kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

লাগাম কোহলিদের হাতে

১৩ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



লাগাম কোহলিদের হাতে

রানপাহাড়ে চাপা পড়ল দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রথম দুই দিন পুনের যে উইকেটে ভারত করেছে রান উৎসব, সেখানেই গতকাল মুখ থুবড়ে পড়েছে ফাফ দু প্লেসিসের দল। ভারতের ৬০১ রানের জবাবে তারা অল আউট ২৭৫-এ। বিরাট কোহলিদের লিড ৩২৬ রানের। তাই প্রশ্ন কোহলি কি আজ ফলোঅন করাবেন সফরকারীদের? নাকি পঞ্চম দিনের ঘূর্ণি পিচে ব্যাটিংয়ের ঝুঁকি এড়াতে নিজেরাই নামবেন আরো একবার? মানে ম্যাচের তৃতীয় দিনেই লাগাম ভারতের হাতে।

৬০১ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে দ্বিতীয় দিনেই ধুঁকছিল প্রোটিয়ারা। ৩৬ রানে ৩ উইকেটে শেষ করে দিনের খেলা। গতকাল রবিচন্দ্রন অশ্বিনের ঘূর্ণিতে হাঁসফাঁস করছিল শুরু থেকে। একটা সময় ৫ উইকেটে পরিণত হয়েছিল ৫৩ রানে। সেখান থেকে লড়াই শুরু অধিনায়ক ফাফ দু প্লেসিস ও কুইন্টন ডি ককের। ষষ্ঠ উইকেটে দুজনের জুটি ৭৫ রানের। লাঞ্চের কিছুক্ষণ আগে জুটিটা ভাঙেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। তাঁর ঘূর্ণিতে ৩১ রানে বোল্ড কুইন্টন ডি কক, এ জন্য দায়ী তাঁর বাজে ফুটওয়ার্কও। লাঞ্চের পরপরই সেনুরান মুথুস্বামী ৭ রানে এলবিডাব্লিউ রবীন্দ্র জাদেজার বলে। এরপর অধিনায়ক ফাফ দু প্লেসিস ৬৪ করে আজিঙ্কা রাহানেকে ক্যাচ দেন অশ্বিনের বলে।

১৬২ রানে ৮ উইকেট হারিয়ে তখন ব্যাটিং বিপর্যয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা। ম্যাচ চতুর্থ দিনে গড়াবে নাকি তৃতীয় দিনই ফলোঅনে পড়ে হারবে প্রোটিয়ারা, ধারাভাষ্যে চলছিল এমন আলোচনা। তবে দাঁতে দাঁত চেপে লড়তে থাকেন কেশব মহারাজ ও ভারনান ফিল্যান্ডার। তাঁদের দৃঢ়তাতেই তৃতীয় দিনের শেষ বলে গিয়ে অল আউট সফরকারীরা। ভারতীয় বংশোদ্ভূত মহারাজের টেস্টে সর্বোচ্চ রানের ইনিংস ছিল ৪৫। প্রথম শ্রেণিতে অবশ্য দুই সেঞ্চুরি আর ১০টি ফিফটি আছে। গতকাল ১০ নম্বরে নেমে নিজের সেরা টেস্ট ইনিংসটাই খেললেন মহারাজ। ১৩২ বলে ১২ বাউন্ডারিতে থামেন ৭২ রানে। অশ্বিনের বলে রোহিত শর্মাকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। এর আগে ফিল্যান্ডারের সঙ্গে নবম উইকেটে গড়েছেন ১০৯ রানের জুটি। এই সিরিজে যেকোনো উইকেটে এটা প্রোটিয়াদের তৃতীয় সর্বোচ্চ জুটি।

কেশব মহারাজ আউট হওয়ার কিছুক্ষণ পরই ২৭৫ রানে গুটিয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। শেষ ব্যাটসম্যান কাগিসো রাবাদা ২ রানে এলবিডাব্লিউ অশ্বিনের বলে। বিশাখাপত্তনমে ৮ উইকেট পাওয়া এই স্পিনার পুনেতে ৬৯ রানে নিয়েছেন ৪ উইকেট। ফিল্যান্ডার শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন ১৯২ বলে ৪৪ রানে। ক্রিকইনফো

 

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ভারত : ১৫৬.৩ ওভারে ৬০১/৫ ডি. (কোহলি ২৫৪*, আগরওয়াল ১০৮, জাদেজা ৯১, রাহানে ৫৯, পূজারা ৫৮; রাবাদা ৩/৯৩, কেশব ১/১৯৬)।

দক্ষিণ আফ্রিকা : ১০৫.৪ ওভারে ২৭৫ (কেশব ৭২, দু প্লেসিস ৬৪, ফিল্যান্ডর ৪৪*, ডি ব্রুইন ৩০; অশ্বিন ৪/৬৯, উমেশ ৩/৩৭, সামি ২/৪৪)।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা