kalerkantho

শুক্রবার । ২২ নভেম্বর ২০১৯। ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ক্লিয়ার মেন বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৭ ফুটবল

এবার ম্যানচেস্টার সিটির হাতছানি

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



এবার ম্যানচেস্টার সিটির হাতছানি

ক্রীড়া প্রতিবেদক : রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার এক প্রত্যন্ত গ্রাম সোনাদীঘি। সোনাদিঘী হাই স্কুলের যোগেন, প্রবীথরা পড়ালেখার পাশাপাশি বাবার কৃষিকাজে সাহায্য করা ছাড়াও আরেকটি জিনিস নিয়ে মেতে থাকে। তা হলো ফুটবল। গত বছর ইউনিলিভার বাংলাদেশের উদ্যোগে ক্লিয়ার মেন বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৭ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের খবর পত্রিকায় জেনে যোগেন, প্রবীথরা নতুন উদ্যমে মাতে খেলাটি নিয়ে। স্কুল মাঠেই চলে কঠোর অনুশীলন। ২০১৮ সালের মার্চে শুরু হয় এই টুর্নামেন্ট, সারা দেশের বিভাগীয় পর্যায় হয়ে ঢাকায় চূড়ান্ত পর্বের নক আউট ম্যাচগুলো পেরিয়ে ১২ মে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে যখন শিরোপার লড়াই মাঠে গড়ায়, দেখা যায় সোনাদীঘি হাই স্কুলের সেই যোগেনরাই লড়ছে বিএএফ শাহীন স্কুলের বিপক্ষে।

সোনাদীঘি ফাইনালেও হারেনি। জাতীয় চ্যাম্পিয়নের মুকুট পরেই এই ফুটবলাররা আবার গ্রামে ফিরে যায়। প্রবীথ টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় আর যোগেন সর্বোচ্চ গোলদাতা। কিছুদিন আগে বাংলাদেশ থেকে যে চারজন ফুটবলার ব্রাজিল ঘুরে এলো, যোগেন তাদেরই একজন। আগামী ১২ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া অনূর্ধ্ব-১৮ ফুটবল টুর্নামেন্টে আবাহনীর জার্সি গায়ে উঠছে তার, প্রবীথ গেছে সাইফ স্পোর্টিংয়ে। অনেকটা স্বপ্নের পথচলা এই তরুণ ফুটবলারদের ক্লিয়ার মেন অনূর্ধ্ব-১৭ ফুটবলের সরণি বেয়ে। সেই টুর্নামেন্ট আবারও মাঠে গড়াতে যাচ্ছে, এবার নতুন প্রতিশ্রুতি দিয়ে। এবারের আসরের সেরা ছয় ফুটবলার যাবে ম্যানচেস্টার সিটি ক্লাব ঘুরে দেখতে। সেখানে একাডেমির ফুটবলারদের সঙ্গে অনুশীলনে অংশ নেবে তারা, দেখবে প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচ। গত আসরের সফলতায় এবার ইউনিলিভারের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে ‘টেকনো’। ম্যানচেস্টার সিটি সফরের প্রজেক্ট তাদেরই। আরো যুক্ত হয়েছে এবার তৈরি পোশাকের ব্র্যান্ড ‘সেইলর’। পুরো টুর্নামেন্টের জার্সি স্পন্সর করেছে তারাই। কাল ঢাকার হোটেল লা মেরিডিয়ানে নতুন টুর্নামেন্টের এসব খবর জানানোর পাশাপাশি আসরের ট্রফিও উন্মোচন হয়েছে। ছিলেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন, ইউনিলিভারের মার্কেটিং ডিরেক্টর নাফিস আনোয়ার, টেকনোর পক্ষ থেকে রেজোয়ানুল হক।

১৫ সেপ্টেম্বর থেকেই শুরু হয়ে যাচ্ছে বিভাগীয় পর্যায়ের খেলা। আট বিভাগের সেরা দুই দল নিয়ে ঢাকায় ২২ অক্টোবর থেকে বসবে ১৬ দলের চূড়ান্ত পর্ব। ক্লিয়ারের ফেসবুক পেজে প্রতিটি খেলা সম্প্রচার করা হবে। গতবার সারা দেশ থেকে অংশ নিয়েছিল ২৭০টির বেশি স্কুল, এবারও সংখ্যাটা তেমনই হওয়ার কথা। টুর্নামেন্ট শেষে সেরা ৩৫ খেলোয়াড় নিয়ে হবে বুট ক্যাম্প, সেখান থেকেই বাছাই করা হবে সেরা গোলরক্ষক, সেরা ডিফেন্ডার, সেরা মিডফিল্ডার, সেরা দুই উইঙ্গার ও সেরা স্ট্রাইকার। তারা যাবে ইংল্যান্ডে। ক্লিয়ামের মার্কেটিং ম্যানেজার মিনহাজের আশা, এবারও টুর্নামেন্টটি সাফল্যের মুখ দেখবে, ‘ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো আমাদের গ্লোবাল ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর। ফুটবলের সঙ্গে আমাদের সম্পৃক্ততাটা তাই একটু বেশিই। এই টুর্নামেন্ট আমাদের দেশের ফুটবলে সামান্যতম অবদান রাখতে পারলে আমরা নিজেদের সফল মনে করব।’ কাজী সালাউদ্দিন সফলতা কামনা করেছেন এবারের আসরের, ‘ইউনিলিভারের মতো প্রতিষ্ঠান ফুটবল নিয়ে কাজ করতে চেয়েছে জেনেই আমি খুশি হয়েছিলাম। গতবারের মতো এবারও আমরা বাফুফে থেকে সব ধরনের সহযোগিতা দেব টুর্নামেন্টটি সফল করার জন্য।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা