kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৯ নভেম্বর ২০১৯। ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

এই রাউন্ডে আরো শক্তিশালী তারা

১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



এই রাউন্ডে আরো শক্তিশালী তারা

ক্রীড়া প্রতিবেদক : প্রথম রাউন্ডে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের অনেকেই খেলেছেন, তবে সবাই নন। দেশে থেকেও গোড়ালির চোটের জন্য যেমন খেলা হয়নি মুস্তাফিজুর রহমানের। তাঁর পাশাপাশি ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (সিপিএল) খেলতে যাওয়া লিটন কুমার দাসও আজ থেকে শুরু হতে যাওয়া জাতীয় ক্রিকেট লিগের (এনসিএল) দ্বিতীয় রাউন্ডে খেলতে নামছেন। নামছেন না শুধু সাকিব আল হাসানই। সিপিএলে বার্বাডোজ ট্রাইডেন্টসের হয়ে শিরোপা জেতার পর গত পরশু গভীর রাতে দেশে ফেরা জাতীয় দলের টেস্ট আর টি-টোয়েন্টি অধিনায়ককে টানা খেলার ধকলমুক্ত রাখতে ভারত সফরের আগে বিশ্রামেই রাখছেন নির্বাচকরা।

সাকিব না থাকলেও মুস্তাফিজ-লিটনের ফেরার রাউন্ডে দলগুলোর শক্তিও বাড়ছে অনেকটাই। প্রথম রাউন্ডে জাতীয় ক্রিকেটাররা থাকলেও বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হয়ে শ্রীলঙ্কা সফরে থাকায় ছিলেন না ঠিক পরের ধাপের ক্রিকেটাররা। এই রাউন্ড থেকে দলগুলো পাচ্ছে তাঁদেরও। কলম্বোয় শেষ ম্যাচে সেঞ্চুরি করে সিরিজ জেতানো সাইফ হাসান ওপেনিংয়ে বাড়াচ্ছেন ঢাকা বিভাগীয় দলের গভীরতা। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে আজ প্রথম স্তরের লড়াইয়ে লিটন আর আরিফুল হককে নিয়ে শক্তি বাড়িয়ে নামছে রংপুরও। খুলনায় প্রথম স্তরের আরেক ম্যাচে স্বাগতিকদের বিপক্ষে নাজমুল হোসেন (শান্ত) এবং সানজামুল ইসলামকেও পাচ্ছে রাজশাহী। মুস্তাফিজের সঙ্গে এই রাউন্ডে খুলনা ‘এ’ দলের হয়ে শ্রীলঙ্কায় আনঅফিশিয়াল টেস্ট সিরিজ খেলে বিশ্রাম পাওয়া মেহেদী হাসান মিরাজকেই শুধু পাচ্ছে না, যোগ হচ্ছেন এনামুল হক (বিজয়) ও মোহাম্মদ মিঠুনও।

ভারত সফরের আগে এটিই এনসিএলে শেষ ম্যাচ তাদের। ২৫ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে জাতীয় দলের অনুশীলন শিবিরও। আর দ্বিতীয় রাউন্ডের পরই নির্বাচকরা ঘোষণা করবেন ভারত সফরের দলও। ৩ নভেম্বর থেকে দিল্লিতে শুরু হবে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। ওই সিরিজের দলে থাকা ১৫ জনের জন্য এনসিএল শেষ হচ্ছে তাই এই রাউন্ডেই।

শ্রীলঙ্কায় ওয়ানডে সিরিজ জেতার ম্যাচে সাইফের সঙ্গে ১২০ রানের ওপেনিং পার্টনারশিপ গড়ার পথে ৬৬ রান করে বিতর্কিতভাবে আউট হওয়া নাঈম শেখ এই রাউন্ড দিয়েই ফিরছেন ঢাকা মেট্রোতে। বগুড়ায় তাদের বিপক্ষে দ্বিতীয় স্তরের ম্যাচে সিলেট পাচ্ছে শ্রীলঙ্কা থেকে ফেরা পেসার আবু জায়েদ চৌধুরী ও অলরাউন্ডার আফিফ হোসেনকে। এই স্তরেরই আরেক ম্যাচে ফতুল্লায় মুখোমুখি হবে বরিশাল-চট্টগ্রামও। তবে এই রাউন্ডে কেউ কেউ আবার খেলছেনও না। টেস্ট ওপেনার সাদমান ইসলাম মায়ের অসুস্থতার জন্য ছুটি নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন নির্বাচক হাবিবুল বাশার। ছুটি চেয়ে পেয়েছেন পেসার এবাদত হোসেনও। শ্রীলঙ্কায় প্রচুর বোলিং করার পর নিজে থেকেই বিশ্রাম চেয়েছিলেন তিনি। অবশ্য দ্বিতীয় রাউন্ডে দলগুলোর শক্তি বাড়লেও তা খর্ব হতেও সময় লাগবে না। কারণ ভারত সফরের আগে এটিই এনসিএলে শেষ ম্যাচ তাদের। ২৫ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে জাতীয় দলের অনুশীলন শিবিরও। আর দ্বিতীয় রাউন্ডের পরই নির্বাচকরা ঘোষণা করবেন ভারত সফরের দলও। ৩ নভেম্বর থেকে দিল্লিতে শুরু হবে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। ওই সিরিজের দলে থাকা ১৫ জনের জন্য এনসিএল শেষ হচ্ছে তাই এই রাউন্ডেই।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা