kalerkantho

শনিবার । ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৬ রবিউস সানি               

মুশফিক, আরাফাতের দিনে সুমনও

১২ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



মুশফিক, আরাফাতের দিনে সুমনও

ক্রীড়া প্রতিবেদক : সেই কবে খেলা ছাড়ার পর সংসদ সদস্য হিসেবে দুই মেয়াদ পার করে দিচ্ছেন নাঈমুর রহমান। গত পরশু বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট অধিনায়কের জেরার মুখে পড়লেন এক ক্রিকেটার, ‘তুই আর কত খেলবি? এবার অবসর-টবসর নে।’ যাঁকে বলছিলেন, প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে তাঁর অভিষেকও নাঈমুরের কাছাকাছি সময়েই। ২০০১-০২ মৌসুমে খেলতে শুরু করা সেই আরাফাত সানি ঘরোয়া ক্রিকেটে বেশ কার্যকর বলেই হয়তো এখনো খেলা চালিয়ে যাচ্ছেন। এর প্রমাণও কাল দিলেন আরেকবার।

মিরপুরে কাল জাতীয় ক্রিকেট লিগে (এনসিএল) ৩ উইকেটে ১৪৭ রান নিয়ে ম্যাচের দ্বিতীয় দিন শুরু করা চট্টগ্রামকে ২৯০ রানে গুটিয়ে দেওয়ার পথে ৮৭ রান খরচায় একাই নিয়েছেন ৬ উইকেট। দ্বিতীয় স্তরের ম্যাচে তাসামুল হকের ৯০ রানের ইনিংসে প্রায় তিন শ ছোঁয়ার পর ২ উইকেটে ৬৬ রান তুলে দিন শেষ করেছে ঢাকা মেট্রো। ফতুল্লায় প্রথম স্তরের ম্যাচে ঢাকাকে সাধ্যের মধ্যেই আটকে রাখার পরও অবস্থা সুবিধাজনক নয় বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রাজশাহীর। প্রতিপক্ষের ২৪০ রানের জবাবে তারা ১৭৩ রান তুলতেই হারিয়েছে ৬ উইকেট।

সেঞ্চুরির সম্ভাবনা জাগিয়েও ১১৬ বলে ৭ বাউন্ডারি ও ৩ ছক্কায় ৭৫ রান করে মুশফিকের বিদায়ের পর জহুরুলের (৫৭*) ব্যাটে টিকে আছে রাজশাহীর লিড নেওয়ার আশা।

এর মধ্যে ১১ রানেই তাদের ৩ উইকেট তুলে নেন ঢাকার পেসার সুমন খান। তাঁর প্রথম স্পেলটিও ছিল দেখার মতো : ১২-৬-১২-৩! এমন বোলিংয়ে কোণঠাসা রাজশাহীকে টেনে তোলে ওপেনার জহুরুল ইসলাম ও মুশফিকুর রহিমের ১২১ রানের পার্টনারশিপ। সেঞ্চুরির সম্ভাবনা জাগিয়েও ১১৬ বলে ৭ বাউন্ডারি ও ৩ ছক্কায় ৭৫ রান করে মুশফিকের বিদায়ের পর জহুরুলের (৫৭*) ব্যাটে টিকে আছে রাজশাহীর লিড নেওয়ার আশা। সে পথ অবশ্য সকালেই দেখিয়েছেন ঢাকার তাইবুর পারভেজ। ৭ উইকেটে ১৪৩ রান নিয়ে দিন শুরু করে তারা। ১২ রান নিয়ে শুরু করা তাইবুরের হার না মানা ৮৮ রানের ইনিংসেই আড়াই শর কাছাকাছি যায় ঢাকা।

বৃষ্টিতে আগের দিন টসই না হওয়া দুই ম্যাচ কাল শুরু হলেও হতে পারেনি পুরো দিনের খেলা। এর একটিতে খুলনার বিপক্ষে ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলা রংপুরকে পথ দেখাচ্ছেন তানভীর হায়দার (৪০*) ও সোহরাওয়ার্দী (৩১*)। বরিশালের বিপক্ষে বিপদে আছে সিলেটও।   

সংক্ষিপ্ত স্কোর

(দ্বিতীয় দিনের শেষে)

ঢাকা মেট্রো-চট্টগ্রাম

চট্টগ্রাম ১২২.৫ ওভারে ২৯০ (তাসামুল ৯০, সাদিকুর ৫১, পিনাক ৩২, মাহিদুল ৩০, তামিম ৩০; আরাফাত ৬/৮৭, মাহমুদ উল্লাহ ৩/৫৫)।

ঢাকা মেট্রো ২৪ ওভারে ৬৬/২ (শামসুর ২৬*, মার্শাল ২১*)।

ঢাকা-রাজশাহী

ঢাকা ৭৬.১ ওভারে ২৪০ (তাইবুর ৮৮*, রনি ৬৩, জয়রাজ ৩৫; তাইজুল ৪/৯২, শফিউল ৩/৪৩, ফরহাদ ২/৩৫)।

রাজশাহী ৬৬ ওভারে ১৭৩/৬ (মুশফিক ৭৫, জহুরুল ৫৭*; সুমন ৩/৪০)।

খুলনা-রংপুর

রংপুর ৭২ ওভারে ১৬৯/৫ (নাঈম ৪৮, তানভীর ৪০*, সোহরাওয়ার্দী ৩১*; আল-আমিন ২/৪৪, রাজ্জাক ২/৫১)।

সিলেট-বরিশাল

সিলেট ৩১ ওভারে ৬৮/৩ (জাকির ৩২*; কামরুল ২/১৩)।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা