kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সংক্ষিপ্ত

কোহলিরা যেন ‘ফেরারি’

২৩ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কোহলিরা যেন ‘ফেরারি’

দেশের মাটিতে টানা ১১ টেস্ট সিরিজ জয় নিশ্চিত হয়েছিল আগেই। উদযাপনটা হলো দক্ষিণ আফ্রিকাকে হোয়াইটওয়াশ করে। রাঁচিতে ফাফ দু প্লেসিসের দল হেরেছে ইনিংস ও ২০২ রানের বিশাল ব্যবধানে। ভারতের বিপক্ষে এটাই তাদের সবচেয়ে বড় ব্যবধানের হার। ফলোঅনে পরে আগের দিন ৮ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছিল সফরকারীরা। গতকাল দুই ওভারে এক রান যোগ করে অল আউট তারা। প্রোটিয়াদের হোয়াইটওয়াশ করে ভারত পেয়েছে মূল্যবান ৪০ পয়েন্ট। সব মিলিয়ে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুরুর পর ৫ ম্যাচে সর্বোচ্চ ২৪০ পয়েন্ট ভারতের। দুইয়ে থাকা শ্রীলঙ্কা ও নিউজিল্যান্ডের পয়েন্ট মাত্র ৬০। তাই যেকোনো পিচেই খেলা হোক বিরাট কোহলির এই দলটা ফেরারির মতো ছুটছে বলে মনে করেন কোচ রবি শাস্ত্রী, ‘পিচ কোনো ব্যাপার নয়। জোহানেসবার্গ, মেলবোর্ন, মুম্বাই বা অকল্যান্ড—বিশ্বের যে প্রান্তেই খেলা হোক, পিচ নিয়ে আমরা ভাবি না। আমাদের পাঁচ বোলার ২০ উইকেট তোলার ক্ষমতা রাখে। ব্যাটিং তো শক্তিশালীই, একবার চলতে শুরু করলে ফেরারির মতো মসৃণভাবে চলতেই থাকে।’

দেশে টানা ১১ সিরিজ জেতা বিরাট কোহলি এবার চ্যালেঞ্জ নিচ্ছেন বিদেশেও দাপটে খেলার, ‘দলটা খুব বেশি অভিজ্ঞ না হলেও বিশ্বাস রাখি বিশ্বের যেকোনো প্রান্তে জিততে পারব। দলটার জন্য আমি গর্বিত। বিপক্ষের মাঠে যখন খেলেছি লড়াই করেছি তখনও। বিশ্বের সেরা দল হতে হলে বহুমুখী হতেই হবে।’

এবি ডি ভিলিয়ার্স, হাশিম আমলা, ডেল স্টেইনরা অবসর নেওয়ায় এমনিতে শক্তি হারিয়েছে প্রোটিয়ারা। তারপর আবার প্রতিভাবান অনেকে ‘কলপাক’ হয়ে পাড়ি জমিয়েছেন ইংল্যান্ডে। ব্রেক্সিট কার্যকর হলে তাই সুবিধাটা দক্ষিণ আফ্রিকাই পাবে বলে বিশ্বাস ফাফ দু প্লেসিস। এএফপি

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা