kalerkantho

সোমবার । ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ১ পোষ ১৪২৬। ১৮ রবিউস সানি                         

মুখোমুখি প্রতিদিন

ছেলেদের ইভেন্টগুলোতে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে

১৮ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ছেলেদের ইভেন্টগুলোতে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে

এসএ গেমসের জন্য সবার আগে সাঁতার দল গেল নেপালে। সেখানকার কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতেই আগেভাগে যাওয়া সাঁতারুদের। গত আসরের সবচেয়ে সফল এই ডিসিপ্লিনে এবারের প্রত্যাশা নিয়ে কালের কণ্ঠ স্পোর্টসের মুখোমুখি হয়ে কথা বলেছেন সাঁতারু অনিক ইসলাম

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : নেপালে আগেভাগেই যাওয়া হচ্ছে আপানাদের, এটা তো ভালো হলো...

অনিক ইসলাম : অবশ্যই। এটা আমাদের সবার জন্যই ভালো হবে। ওখানে ২৫ মিটার পুলে অনুশীলন করে মানিয়ে নেওয়ার সুযোগ পাব। আগের কোচ তাকেও ইনোকিই এমনটা চেয়েছিলেন। কাঠমাণ্ডুর উচ্চতার কথা ভেবে কুনমিংয়ে প্রশিক্ষণের পরিকল্পনা করেছিলেন উনি। তবে উনি নিয়ে যেতেন ছয়-সাতজনকে। যাহোক, এরপর তো ইনোকি চলেই গেলেন। তখন ফেডারেশনই সিদ্ধান্ত নিল নেপালে পুরো দলকে পাঠানোর। যেহেতু ওখানেই আমাদের খেলা, সব দিক দিয়ে বিবেচনায় এটাই আমাদের জন্য সবচেয়ে ভালো হলো।

প্রশ্ন : গতবার সাঁতারেই এসেছিল দুটি সোনা, এবার আপনাদের লক্ষ্য কী?

অনিক : এটা নিয়ে ইনোকিই মূল পরিকল্পনাটা সাজিয়েছিলেন। উনি ভীষণ আশাবাদী ছিলেন আমাদের সবাইকে নিয়ে। সেই প্রস্তুতির মাঝখানে উনি চলে গেলেন। হঠাৎ করে নতুন একটা কোচ দায়িত্ব নেওয়ার পর সত্যি বলতে আমাদের লক্ষ্যের জায়গাটাও একটু নড়বড়ে হয়ে গেছে। এর পরও আমরা চেষ্টা করছি সর্বোচ্চটা দিয়ে তৈরি হতে। ওখানে কন্ডিশনের সঙ্গে খাপ খাওয়ানোর পরে কতটুকু করা যায় সেটাই ব্যাপার। সে জন্যই আমরা আগেভাগে যাাচ্ছি। কন্ডিশনের সঙ্গে যত মানিয়ে নিতে পারব, তত আমাদের ভালো করার সম্ভাবনা বাড়বে

প্রশ্ন : তারপরও একটা হিসাব-নিকাশ নিশ্চয় হয়েছে, সোনার আশা কোন কোন ইভেন্টে?

অনিক : ছেলেদের ৫০, ১০০ মিটারের ইভেন্টগুলোতে হাড্ডাহাড্ডি প্রতিদ্বদ্বন্দ্বিতা হবে। এটা আসলে আগেভাগে বলতে পারে না দিনটা কার হবে। তবে আমাদের মেয়েদের ব্রেস্ট স্ট্রোকে রোমানা আক্তারের সম্ভাবনা দেখছি। শিলা আপুর ইভেন্টে এবার ও লড়বে। গতবার ব্রোঞ্জ পেয়েছিল ২০০ মিটার ব্রেস্ট স্ট্রোকে। সেটা রুপা বা সোনাও হতে পারত। টাইমিং খুব কাছাকাছি ছিল। ওর ওপর সবার একটা নজর আছে তাই। তবে ২৫ মিটার পুলে সবারই নতুন অভিজ্ঞতা হবে, দেখা যাক কী হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা