kalerkantho

রবিবার । ১২ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৯ সফর ১৪৪২

বোলিংয়ে রুবেল ব্যাটিংয়ে নাসির

১২ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বোলিংয়ে রুবেল ব্যাটিংয়ে নাসির

ক্রীড়া প্রতিবেদক : জাতীয় লিগের শিরোপা নির্ধারণে ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ খুলনা-রাজশাহীর ম্যাচ। অথচ বৃষ্টির কারণে সে খেলার প্রথম দিন মাঠে গড়ায়নি, দ্বিতীয় দিনও হয়েছে মোটে ১২ ওভার। রোমাঞ্চে জল ঢেলে ম্যাড়মেড়ে ড্রয়ের পথেই তখন খেলাটি। কাল তৃতীয় দিনে তাতে উত্তেজনা ফিরিয়ে এনেছেন রুবেল হোসেন। তাঁর ক্যারিয়ারসেরা বিধ্বংসী বোলিংয়ে যে মাত্র ১৫১ রানে অল আউট হয়ে যায় রাজশাহী।

শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিনা উইকেটে ৩৬ রান নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করে রাজশাহী। কাল নিজের প্রথম স্পেলেই দুই ওপেনারকে ফেরান রুবেল। আর পরের স্পেলে তো রীতিমতো ধ্বংসযজ্ঞ চালান প্রতিপক্ষের ব্যাটিং লাইনে। তুলে নেন আরো ৫ উইকেট। তাতে ৫১ রানে হয়ে যায় ৭ উইকেট। খুলনার অভিজ্ঞ এ পেসারের ক্যারিয়ারসেরা বোলিং এটি। ২০১৭ সালে বিসিএলে দক্ষিণাঞ্চলের হয়ে ছিল আগের সেরা, ২২ রানে ৫ উইকেট।

রুবেলের আগুনে বোলিংয়ে মাত্র ১৫১ রানে অল আউট হয়ে যায় রাজশাহী। এরপর খুলনা দিন শেষ করেছে ৪ উইকেটে ১৫৪ রান তুলে। দিনের শেষ ভাগে থিতু হয়ে যাওয়া দুই ব্যাটসম্যান অমিত মজুমদার (৫৯) এবং তুষার ইমরানকে (৫৮) ফেরানোই রাজশাহীর একটুখানি স্বস্তি। তবে এরই মধ্যে লিড পেয়ে যাওয়া খুলনা আজ শেষ দিনে মাঠে নামবে জয়ে চোখ রেখে।

বগুড়ায় জাতীয় লিগের প্রথম স্তরের আরেক খেলায় চোখ-ধাঁধানো সেঞ্চুরি করেছেন নাসির হোসেন। প্রথম ইনিংসে ৭০ রানে আউট হওয়ার দুঃখ রয়েছে। তা ঘোচালেন কাল অপরাজিত ১০৪ রানের ইনিংসে। তাতে ঢাকার বিপক্ষে খানিকটা সুবিধায় রংপুর। প্রথম ইনিংসে ১২ রানের লিডের পর কাল দিন শেষ করেছে ৫ উইকেটে ২০০ রানে। আজ শেষ দিনে ম্যাচের ফলের সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

রাজশাহীর শহীদ কামারুজ্জামান স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় স্তরের ম্যাচে রানোৎসব চলছেই। ঢাকা মেট্রোর ৮ উইকেটে ৩১১ রানে ইনিংস ঘোষণার জবাবে অল আউট হওয়ার আগে ৩৫১ রান তোলে সিলেট। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে ৪ উইকেটে ২৪৫ রান ঢাকা মেট্রোর। ওপেনার আজমির আহমেদের ৮০ রানের পর মিডল অর্ডারে মার্শাল আইয়ুবের অপরাজিত ৭৩ রানে বড় সংগ্রহের পথে তাঁরা। ম্যাচের শেষ দিনে আজ বিজয়ী-বিজিত নির্ধারণের সম্ভাবনা কম।

বরিশালে স্বাগতিকদের সঙ্গে চিটাগংয়ের ম্যাচটি বৃষ্টি ও ভেজা আউটফিল্ডের কারণে তৃতীয় দিনেও শুরু হতে পারেনি।

খুলনা-রাজশাহী : রাজশাহী : ৫০.৪ ওভারে ১৫১ (সানজামুল ৪৮, মিজানুর ৪৩; রুবেল ৭/৫১)। খুলনা : ৫৪ ওভারে ১৫৪/৪ (অমিত ৫৯, তুষার ৫৮; মুক্তার ২/২৬)। রংপুর-ঢাকা : রংপুর : ২৩৪ এবং ৮১ ওভারে ২০০/৫ (নাসির ১০৪*; তাইবুর ২/২৭)। ঢাকা : ৬৪.১ ওভারে ২২২ (রকিবুল ৬৭, মজিদ ৫২; মুকিদুল ৫/৩৭)। ঢাকা মেট্রো-সিলেট : ঢাকা মেট্রো : ৩১১/৮ ডিক্লে. এবং ৭৫ ওভারে ২৪৫/৪ (আজমির ৮০, মার্শাল ৭৩*; এনামুল ২/৮০)। সিলেট : ১০১.৩ ওভারে ৩৫১ (অমিত ১২৫, গালিব ৫৯; শহিদুল ৩/৬৩; শরীফুল্লাহ ৩/৮৬)।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা