kalerkantho

সোমবার । ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ১ পোষ ১৪২৬। ১৮ রবিউস সানি                         

কিংসের সাম্রাজ্যে যুক্ত হলো ‘আর্জেন্টিনা’

১৮ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



কিংসের সাম্রাজ্যে যুক্ত হলো ‘আর্জেন্টিনা’

ক্রীড়া প্রতিবেদক : আগের মৌসুমের মতো এবারও তারা ছুটেছিল দুর্দান্ত এক বিদেশির সন্ধানে। সে রকম এক স্ট্রাইকারের খোঁজও মিলেছিল। দরদামে হয়ে গেলেও শেষ মুহূর্তে তাঁর স্ত্রী বেঁকে বসায় আর আসছেন না সেই ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার। তবে এসে গেছেন নতুন এক মিডফিল্ডার—আর্জেন্টিনার নিকোলাস দেলমন্তে। তাতেই ভারসাম্য এসে গেছে গতবারের চ্যাম্পিয়নদের।

কয়েক দিন আগে ঢাকায় এসেছেন নিকোলাস দেলমন্তে। খেলতেন স্পেনের দ্বিতীয় বিভাগে, এক্সট্রেমাদুরা ক্লাবে তাঁর চুক্তি শেষ হয় গত জুনে। এরপর এই মিডফিল্ডারের ক্যারিয়ারে নতুন অধ্যায় শুরু হবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে। প্র্যাকটিসে তিনি দুর্দান্ত। তাতে দারুণ আশাবাদী বসুন্ধরা কিংসের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর জোবায়ের নিপু, ‘এই আর্জেন্টাইন টেকনিক্যালি খুব ভালো। তার ভিশন এবং থ্রু বলগুলো এত চমৎকার যে তাকে পছন্দ করবে যেকোনো কোচ। ওর সঙ্গে কিরগিজস্তানের বখতিয়ারের একটা জুটি হয়ে গেলে মাঝমাঠে কিংসের খেলা হবে দেখার মতো।’

৩০ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডার খেলবেন মাশুকের জায়গায়। জাতীয় দলের ট্রেনিংয়ে এই দেশি মিডফিল্ডার ইনজুরিতে পড়ায় এবার সমস্যায় পড়ে চ্যাম্পিয়নরা। সেই পজিশনে খেলবেন আর্জেন্টাইন নিকোলাস আর কিরগিজস্তানের বখতিয়ার দুইশোবেকভ খেলবেন নাম্বার ‘টেন’ পজিশনে। দুই বিদেশির বোঝাপড়া ভালো হলে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের পারফরম্যান্সে।

ঢাকায় এসেছেন নিকোলাস দেলমন্তে। খেলতেন স্পেনের দ্বিতীয় বিভাগে, এক্সট্রেমাদুরা ক্লাবে তাঁর চুক্তি শেষ হয় গত জুনে। এরপর এই মিডফিল্ডারের ক্যারিয়ারে নতুন অধ্যায় শুরু হবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে। প্র্যাকটিসে তিনি দুর্দান্ত।

আসন্ন মৌসুমে তাদের বড় চিন্তার বিষয় ছিল রক্ষণভাগ। গতবার অভিষেকে লিগ শিরোপা এবং স্বাধীনতা কাপ জিতলেও তাদের দুর্বলতা ছিল রক্ষণভাগে। আক্রমণাত্মক ফুটবলের কারণে যদিও তা খুব বেশি চোখে পড়েনি। তবে শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপে তা স্পষ্ট হয়ে যায়। দুর্বল রক্ষণভাগের কারণে তারা ভুগেছে প্রতি ম্যাচে। নতুন মৌসুমে সেটা গোছানোই ছিল তাদের প্রথম কাজ। আবাহনীর তপু বর্মণ, শেখ রাসেলের ইয়াসিন ও বিশ্বনাথকে টেনে সাজিয়েছে একদম নতুন রক্ষণভাগ। গতবার এক স্প্যানিশ স্টপারকে এনেও সেভাবে সার্ভিস পায়নি। এবার তাই দেখেশুনে নিয়ে আসছে কাজাখস্তানের নাজারভকে, এ মাসের শেষের দিকে এই বিদেশি যোগ দেবেন দলের সঙ্গে। ফিনল্যান্ড থেকে এসেছেন আরেক ডিফেন্ডার তারিক কাজী। বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত তারিক ফিনল্যান্ডে খেলেন এফসি ইলভেসে। ১৯ বছর বয়সী এই তরুণের স্বপ্ন বাংলাদেশ জাতীয় দলের জার্সি গায়ে তোলা, ‘আমি ফুটবলে আসার পেছনে আমার বাবার ভূমিকা অনেক। বাবার বাড়ি ছিল নওগাঁ, তাই এ দেশের হয়ে আমি জাতীয় দলে খেলতে চাই। সম্পূর্ণ ভিন্ন আবহাওয়ায় খেলতে হবে, তাই ব্যাপারটা খুব কঠিন হবে আমার জন্য। তবে ওই ঠাণ্ডার দেশ থেকে এসে জামাল ভূঁইয়া এখন এ দেশের ফুটবলের বড় তারকা। এটা আমার জন্য বড় অনুপ্রেরণা।’

কিংসের পাঁচ বিদেশি চূড়ান্ত হয়ে গেছে। আগেরবারের দানিয়েল কলিনদ্রেস ও বখতিয়ারকে রেখে নতুন নিয়েছে তিনজনকে। তাতে দলের ভারসাম্য ও শক্তি দুটোই বেড়েছে মনে করেন বসুন্ধরা কিংসের প্রেসিডেন্ট ইমরুল হাসান, ‘আমাদের রক্ষণভাগ বলতে গেলে পুরোপুরি নতুন। এই সংস্কারটা খুব জরুরি ছিল আমাদের জন্য। তাতে দলের ভারসাম্য ফিরেছে এবং শক্তিও বেড়েছে। ভালো কয়েকজন বিদেশি এসেছে, বিশেষ করে আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডারের খেলা দেখে সবাই খুব খুশি। তাই আমার বিবেচনায় গতবারের চেয়ে ভালো দল হয়েছে এবার।’ এই দলের আনুষ্ঠানিক প্রস্তুতি শুরু হচ্ছে আজ বসুন্ধরা কিংসের নতুন মাঠে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা