kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অক্টোবর ২০১৯। ৩০ আশ্বিন ১৪২৬। ১৫ সফর ১৪৪১       

সংক্ষিপ্ত

এগিয়ে কিউইরা

২৬ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



টম লাথাম শতকটাকে রূপান্তরিত করেছেন দেড় শতকে। বিজে ওয়াটলিং ও কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমও শতকের দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে। কলম্বোর পি সারা ওভালে কাল সারা দিনে খেলা হয়েছে ৬২ ওভার। তাতে শ্রীলঙ্কার প্রাপ্তি ১ উইকেট। নিউজিল্যান্ডের প্রাপ্তি ১৮৬ রান। বৃষ্টির কারণে চতুর্থ দিনেও খেলা শুরু হতে হয়েছে দেরি। প্রথম সেশনটা পুরোই ভেসে গেছে বৃষ্টিতে। এরপর ভেজা আউটফিল্ডের কারণে খেলা শুরু হতে আরো দেরি। স্থানীয় সময় দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে শুরু হয় খেলা, পরের অংশটুকু শ্রীলঙ্কার হতাশার। দিনের প্রথম বলেই বাউন্ডারি দিয়ে শুরু করেন লাথাম। তাতেই স্পষ্ট ইঙ্গিত বাকি সময়টার। দুঃসংবাদের এখানেই শেষ নয়। ফিল্ডিং করতে গিয়ে উরুর পেশিতে চোট পেয়েছেন অধিনায়ক দিমুথ করুণারত্নে। তিনি ফিল্ডিং করতে অপারগ হয়ে চলে যান মাঠের বাইরে। নিয়মিত উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান করুণারত্নেকে তাই ব্যাট করতে হবে সাত নম্বরে বা তার পরে।

১৫৪ রানে দিলরুয়ান পেরেরার বলে এলবিডাব্লিউ হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন লাথাম। নিজের দশম টেস্ট শতক পাওয়া লাথাম যাওয়ার আগে বিজে ওয়াটলিংয়ের সঙ্গে পঞ্চম উইকেটে জুড়েছেন ১৪৩ রান। ওয়ানডেতে লাথামই উইকেটের পেছনে দাঁড়ান, টেস্টে সেই জায়গাটা ওয়াটলিংয়ের জন্য। দুই উইকেটরক্ষক মিলে উইকেটের সামনেই দারুণ জুটি গড়ে কিউইদের এনে দিয়েছেন বড় লিড। লাথামের বিদায়ের পর আসা কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম খেলেছেন টি-টোয়েন্টি ধাঁচে! ৭৫ বলে ৫ ছক্কা আর ৫ চারে ৮৩ রানে অপরাজিত গ্র্যান্ডহোম, ধৈর্যের প্রতিমূর্তি হয়ে খেলা ওয়াটলিং ২০১ বল খেলে ৮১ রানে অপরাজিত। ১১০ ওভার শেষে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ৩৮২ রান। লিড ১৩৮ রানের। ক্রিকইনফো

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা