kalerkantho

শনিবার । ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৬ রবিউস সানি               

মুখোমুখি প্রতিদিন

উচ্চতার কারণে দ্রুত হাঁপিয়ে উঠছে সবাই

নেপালে আগেভাগে গিয়ে এসএ গেমসের প্রস্তুতি নিচ্ছেন সাঁতারুরা। উচ্চতা, আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার পাশাপাশি ২৫ মিটার পুলে অভ্যস্ত হওয়ারও বিষয় আছে। কেমন করছেন তাঁরা? জানতেই কালের কণ্ঠ স্পোর্টস ফোনে কথা বলেছেন সিনিয়র সাঁতারু মাহফিজুর রহমানের সঙ্গে

২২ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



উচ্চতার কারণে দ্রুত হাঁপিয়ে উঠছে সবাই

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : নেপালে তো বেশ কয়েক দিন কাটিয়ে দিলেন আপনারা, অনুশীলন কেমন হচ্ছে?

মাহফিজুর রহমান : এখানে এসেও পুরোদমে অনুশীলন করছি। কোনো সমস্যা হচ্ছে না কোথাও। আমাদের মূল সমস্যা তো কন্ডিশন, তার সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার জন্যই আগেভাগে আসা। চেষ্টা করছি তাতে মানিয়ে নিতে।

প্রশ্ন : তাপমাত্রা এখন কেমন কাঠমাণ্ডুতে?

মাহফিজুর : এখানে বেশ ঠাণ্ডা। দিনের বেলা অবশ্য ১৮ থেকে ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াস থাকে তাপমাত্রা। বিকেলের পর থেকে বেশ ঠাণ্ডা পড়ে। রাতে তাপমাত্রা অনেক নেমে যায়। শুরুর দিকে আমারও ঠাণ্ডা-কাশি ধরে গিয়েছিল। আমরা এখানে অনুশীলন করছি এটা সুইমিং ক্লাবের পুলে। এটা ইনডোর। ফলে সাঁতারের সময় ঠাণ্ডাটা খুব সমস্যা হচ্ছে না। প্রতিযোগিতার মূল ভেন্যুতে এখনো কাজ হচ্ছে। ওটা সম্পূর্ণ হয়ে গেলে আমরা ওখানেই অনুশীলন করতে পারতাম। ওই ভেন্যুটা আবার পুরোপুরি ইনডোর হবে না বলেই শুনেছি।

প্রশ্ন : আর উচ্চতার কারণে মূলত কী সমস্যাটা হচ্ছে আপনাদের?

মাহফিজুর : সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে এত উচ্চতায় সাঁতরে তো আমরা অভ্যস্ত না। এখানে দমের একটা সমস্যা হয়। পার্থক্য যেটা দেখছি ঢাকায় যে পরিশ্রমে আমরা স্বাভাবিক থাকি, এখানে ততটুকু করেই হাঁপিয়ে যাচ্ছি। এটা আসলে অভ্যস্ততার ব্যাপার। আমরা খেলা শুরুর দুই সপ্তাহ আগে এসে এর সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছি। যদিও এখানে আরো বেশি দিনের ক্যাম্প করতে পারলে ভালো হতো।

প্রশ্ন : ২৫ মিটার পুলে অনুশীলন করছেন এটাও তো গুরুত্বপূর্ণ?

মাফফিজুর : বলতে গেলে এটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। এই পুলের টেকনিক্যাল ব্যাপারগুলো যতটা সম্ভব আয়ত্ত করে নেওয়ার চেষ্টা করছি আমরা।

প্রশ্ন : আপনাদের মতো আর কোনো দল কি আগেভাগে গিয়েছে নেপালে?

মাহফিজুর : না, আমরাই শুধু এসেছি। অন্য দলগুলোও দেশের বাইরে অনুশীলন করছে বলে জানি। তারাও নিশ্চয় এখানকার কন্ডিশন মাথায় রেখেই তৈরি হওয়ার চেষ্টা করছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা