kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

নেপিয়ারে মালান-মরগানের তাণ্ডব

৯ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



নেপিয়ারে মালান-মরগানের তাণ্ডব

তারা ওয়ানডের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন। আগামী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও যে অন্যতম ফেভারিট আরো একবার বুঝিয়ে দিল ইংল্যান্ড। গতকাল নেপিয়ারে ডেভিড মালান-এউইন মরগানের তাণ্ডবে সিরিজের চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতে করেছিল ৩ উইকেটে ২৪১ রান। এই ফরম্যাটে যা ইংল্যান্ডের সর্বোচ্চ, আগের সেরা ছিল ২০১৬ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৮ উইকেটে ২৩০। এমন রানপাহাড়ে চাপা পড়ে নিউজিল্যান্ড হেরেছে ৭৬ রানে। ১৬.৫ ওভারে তারা অল আউট ১৬৫-তে। ম্যাচ সেরার পুরস্কার ৪৮ বলে ইংলিশ ব্যাটসম্যানদের মধ্যে দ্রুততম সেঞ্চুরির কীর্তি গড়া ডেভিড মালানের। মালান অপরাজিত ছিলেন ১০৩ রানে, অধিনায়ক এউইন মরগান করেছিলেন ৯১। পাঁচ ম্যাচের সিরিজে সমতা ফিরল ২-২-এ।

শুরুটা সাদামাটা ছিল ইংল্যান্ডের। ৯ বলে ৮ করে ফিরে যান জনি বেয়ারস্টো। অন্য ওপেনার টম বেনটন করেন ২০ বলে ৩১। দুটি উইকেটই মিচেল স্যান্টনারের। এর পরই ডেভিড মালান ও এউইন মরগানের বিধ্বংসী রূপ। দুজন তৃতীয় উইকেটে গড়েছেন ১৮২ রানের জুটি, যা যেকোনো উইকেটে টি-টোয়েন্টির চতুর্থ সেরা। দ্বিতীয় ইংলিশ হিসেবে এই ফরম্যাটে সেঞ্চুরি করেন মালান। এর আগে ২০১৪ বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৬০ বলে তিন অঙ্কে পৌঁছেছিলেন অ্যালেক্স হেলস। মালান সেঞ্চুরি করেছেন মাত্র ৪৮ বলে। শেষ পর্যন্ত ৫১ বলে ৯ বাউন্ডারি ৬ ছক্কায় ১০৩ রানে অপরাজিত তিনি।

মরগান ফিরেছেন ৪১ বলে ৭ বাউন্ডারি ৭ ছক্কায় ৯১ করে। সেঞ্চুরি মাঠে ফেলে এলেও কীর্তি গড়েন ২১ বলে ইংলিশদের মধ্যে দ্রুততম ফিফটির। জস বাটলারের ২২ বলে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ফিফটি ইংলিশদের মধ্যে দ্রুততম ছিল এত দিন। মালান-মরগানের তাণ্ডবে শেষ ৪ ওভারে ৭৬ রান করে ইংল্যান্ড। টি-টোয়েন্টিতে শেষ ৪ ওভারে এত বেশি রান তুলতে পারেনি আর কোনো দল। ২০১৭ সালে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে আফগানিস্তানের ৭৫ ছিল এত দিনের সেরা। ব্লেয়ার টিকনার ৪ ওভারে ৫০ আর ইশ সোধির ৩ ওভারে খরচ ৪৯ রান। জবাবে টিম সাউদির ৩৯ আর কলিন মুনরোর ৩১-এ কিউইরা গুটিয়ে যায় ১৬৫ রানে। রান উৎসবের এই ম্যাচেও ৪ উইকেট নিয়ে আলো কাড়েন ম্যাট পারকিনসন। ক্রিকইনফো

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ইংল্যান্ড : ২০ ওভারে ২৪১/৩ (মালান ১০৩*, মরগান ৯১, বেনটন ৩১; স্যান্টনার ২/৩২, সাউদি ১/৪৭)।

নিউজিল্যান্ড : ১৬.৫ ওভারে ১৬৫ (সাউদি ৩৯, মুনরো ৩০, গাপটিল ২৭; পারকিনসন ৪/৪৭, জর্ডান ২/২৪)।

ফল : ইংল্যান্ড ৭৬ রানে জয়ী।

ম্যাচ সেরা : ডেভিড মালান।

 

যত কীর্তি

►       ৩ উইকেটে ২৪১ রান টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডের সর্বোচ্চ।

►       ৪৮ বলে ডেভিড মালানের সেঞ্চুরি ইংলিশদের মধ্যে দ্রুততম।

►       ২১ বলে এউইন মরগানের ফিফটিও ইংলিশদের মধ্যে দ্রুততম।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা