kalerkantho

শুক্রবার । ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৮ রবিউস সানি ১৪৪১     

১৬ বছরের নাসিমে নজর

২১ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



১৬ বছরের নাসিমে নজর

নিত্যনতুন ফাস্ট বোলার উপহার দেওয়ায় পাকিস্তানের জুড়ি নেই। এবার তারা উপহার দিতে যাচ্ছে ১৬ বছর বয়সী এক তরুণ নাসিম শাহকে। গ্যাবায় আজ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক হতে যাচ্ছে সদ্য কৈশোর পেরোনো এই বোলারের।

কম বয়সীদের সুযোগ দেওয়াতেও এগিয়ে পাকিস্তানিরা। টেস্টের সর্বকনিষ্ঠ ১০ খেলোয়াড়ের ছয়জনই তাদের। সর্বকনিষ্ঠ ১৪ বছর বয়সে অভিষিক্ত হাসান রাজা। শীর্ষ দশের এই তালিকায় আরো আছেন মোস্তাক মোহাম্মদ, আকিভ জাভেদ, শচীন টেন্ডুলকার। অর্থাৎ তাঁদের গনগনে সূর্যের মতো জ্বলে উঠার স্ফুরণটা দেখা গিয়েছিল সেই কৈশোর পেরোনো বয়সেই। এই নাসিমকে নিয়েও এখন তুমুল আলোচনা। অস্ট্রেলিয়া ‘এ’ দলের বিপক্ষে তাঁর ৮ ওভারের স্পেল দেখেই অধিনায়ক আজহার আলী নিশ্চিত করে দিয়েছেন আজ তাঁর একাদশে থাকার খবর, ‘খুব বেশি ক্রিকেটারের পক্ষে সম্ভব হয় না এই বয়সেই এতটা ভালো করা। কিন্তু কাউকে কাউকে নিয়ে বড় আশা থাকেই। সে তাদেরই একজন। আমরা অবশ্যই তাকে সুযোগটা দেব।’

নাসিমকে নিয়েও এখন তুমুল আলোচনা। অস্ট্রেলিয়া ‘এ’ দলের বিপক্ষে তাঁর ৮ ওভারের স্পেল দেখেই অধিনায়ক আজহার আলী নিশ্চিত করে দিয়েছেন আজ তাঁর একাদশে থাকার খবর, ‘খুব বেশি ক্রিকেটারের পক্ষে সম্ভব হয় না এই বয়সেই এতটা ভালো করা। কিন্তু কাউকে কাউকে নিয়ে বড় আশা থাকেই। সে তাদেরই একজন। আমরা অবশ্যই তাকে সুযোগটা দেব।’

এই বয়সে অস্ট্রেলিয়ার মতো দলের বিপক্ষে তাদের মাটিতে পাঁচ দিনের ম্যাচে পারফরম করাটা যে ভীষণ চাপেরও। তবে ওয়াসিম আকরাম বলছেন বরং উল্টোটা সত্যি হবে তাঁর জন্য, ‘১৬ বছর বয়সে চাপ কী, ওর সেটা বোঝারই কথা না। ও চাপটা অনুভব করবে যখন তারকা হবে তখন। আমিও এই বয়সে চাপ কী জিনিস বুঝিনি। আমার কাছে এটা বরং উপভোগ্য। আমি নিশ্চিত নাসিমের ক্ষেত্রেও তা-ই হবে, সে এখন শুধু পারফরম করার জন্যই মুখিয়ে আছে।’ তা হওয়ারই কথা, অস্ট্রেলিয়া সফরেই যে জীবনের সবচেয়ে বড় আঘাতটা এসেছে তাঁর কাছে, শুনেছেন মায়ের মৃত্যুর খবর। কিন্তু তিনি দলের সঙ্গেই থেকে গেছেন। টেস্ট অভিষেক নাসিমের জন্য তাই অন্য রকম আবেগেরও নাম হতে যাচ্ছে। পাকিস্তানের এই দলেই আরো দুজন ১৯ বছর বয়সী ক্রিকেটার আছেন, মুসা খান ও শাহীন শাহ আফ্রিদী। তাঁরা যেভাবে দলের শক্তি বাড়িয়েছেন, নাসিমকে নিয়ে তাই বড় আশাবাদীই টিম ম্যানেজমেন্ট। এএফপি

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা