kalerkantho

শনিবার । ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৬ রবিউস সানি               

শেখ কামাল কাপে এক গ্রুপে কিংস-আবাহনী

১২ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শেখ কামাল কাপে এক গ্রুপে কিংস-আবাহনী

ক্রীড়া প্রতিবেদক : আগামী ১৯ অক্টোবর থেকে চট্টগ্রামে তৃতীয়বারের মতো হতে যাচ্ছে শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের নতুন দল, নতুন চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংসও প্রথমবারের মতো অংশ নিতে যাচ্ছে এই আসরে। লিগের রানার্স-আপ দল হিসেবে খেলবে আবাহনীও। আবাহনীর অবশ্য টানা তৃতীয় অংশগ্রহণ হবে এবার। কাল ঢাকার লা মেরিডিয়েন হোটেলে হওয়া তৃতীয় এ আসরের ড্রয়ে গ্রুপেই প্রতিপক্ষ হিসেবে পেয়েছে তারা বসুন্ধরা কিংসকে।

এই গ্রুপের অন্য দুই দল ভারতের চেন্নাই সিটি এফসি ও মালয়েশিয়ার তেরেঙ্গানো এফসি। এ গ্রুপে স্বাগতিক চট্টগ্রাম আবাহনী, ভারতের মোহনবাগান, মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস ও লাওসের ইয়াং এলিফ্যান্ট। গত দুই আসরের চ্যাম্পিয়ন চট্টগ্রাম আবাহনী ও টিসি স্পোর্টসকে ড্রয়ের আগেই রাখা হয়েছে এক গ্রুপে। যেমন প্রিমিয়ার লিগের চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স-আপ দুই দল বসুন্ধরা কিংস ও আবাহনীকে রাখা হয় অন্য গ্রুপে। এরপর ড্র হয় অন্য চার দলের মধ্যে। চট্টগ্রামে গত দুইবারই জমজমাট ফুটবল হয়েছে এই টুর্নামেন্টে। প্রথম আসরে ইস্ট বেঙ্গলকে হারিয়ে স্বাগতিক চট্টগ্রাম আবাহনীর শিরোপা জেতা সব প্রত্যাশাকে ছাপিয়ে গিয়েছিল। দ্বিতীয় আসরে ফাইনাল খেলে অবশ্য টিসি স্পোর্টস ও কোরিয়ার পোচেয়ন এফসি। আবাহনী কোনো আসরেই সেমিফাইনালে পা রাখতে পারেনি। এবারও নতুন মৌসুম শুরুর আগে বসুন্ধরা কিংস ও আবাহনী দুই দলের জন্যই এটা হয়ে যাচ্ছে প্রাক-মৌসুম প্রস্তুতির টুর্নামেন্ট। কিংস অন্তত সেভাবেই দেখছে। ঘরোয়া সব শিরোপার আশায় দল গড়া ক্লাবটি আমন্ত্রণমূলক এই টুর্নামেন্টটিকে সেই কাতারে ফেলতে চাইছে না। তার পরও এই আসরেও শিরোপা জেতাই তাদের ভাবনায় বলে জানিয়েছেন ক্লাব সভাপতি ইমরুল হাসান, ‘শেখ কামালের নামে বলেই এই টুর্নামেন্টটা আমরা খেলছি অল্প সময়ের প্রস্তুতিতে। টুর্নামেন্টের ম্যাচগুলোও হবে ঘন ঘন। ফলে স্বাভাবিক পারফরম্যান্স সহজ হবে না দলের জন্য। আমরা মূলত নতুন মৌসুমের প্রস্তুতি হিসেবে নিয়েছি এই আসরটিকে। তার পরও তা শিরোপায় শেষ করতে পারলে নিশ্চয় আমরা সবচেয়ে বেশি খুশি হব।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা