kalerkantho

সোমবার । ২১ অক্টোবর ২০১৯। ৫ কাতির্ক ১৪২৬। ২১ সফর ১৪৪১                       

ওডি কাপ টটেনহামের

রিয়ালের দুঃসময়ে আশার আলো

২ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



রিয়ালের দুঃসময়ে আশার আলো

নানা ঘটনাচক্রে জিনেদিন জিদান কোচ হয়ে ফিরেছেন রিয়াল মাদ্রিদে। এমন একটা সময়ে তিনি ফিরেছিলেন, যেখান থেকে লিগ শিরোপা জেতার কোনো সম্ভাবনাই ছিল না। রিয়াল কর্তৃপক্ষও একরকম হাল ছেড়ে দিয়েই তাকিয়ে ছিল আসছে মৌসুমের দিকে, যেটা এসেই পড়েছে বলা যায়। কিন্তু রিয়ালের দুঃসময় যে কাটছেই না! প্রাক-মৌসুম প্রস্তুতি পর্বেই রিয়ালের দুর্দশা ফুটে উঠেছে। এই মাসের ১৭ তারিখেই সেল্তা ভিগোর বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হচ্ছে রিয়ালের লা লিগা অভিযান। কিন্তু তার আগে রিয়ালকে তো দেখাচ্ছে সেই গত মৌসুমের হতশ্রী রিয়ালের মতোই। সেই দুর্দশার কিছুটা ঘুচল ফেনারবাচের বিপক্ষে ৫-৩ গোলের জয়ে। করিম বেনজিমার হ্যাটট্রিকে তুর্কি প্রতিপক্ষকে ৫-৩ গোলে হারিয়েছে রিয়াল।  জেতার পরও প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে, কারণ পাঁচটি প্রীতি ম্যাচে যে এই নিয়ে ১৬ গোল হজম করল মাদ্রিদিস্তারা!

তারকাখচিত রিয়াল মাদ্রিদের হতশ্রী দশার শুরু ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো ক্লাব ছাড়ার পর থেকেই। গোল করার মানুষ ছিল না রিয়ালে, এখন দেখা যাচ্ছে গোল ঠেকাবার মানুষেরও অভাব! জিদানকে তাই বলতে শোনা যাচ্ছে, ‘আমাদের এর একটা উপায় খুঁজে বের করতেই হবে। আমাদের পরিশ্রম বাড়াতে হবে। আমি খেলোয়াড়দের পাশে দাঁড়াচ্ছি, আমি জানি আমরা এগিয়ে যাবই।’ গোল হজম করা নিয়ে জিদান বলেছেন, ‘কেউই তিন গোল হজম করতে চায় না, তবে উল্টোদিকে আমরাও কিন্তু পাঁচ গোল দিয়েছি। সেটা ইতিবাচক।’

মার্কিন মুলুক সফরে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের কাছে ৭-৩ গোলে হেরে আসার পরই রিয়াল গিয়েছিল জার্মানি, অডি কাপে অংশ নিতে। এই আসরেই প্রথম ম্যাচে টটেনহাম হটস্পারের কাছে হেরে ফাইনালে উঠতে ব্যর্থ হয় রিয়াল। তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচেই তারা জিতেছে ফেনারবাচের বিপক্ষে। ফাইনালে টটেনহাম টাইব্রেকারে ৬-৫ গোলে হারিয়েছে বায়ার্ন মিউনিখকে। নির্ধারিত সময়ে খেলা শেষ হয় ২-২ সমতায়। এরিক লামেলা ও ক্রিস্টিয়ান এরিকসনের গোলে একটা সময় ২-০তে এগিয়ে থাকা স্পারদের ধরে ফেলে বাভারিয়ানরা। ৬১ মিনিটে আর্প আর ৮১ মিনিটে ডেভিসের গোলে। টাইব্রেকারে আবার এরিকসন মিস করেন স্পটকিক। শেষ শটে বায়ার্নের জেরোম বোয়াটেং মিস করলে ৬-৫ ব্যবধানে শিরোপা জিতে নেয় টটেনহাম। জেনেভায় প্রস্তুতি ম্যাচে লিওঁকে ৩-১ গোলে হারিয়ে প্রাক-মৌসুম প্রস্তুতি শেষ করল ইউরোপের চ্যাম্পিয়ন ও ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের রানার্স-আপ লিভারপুল। ম্যাচে ২৭ জন ফুটবলারকে খেলিয়েছেন ইয়ুর্গেন ক্লপ। আধাঘণ্টা পর বদলেছেন দুজনকে, হাফটাইমে আরো তিনজন আর এক ঘণ্টা পর পুরো ১১ জনকে বদলে নামিয়েছেন নতুন এক দল। এএফপি

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা