kalerkantho

শুক্রবার । ২২ নভেম্বর ২০১৯। ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ধোনিকে ছাড়িয়ে কোহলি

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ধোনিকে ছাড়িয়ে কোহলি

অনুমান করে নেওয়া ফলটা বদল করতে হলে কয়েকজন ‘বেন স্টোকস’ দরকার ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের। হেডিংলিতে কিছুদিন আগে স্টোকস যেমন অসম্ভবকে সম্ভব করেছেন, ভারতের বিপক্ষে চতুর্থ ইনিংসে ৪৬৮ রান তাড়া করতে দুই প্রান্তে দুজন স্টোকস এবং ব্রায়ান লারা, দুজনকেই দরকার ছিল জেসন হোল্ডারের! কিন্তু আফসোস, তাঁর হাতে আছে রাহকিম কর্নওয়াল, জাহমার হ্যামিলটনদের মতো ক্রিকেটার! যাঁদের কেউ ওজনে, কেউ অদ্ভুত নামে নজর কেড়েছেন। কিন্তু ক্রিকেটীয় সামর্থ্যে মেরুন টুপিটা মাথায় পরা পূর্বসূরিদের চেয়ে যোজন যোজন পেছনে। তাই হার ঠেকাতে পারেনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ। জ্যামাইকায় ২৫৭ রানের বিশাল ব্যবধানে জিতেছে ভারত। তাতে টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে জয় সংখ্যায় মহেন্দ্র সিং ধোনিকে ছাপিয়ে গেছেন বিরাট কোহলি। ধোনির রেকর্ড ছিল ৬০ টেস্টে ২৭ জয়, কোহলি ৪৮ টেস্টেই পেয়ে গেছেন ২৮তম জয়ের দেখা।

চতুর্থ দিনে খুব বেশি নাটকীয়তার অবকাশও ছিল না। জিততে হলে ক্যারিবীয়দের করতে হতো ৪৬৮ রান। সেটা করতে গিয়ে ১৩ ওভারে ৪৫ রানে ২ উইকেট হারিয়ে তৃতীয় দিন শেষ করা ওয়েস্ট ইন্ডিজ চতুর্থ দিনে অল আউট হয় ২১০ রানে। সর্বোচ্চ ৫০ রান শামরাহ ব্রুকসের। ৩ উইকেট করে নিয়েছেন রবীন্দ্র জাদেজা ও মোহাম্মদ সামি, জোড়া শিকার ইশান্ত শর্মার। দুই টেস্টের সিরিজ ২-০ ব্যবধানে জিতে আইসিসির টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পয়েন্ট টেবিলে ১২০ পয়েন্ট ভারতের নামের পাশে, জয়ের সংখ্যায় কোহলি ছাড়িয়ে গেলেন ধোনিকে। এ নিয়ে জানালেন, “নামের পাশে অধিনায়ক লেখাটা একটা শব্দ মাত্র। আমরা যদি এই বোলারদের না পেতাম, তাহলে এই সাফল্য আসত না। মাঠে সামি, বুমরাহ, ইশান্তদের ছুটতে দেখলেই বোঝা যায় তারা জেতার জন্য কতটা মরিয়া। নামের পাশে ‘সি’ লেখাটা স্রেফ একটা অক্ষর, দলগত সামর্থ্যই আমাদের এই সাফল্য এনে দিয়েছে।” অন্যদিকে ক্যারিবীয় অধিনায়ক হোল্ডার উত্তর খুঁজে বেড়াচ্ছেন মাঠে জন্ম নেওয়া নানা প্রশ্নের, ‘এই ভঙ্গুর ব্যাটিং কিভাবে ঠিক করব, জানা নেই। এটা ব্যক্তিগত পর্যায়ের ব্যাপার। পরের টেস্টটা খেলার আগে অনেকটা সময় আছে, তাই খেলোয়াড়দেরই দায়িত্ব নিতে হবে। ব্যাটসম্যানরা যদি পরিশ্রম করত, তাহলে এখানে রান করতে পারত।’ ক্রিকইনফো

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা