kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

নাটক শেষে পিএসজিতেই থাকছেন নেইমার

২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফরাসি দৈনিক লেকিপের প্রথম পৃষ্ঠাজুড়ে নেইমারের ছবি। গায়ে প্যারিস সেন্ত জার্মেইর জার্সি, মুখে বিষণ্নতা। বড় হরফে লেখা শিরোনাম, ‘সে কেদা’। স্প্যানিশ এ শব্দযুগলের অর্থ, ‘তিনি থাকছেন’। ইচ্ছার বিরুদ্ধে নেইমারের পিএসজিতে থেকে যাওয়ার ঘোষণা এভাবেই দিয়েছে পত্রিকাটি।

বছর দুয়েক আগে বার্সেলোনা থেকে প্যারিসের ক্লাবে গিয়েছিলেন এই ব্রাজিলিয়ান। ২২২ মিলিয়ন ইউরোর দলবদলের নতুন বিশ্বরেকর্ডে। সেই নেইমার কিনা এবার পিএসজি ছাড়ার জন্য রীতিমতো ‘যুদ্ধ’ ঘোষণা করেন! পুরনো ক্লাব বার্সেলোনাতে ফেরার জন্য হয়ে ওঠেন মরিয়া। কিন্তু ইউরোপিয়ান দলবদলের গ্রীষ্মকালীন যে জানালা আজ বন্ধ হয়ে যাচ্ছে, তার ফাঁক গলে নেইমারের পিএসজি থেকে বার্সায় যাওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই আর। ‘আলোচনায় নেইমারের পক্ষ মেনে নিয়েছে যে, দলবদলের সম্ভাবনা শেষ। এ মৌসুমে তাই পিএসজিতেই থাকতে হচ্ছে’—লিখেছে লেকিপ।

নেইমার দল ছাড়তে চান, বার্সেলোনা তাঁকে পেতে চায়, পিএসজিও পথে বাধা হয়ে দাঁড়াতে চায় না—এ পর্যন্ত ঠিক আছে। কিন্তু দলবদলের অর্থের অঙ্কে দুই ক্লাবকে মতৈক্যে তো পৌঁছতে হবে! পিএসজি যে অর্থ দিয়ে কিনেছে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডকে, এর কমে নাকি ছাড়তে নারাজ। অত টাকা দেওয়ার সামর্থ্য আবার এ মুহূর্তে বার্সার নেই। খেলোয়াড় অদলবদলে সমাধান হতে পারত। কিন্তু ফিলিপে কুতিনহো ধারে চলে গেছেন বায়ার্ন মিউনিখে; ওসমান দেম্বেলে পিএসজিতে যেতে নারাজ। দিন দুয়েক আগে বার্সা প্রেসিডেন্ট হোসেপ মারিয়া বার্তোমেউ এবং পিএসজি প্রেসিডেন্ট নাসের আল খেলাইফির সভায় তাই কোনো মধ্যস্থতা হয়নি।

বার্সায় স্বপ্নের প্রত্যাবর্তন তাই হচ্ছে না নেইমারের। পিএসজিতে খেলতে হবে অন্তত এ মৌসুমটা। সে জন্য যে তিনি প্রস্তুত, এরই মধ্যে তা জানিয়ে দিয়েছেন ক্লাবকে। নতুন মৌসুমে এখনো পিএসজির জার্সিতে মাঠে নামানো হয়নি তাঁকে। কোচ টমাস ট্যুশেল এখন বিবেচনায় নিতে পারেন এই ব্রাজিলিয়ানকে। ক্লাবেই যখন থাকবেন, তখন নিশ্চয়ই নেইমারের সামর্থ্যের ফুটবলারকে গ্যালারিতে দর্শক বানিয়ে রাখবে না পিএসজি। এএফপি

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা