুলাই আর ফাইনাল ১২ জুলাই। নিজেদের দেশে মেসির জন্য এটা সেরা সুযোগ কোনো আন্তর্জাতিক শিরোপা জয়ের। তবে কোচ লিওনেল স্ক্যালোনি জানালেন শুধু মেসি নয় আর্জেন্টিনারই বেশি দরকার শিরোপাটার, ‘মেসির চেয়ে এই শিরোপাটা বেশি দরকার আর্জেন্টিনার। কোনো কিছুর প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি না। আশা করছি ফাইনাল পর্যন্ত খেলব আমরা।’ এএফপি

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা