kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

মাসকাট ক্লাবকে হারালেন নাবিবরা

৮ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



মাসকাট ক্লাবকে হারালেন নাবিবরা

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ওমানে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে মাসকাট ক্লাবকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে বাংলাদেশ। ওমান প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবটির মাঠেই হওয়া এ ম্যাচটিতে বাংলাদেশ ১২ মিনিটেই এগিয়ে যায় স্ট্রাইকার নাবিব নেওয়াজ লক্ষ্য ভেদ করলে। প্রতিপক্ষ অবশ্য সমতায় ফিরতে সময় নেয়নি। ১৭ মিনিটেই স্কোরলাইন ১-১। সেখান থেকে বাংলাদেশ ম্যাচ জেতে বিপলু আহমেদ ও তৌহিদুল আলমের গোলে।

প্রস্তুতি ম্যাচে সবাইকে সুযোগ করে দিতে বরাবরের মতো দুই অর্ধে প্রায় ভিন্ন দুই একাদশ নামিয়েছিলেন জেমি ডে। প্রথমার্ধের একাদশে ছিলেন আশরাফুল ইসলাম; বিশ্বনাথ ঘোষ, টুটুল হোসেন, ইয়াসিন খান, রহমত মিয়া, জামাল ভূঁইয়া, সোহেল রানা, রাকিবুল ইসলাম, বিপলু, সাদ উদ্দিন ও নাবিব। ১২ মিনিটে বিপলুর মাপা ক্রসে পা ছুঁইয়ে দলকে প্রথম এগিয়ে দেন নাবিব। ১৭ মিনিটে বাংলাদেশ গোলটা হজম করে পেনাল্টি থেকে, বক্সের ভেতর ফাউল করেছিলেন বিশ্বনাথ। তবে বিরতির আগেই বাংলাদেশ আবার লিড নেয়, ২৮ মিনিটে বিপলু গোল করলে। এবার নাবিবের শট গোলরক্ষক ফিরিয়ে দিলে, ফিরতি বলই জালে পাঠিয়েছেন বিপলু। দ্বিতীয়ার্ধে শুধু ইয়াসিনকে রেখে পুরো একাদশটাই বদলে ফেলেন জেমি। পোস্টের নিচে দাঁড়ান আনিসুর রহমান। ব্যাক লাইনে ইয়াসিন, রিয়াদুল হাসান ও রায়হানের সঙ্গে ইব্রাহিম। মাঝমাঠে জামালের জায়গায় মামুনুল। তাঁর সঙ্গী রবিউল হাসান, আরিফুর রহমান। ওপরে মাহবুবুর রহমান, মতিন মিয়া ও তৌহিদুল আলম। ৬৫ মিনিটে অভিজ্ঞ তৌহিদুলই করেছেন তৃতীয় গোলটি। ডান দিক থেকে রায়হানের লং থ্রোতে বক্সের ভেতর বল পেয়ে আলতো টোকায় তা জালে জড়িয়ে দিয়েছেন তৌহিদ।

বিমান দুর্ঘটনা এড়িয়ে গত ৪ নভেম্বর ওমানে পৌঁছে বাংলাদেশ। জেমি দলের সঙ্গে যোগ দেন লন্ডন থেকে। ভারত ম্যাচের পরপরই তিনি দেশে ফিরে গিয়েছিলেন। এর মধ্যে খেলোয়াড়রা ক্লাবে ফিরে যান, অনেকেই ব্যস্ত ছিলেন শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপে। এই খেলোয়াড়দের ওমানে দুই দিন দেখেই প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে নামিয়েছেন তিনি। তাতে এই ম্যাচের অভিজ্ঞতা ও ভুলত্রুটি নিয়ে কাজ করার সুযোগ পাচ্ছেন তিনি আরো প্রায় সপ্তাহখানেক। আগামী ১৪ নভেম্বর মাসকাটের সুলতান কাবুস স্টেডিয়ামে ওমানের বিপক্ষে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ বাছাইয়ের চতুর্থ ম্যাচ। আগের তিন ম্যাচে প্রাপ্তি ১ পয়েন্ট হলেও খেলোয়াড়দের মনোবল ও আত্মবিশ্বাস বেড়েছে বহুগুণ। ঢাকায় এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন কাতারের বিপক্ষে লড়াকু পারফরম্যান্সের পরই ভারতের মাটি থেকে পয়েন্ট নিয়ে ফেরে বাংলাদেশ। সেই ম্যাচে ভারতই বরং হার এড়িয়েছে। ওমানের বিপক্ষে ওমানের মাঠে এখন কঠিন চ্যালেঞ্জ জেমির দলের। ওমান নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচেই ভারত ও আফগানিস্তানকে হারিয়েছে, শেষ ম্যাচে কাতারের কাছে হারে তারা ২-১ গোলে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা