kalerkantho

শনিবার । ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৯ রবিউস সানি ১৪৪১     

মুখোমুখি প্রতিদিন

১০ রান করে জেতানোও গুরুত্বপূর্ণ

৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে




১০ রান করে জেতানোও গুরুত্বপূর্ণ

গত বিপিএলে খেলেছেন ঢাকা ডায়নামাইটসে। কিপার-ব্যাটসম্যানের জন্য ১৫ ম্যাচে ১৯৪ রান খারাপ না। কিন্তু এবার নতুন দল চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সে আরো ভালো করতে চান নুরুল হাসান। আর রানের চেয়ে দলকে জেতানোর গুরুত্বের কথাও কাল প্রস্তুতি শুরুর দিনে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বলেন তিনি

 

প্রশ্ন : চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স দল কেমন হয়েছে? বিপিএলে দলের লক্ষ্যই বা কী?

নুরুল হাসান : টি-টোয়েন্টিতে যেদিন যারা ভালো খেলবে, তারাই জিতবে। সাতটি দলের সবগুলোই ভারসাম্যপূর্ণ। আমাদের দলও। এখন মাঠে যদি শতভাগ দিতে পারি এবং ম্যাচের অবস্থা অনুযায়ী খেলতে পারি, তাহলে ভালো ফলাফল করা সম্ভব। সাতটি দলই শিরোপার জন্য মাঠে নামবে। তবে আমাদের প্রথম লক্ষ্য, শুরুর চার দলের মধ্যে থেকে কোয়ালিফাই করা। এরপর ধাপে ধাপে চিন্তা করব।

প্রশ্ন : আপনার নিজের ব্যক্তিগত লক্ষ্য কী?

নুরুল : অনেকে হয়তো ফিফটি-সেঞ্চুরি দেখে। কিন্তু আমার কাছে ১০ রান করে দল জেতানোও গুরুত্বপূর্ণ। সেঞ্চুরি করে ম্যাচ হারলে সে রানের কোনো গুরুত্ব নেই। আর আমি কিছু জিনিস চিন্তা করি অন্যভাবে। নিজের সন্তুষ্টি অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আমার কাছে মনে হয়, যদি ১০ রান করে দল জেতাতে পারি তাহলে আমি সন্তুষ্ট। জাতীয় লিগ বা ‘এ’ দলের হয়ে ভালো খেলছিলাম। বড় রান করেছি। এবারও চ্যালেঞ্জ থাকবে যেন ফিনিশিং করতে পারি। দলের হয়ে যেন ম্যাচ জেতাতে পারি।

প্রশ্ন : জাতীয় দলে ফেরার জন্য বিপিএল আপনার জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ?

নুরুল : জাতীয় দলের হয়ে শেষ যে ম্যাচ খেলেছি, তাতেও ৪৭ রান করেছি। মাঝেমধ্যে টিম কম্বিনেশনের ব্যাপার থাকে। এটার কারণে হয়তো অনেক কিছু সম্ভব হয় না। আমার কাছে মনে হয়, যেখানে যখন খেলি, সেটা আমার জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

প্রশ্ন : বিপিএলে বিদেশিদের সঙ্গে খেললে দেশের ক্রিকেটাররা কতটা উপকৃত হন?

নুরুল : বিপিএলের মতো আসরে বিদেশি ক্রিকেটারদের সঙ্গে খেলার একটা পরিবেশ সৃষ্টি হয়। তাঁদের সঙ্গে ড্রেসিংরুম ভাগাভাগি করে আমরা অনেক কিছু জানতে পারি। বিদেশিরা এলে আমাদের চ্যালেঞ্জ আরো বেশি থাকে। আমরা সবাই সে চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত। সবার চেষ্টা থাকবে যেন ভালো করতে পারি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা