kalerkantho

শুক্রবার । ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৮ রবিউস সানি ১৪৪১     

সাকিবের কারণেই এত কিছু!

৫ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



সাকিবের কারণেই এত কিছু!

ক্রীড়া প্রতিবেদক : নতুন চক্রে নতুন করে চুক্তি হবে। সেটি না হওয়া পর্যন্ত সাকিব আল হাসানের সঙ্গে রংপুর রাইডার্সের চুক্তি বৈধ নয় বলে দাবি করেছে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। তবে বিপিএলের পঞ্চম আসরের চ্যাম্পিয়নদের পক্ষ থেকে সেই দাবি উড়িয়ে দিয়ে বলা হয়েছে ভিন্ন কথা। তাঁদের পাল্টা দাবি, গভর্নিং কাউন্সিলের ই-মেইল পেয়েই আগামী ৬ ডিসেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া সপ্তম আসরের জন্য আট ঘাট বেঁধে প্রস্তুতিতে নেমে পড়েছিলেন তাঁরা।

রংপুর রাইডার্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইশতিয়াক সাদেক কাল গভর্নিং কাউন্সিলের সংবাদ সম্মেলনের পরপরই বলেছেন, ‘ওনারা ৩.১ ধারার কথা বলছেন তো? আমাদের কাছে গত মে এবং জুন মাসেও বিসিবি থেকে ই-মেইল এসেছে। মৌখিকভাবেও সব সময়ই বলা হয়েছে যে যাদের কোনো বকেয়া নেই এবং যারা থাকতে আগ্রহী, তাদেরই অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। এই হিসাবেও আমাদের চুক্তি নবায়ন না হওয়ার কোনো কারণই নেই।’ ই-মেইলে গভর্নিং কাউন্সিলের কাছ থেকে সপ্তম আসরের জন্য পরিষ্কার দিকনির্দেশনা পাওয়ার কথাও বলতে ভোলেননি তিনি, ‘ই-মেইল করে আমাদের সপ্তম আসরের জন্য প্রস্তুতি নিতেও বলা হয়েছিল। এমনকি যে ব্যাংক গ্যারান্টি রাখা হয়, সেটিও আমাদের ই-মেইল করে দিতে বলা হয়েছিল। অন্য যা যা করণীয়, করতে বলা হয়েছিল সেসবও। গভর্নিং কাউন্সিলের কাছ থেকে এ ধরনের নির্দেশনা পাওয়ার পর নতুন চক্রেও আমাদের ফ্র্যাঞ্চাইজি থাকা নিয়ে কোনো অনিশ্চয়তাই ছিল না। তাই আমরা জোর প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছিলাম।’

সংবাদ সম্মেলন করে গভর্নিং কাউন্সিলের বক্তব্যকে সেই প্রস্তুতিতে ‘ব্যাঘাত’ ঘটানোর চেষ্টা হিসেবেই দেখছে রংপুর শিবির। ইশতিয়াকের বক্তব্যে ফুটে উঠেছে সেই ক্ষোভই, ‘সবাই জানে যে তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহিমের মতো আইকন খেলোয়াড়রাও এবার দল বদলাচ্ছে। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের চেয়ারপারসনও আনুষ্ঠানিকভাবে মুশফিকের তাঁর দলে যোগ দেওয়ার কথা বলেছেন। কিন্তু সাকিব যেই না রংপুরে এলো, তখনই বিসিবি নতুন নিয়মের কথা বলতে শুরু করেছে।’ যদিও ‘আইকন’ বা ‘এ প্লাস’ ক্যাটাগরির ক্রিকেটারদের ক্ষেত্রে আগের নিয়মই বহাল থাকবে বলে গভর্নিং কাউন্সিল থেকে জানানো হয়েছিল ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোকে। ইশতিয়াক বলছিলেন সে কথাই, ‘নিয়মের চিঠি কিন্তু আমাদের কাছেও আছে। সেখানে লেখা রয়েছে আইকন খেলোয়াড় স্বাধীনভাবে দল বদলাতে পারবে। এবং আমাদের মৌখিকভাবেও বলা হয়েছিল যে পরের তিন বছরও একই নিয়ম থাকবে। সেই নিয়ম মেনেই আমরা সাকিবকে দলে নিয়েছি।’ সেই সঙ্গে তিনি আরো যোগ করেছেন, ‘প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিতে বলে যখন আমাদের কাছে ই-মেইল এসেছে, এর চেয়ে বড় নিশ্চয়তা আর কী হতে পারে? আমাদের তো এখন চুক্তিপত্রে সই করার আনুষ্ঠানিকতাই শুধু বাকি।’ এমন সময়ে গভর্নিং কাউন্সিলের নতুন নিয়ম নিয়ে উঠে-পড়ে লাগায় ঢাকা ডায়নামাইটসের যোগও দেখছেন তিনি। সরাসরিই যে অভিযোগ তুলেছেন ইশতিয়াক সাদেক, ‘ঢাকা ডায়নামাইটসের সুবিধার জন্যই প্রতিবছর নিয়ম বদলানো হয়। এবারও সে রকম কিছুরই চেষ্টা চলছে।’ তবে এবারও সে রকম কিছু হলে রংপুর রাইডার্স বিপিএলের সঙ্গে আর থাকবে না বলেও সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তিনি, ‘এবার নতুন নিয়ম করা হলে রংপুর রাইডার্স বিপিএলে অংশ নেবে না।’

ওদিকে বিসিবি থেকে অবশ্য গতকালের সংবাদ সম্মেলনে আসন্ন আসরে আরো দুটি ফ্র্যাঞ্চাইজি যুক্ত করার হাঁক দেওয়া হয়েছে। যদিও ভিন্ন ভিন্ন মৌসুমে বিশৃঙ্খলা কিংবা দেনা-পাওনা মেটাতে ব্যর্থ হওয়ার দায়ে ফ্র্যাঞ্চাইজি বাতিল করেছে বিসিবি। আবার ক্ষেত্রবিশেষে ফ্র্যাঞ্চাইজিও ছেড়ে গেছে বিপিএল। এবারের আসরে যেমন মালিকানা বদল হচ্ছে চিটাগং ভাইকিংসের। এরপর রংপুর রাইডার্সও সরে দাঁড়ালে বিপিএল ব্যবস্থাপনা প্রশ্নবিদ্ধ হবে নতুন করে। অবশ্য সূচনালগ্ন থেকেই অনাস্থার হাত ধরেই হেঁটে চলেছে বিপিএল।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা