kalerkantho

রবিবার । ২০ অক্টোবর ২০১৯। ৪ কাতির্ক ১৪২৬। ২০ সফর ১৪৪১                

করুনারত্নের সেঞ্চুরিতে শ্রীলঙ্কার ৬০ পয়েন্ট

১৯ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করুনারত্নের সেঞ্চুরিতে শ্রীলঙ্কার ৬০ পয়েন্ট

গলে সব সময়ই স্পিনারদের দাপট। ৯৯ রানের বেশি তাড়া করে এখানে টেস্ট জেতেনি কেউ। নিউজিল্যান্ডের দেওয়া ২৬৮ রানের লক্ষ্যটা তাই ছিল পাহাড়সমান। সেটাই শ্রীলঙ্কা হেলায় পেরিয়ে গেল দিমুথ করুনারত্নের সেঞ্চুরিতে। অধিনায়কের ১২২ রানের ইনিংসে গতকাল লাঞ্চের আগেই ৬ উইকেটের ঐতিহাসিক জয় স্বাগতিকদের। নতুন চালু হওয়া টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে জয়ের জন্য প্রথম দল হিসেবে পুরো ৬০ পয়েন্টও পেয়েছে তারা।

লাহিরু থিরিমানের সঙ্গে করুনারত্নের ১৬১ রানের উদ্বোধনী জুটিতেই আসলে গড়ে ওঠে জয়ের ভিত। দুই দলের টেস্ট সিরিজে যৌথ সর্বোচ্চ উদ্বোধনী জুটির কীর্তি এটা। কিউই ফিল্ডারদের অবদানও কম নয় তাতে। ৫৮ রানে থাকা করুনারত্নের ক্যাচ শর্ট লেগে ফেলেছিলেন টম লাথাম। একই স্কোরে লঙ্কান অধিনায়ক বেঁচে যান স্টাম্পিং থেকেও। জীবন দুটি কাজে লাগিয়েছেন টেস্টে নবম সেঞ্চুরি করে। চতুর্থ লঙ্কান ব্যাটসম্যান হিসেবে চতুর্থ ইনিংসে সেঞ্চুরি করে টেস্ট জেতালেন তিনি। ম্যাচ সেরার পুরস্কার নিয়ে করুনারত্নের সন্তুষ্টি, ‘এক বছর আর ১১ ম্যাচ আগে সেঞ্চুরি করেছিলাম। এত দিন পর তিন অঙ্কের ইনিংস খেলে খুশি আমি। কঠিন লক্ষ্য তাড়া করে জিততে পারায় খুশি আরো বেশি।’

এ ছাড়া লাহিরু থিরিমানে ৬৪, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস ২৮* ও কুশল পেরেরা করেন ২৩ রান। ট্রেন্ট বোল্ট, টিম সাউদি, অ্যাজাজ প্যাটেল ও উইলিয়াম সোমরভিলের শিকার একটি করে উইকেট। গলের চতুর্থ ও পঞ্চম দিন সাধারণত স্পিনাররা ছড়ি ঘোরালেও এবার তেমন টার্ন না পাওয়ায় হতাশ কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন, ‘ভেবেছিলাম স্পিনাররা ভালো কিছু করবে। কিন্তু উইকেটে ব্যাট করাটা সহজ হয় পড়ে। এত বেশি রান করেও জিততে না পারাটা হতাশার।’ এএফপি

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা