kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ষষ্ঠ গোল্ডেন শু জেতার পর

১৮ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ষষ্ঠ গোল্ডেন শু জেতার পর

১৬-১০-২০০৪। এদিনই বার্সেলোনার হয়ে প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে প্রথম মাঠে নামা। তখনকার বার্সা কোচ ফ্রাংক রাইকার্ড এস্পানিওলের বিপক্ষে ৮২ মিনিটে ডেকোর বদলি হিসেবে নামান লিওনেল মেসিকে। বাকিটা ইতিহাস। পাঁচ পাঁচটি ব্যালন ডি’অর জয়ী এই তারকা রেকর্ড ষষ্ঠবার জিতলেন ইউরোপিয়ান গোল্ডেন শু। বার্সায় ১৫ বছর পূর্তির ঠিক আগের দিন পেয়েছেন ট্রফিটা। বর্ণময় এই ক্যারিয়ার স্মরণ করিয়ে দিয়ে তাঁর দীর্ঘদিনের পৃষ্ঠপোষক অ্যাডিডাস দিয়েছে বিশেষ বুট উপহার।

এইবারের বিপক্ষে আগামী শনিবার লা লিগার ম্যাচে বিশেষ সেই বুট পরে খেলতে পারেন মেসি। সাদা, নীল আর সোনালি রঙের মিশেলে তৈরি এটা। অ্যাডিডাসের লোগো আর বুটের নিচের অংশে ব্যবহার করা হয়েছে সোনালি পাত। বাঁ পায়ের বুটে লেখা মেসির জার্সি নম্বর ১০। ডান পায়ের বুটে লেখা ৮২, কারণ এই সময়েই প্রথম নেমেছিলেন মাঠে। লেখা আছে ১৫ বছরের আগের তারিখ ১৬-১০-২০০৪ও। পাঁচটা ডট দিয়ে বোঝানা হয়েছে পাঁচ ব্যালন ডি’অর জয়ের কথা। ভক্তরা এই বুটের একটি রেপ্লিকা কিনতে পারবেন ২২০ ইউরোয়।

১৫ বছরের ক্যারিয়ারে বার্সেলোনার হয়ে ১০টি লা লিগার পাশাপাশি জিতেছেন চারটি চ্যাম্পিয়নস লিগ। তবে সব ফুটবলারের লক্ষ্য চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতা হলেও মেসি বেশি গুরুত্ব দিলেন লা লিগাকে, ‘চ্যাম্পিয়নস লিগ বিশেষ কিছু, সবাই জিততে চাই এটা। তবে আমরা সচেতন যে, লা লিগা সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আপনাকে চ্যাম্পিয়নস লিগ আর কোপা দেল রের কাছে নিয়ে যেতে সাহায্য করতে পারে লা লিগা।

১৫ বছরের ক্যারিয়ারে বার্সেলোনার হয়ে ১০টি লা লিগার পাশাপাশি জিতেছেন চারটি চ্যাম্পিয়নস লিগ। তবে সব ফুটবলারের লক্ষ্য চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতা হলেও মেসি বেশি গুরুত্ব দিলেন লা লিগাকে, ‘চ্যাম্পিয়নস লিগ বিশেষ কিছু, সবাই জিততে চাই এটা। তবে আমরা সচেতন যে, লা লিগা সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আপনাকে চ্যাম্পিয়নস লিগ আর কোপা দেল রের কাছে নিয়ে যেতে সাহায্য করতে পারে লা লিগা। এখানে ভালো না করে চ্যাম্পিয়নস লিগে লড়াই করাটা কঠিন। তাই আমরা সব সময় চ্যাম্পিয়নস লিগ নিয়ে কথা বললেও, লা লিগা আর কোপা দেল রের কথা ভুলে যাই না। কারণ আমরা বার্সেলোনা, আর জিততে চাই সব শিরোপা।’

বয়স ৩২ ছাড়িয়ে গেছে মেসির। চাইলেও ২৫ বছরের তরুণের মতো হওয়ার উপায় নেই। এই সময়ে ইনজুরিতেও পড়ছেন বেশি। তাই নিজেকে অন্যভাবে প্রস্তুত করার কথা জানালেন মেসি, ‘মাঠে নামলে এখনো ২৫ বছরের তরুণের মতো খেলার ইচ্ছা হতে পারে, যা কঠিন। শরীর বাধা দেয়। তাই প্রস্তুতিটা অন্যভাবে নিতেই হয়।’ মেসি বার্সেলোনা ছাড়ার কথা ভাবতেই পারেন না, ‘আমি কখনোই বিশ্বের সেরা ক্লাব বার্সেলোনা ছাড়ার প্রয়োজন মনে করিনি।  ক্লাব আর নিজের লক্ষ্যটা ভালোই জানি আমি।’ মার্কা

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা