kalerkantho

মঙ্গলবার । ১২ নভেম্বর ২০১৯। ২৭ কার্তিক ১৪২৬। ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

মুখোমুখি প্রতিদিন

দেশের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি করার স্বপ্ন ছিল

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি করার স্বপ্ন ছিল

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে আগের টেস্টে আউট হন ৯৮ রানে। আফগানিস্তানের জার্সিতে প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরিয়ান না হলে সে আক্ষেপ তাঁকে পোড়াত আজীবন। রহমত শাহ সেটি হতে দেননি। বাংলাদেশের বিপক্ষে কাল স্পর্শ করেন জাদুকরী তিন অঙ্ক। তাঁর তো বটেই, দেশটির ক্রিকেট ইতিহাসেরই প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি তা। দিন শেষে গণমাধ্যমের মুখোমুখিতে তাই এই ব্যাটসম্যানের কণ্ঠে প্রত্যাশিত উচ্ছ্বাস

প্রশ্ন : আফগানিস্তানের হয়ে প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি করার অনুভূতি কেমন?

রহমত শাহ : দেশের হয়ে প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি করার স্বপ্ন ছিল আমার। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে আগের টেস্টে তাই যখন ৯৮ রানে আউট হই, তখন হতাশ হয়েছিলাম খুব। আজ সুযোগ পেলাম, সেঞ্চুরি করলাম। এটি আমার জন্য খুব গর্বের মুহূর্ত। আফগানিস্তানের হয়ে টেস্টের প্রথম হাফসেঞ্চুরিয়ান আমি; এখন প্রথম সেঞ্চুরিও হলো আমার।

প্রশ্ন : চট্টগ্রাম টেস্টের উইকেট কেমন দেখছেন?

রহমত : উইকেট ব্যাটিংয়ের জন্য ভালো। ব্যাটসম্যানরা থিতু হয়ে গেলে ব্যাটিং করাটা সহজ হয়ে যায়।

প্রশ্ন : বাংলাদেশের স্পিনারদের এমনভাবে খেললেন যেন তাঁরা সাধারণ মানের স্পিনার!

রহমত : তাঁরা মোটেই সাধারণ মানের স্পিনার নয়। বাংলাদেশের স্পিন আক্রমণ খুব ভালো, বিশেষত সাকিব আল হাসান থাকার কারণে। আর টেস্টে তাইজুল ইসলাম, মেহেদী হাসানদের রেকর্ডও খুব ভালো। ওদের পেস বোলারদের কথাও আমাদের মাথায় ছিল; কিন্তু বাংলাদেশ বোলিং আক্রমণ সাজিয়েছে স্পিনারদের দিয়ে।

প্রশ্ন : টেস্ট ক্রিকেটে আপনি মানিয়ে নিচ্ছেন কিভাবে?

রহমত : আমরা সীমিত ওভারের ক্রিকেটে অনেক আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলি ঠিক। পাশাপাশি চার দিনের ম্যাচের টুর্নামেন্ট ইন্টারকন্টিনেন্টাল কাপও খেলি। সে টুর্নামেন্টের শিরোপা দুইবার জিতেছি এবং সেখানে খেলেই দীর্ঘ পরিসরের ক্রিকেট সম্পর্কে শিখেছি অনেক কিছু। চার দিন আর পাঁচ দিনের ক্রিকেটে তো খুব বেশি পার্থক্য নেই।

প্রশ্ন : টেস্টের সামনের দিনগুলোতে উইকেটের আচরণ কেমন হতে পারে?

রহমত : টস জিতলে ব্যাটিং করার কৌশল ছিল আমাদের। কেননা যত সময় গড়াবে, উইকেট তত ভাঙবে। আজ আমি ব্যাটিং উপভোগ করেছি। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ইনিংসটিও ভালো ছিল। তবে আজ আমি করেছি সেঞ্চুরি। আর টেস্টের তো এখনো চার দিন বাকি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা