kalerkantho

বুধবার । ১৬ অক্টোবর ২০১৯। ১ কাতির্ক ১৪২৬। ১৬ সফর ১৪৪১       

স্মিথ-ওয়ার্নারকে নিয়েই অস্ট্রেলিয়া

১৬ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বড় মঞ্চটা বড় খেলোয়াড়দের। তাই অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ দলে ফেরানো হলো ডেভিড ওয়ার্নার ও স্টিভেন স্মিথকে। কেপটাউন টেস্টে তাঁদের বল বিকৃতি কাণ্ডে ঝড় বয়ে গেছে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটের ওপর। এক বছর নিষিদ্ধও ছিলেন দুজন। তাঁদের ছাড়া টেস্টে ছন্নছাড়া হয়ে পড়ে অস্ট্রেলিয়া। ওয়ানডেতে অবশ্য ভারতের পর সিরিজ জিতেছিল পাকিস্তানের বিপক্ষে। টানা আট ম্যাচ জেতা দলে পরিবর্তন চাননি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। কিন্তু সিরিজ জেতা আর বিশ্বকাপ এক নয়। এ জন্যই গতকাল ঘোষিত ১৫ সদস্যের দলে ফেরানো হয়েছে অভিজ্ঞ ও পরীক্ষিত স্মিথ-ওয়ার্নারকে। তাঁরা ফিরেছেন ২০১৯-২০ মৌসুমে অস্ট্রেলিয়ান বোর্ডের চুক্তিভুক্ত খেলোয়াড়দের তালিকাতেও।

স্মিথ-ওয়ার্নারকে ফেরাতে কঠিন কিছু সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে অস্ট্রেলিয়ান নির্বাচকদের। তাঁরা বাদ দিয়েছেন ফর্মের তুঙ্গে থাকা পিটার হ্যান্ডসকম্বকে। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে সর্বশেষ ১৩ ওয়ানডেতে ১ সেঞ্চুরি ৩ ফিফটিসহ ৯৮.১৫ স্ট্রাইক রেটে ৪৩.৫৪ গড়ে রান করেও বিশ্বকাপ খেলা হলো না হ্যান্ডসকম্বের। মোহালিতে ভারতের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়া রেকর্ড ৩৫৯ রান তাড়া করে জিতেছিল হ্যান্ডসকম্বের ১১৭ ও অ্যাশটন টার্নারের ৪৩ বলে ৮৪ রানের ঝড়ে। দুজনেরই যাওয়া হচ্ছে না ইংল্যান্ডে। বড় নামের মধ্যে বাদ পড়েছেন পেসার জস হ্যাজেলউড। গত জানুয়ারি থেকে পিঠের চোটে দলের বাইরে ছিলেন হ্যাজেলউড। সব শেষ ১৩ ওয়ানডে না খেললেও অস্ট্রেলিয়ার পাঁচ পেসারের তালিকায় রয়েছেন মিচেল স্টার্ক। অভিজ্ঞতা প্রাধান্য পেয়েছে এখানেও। অন্য চার পেসার প্যাট কামিন্স, ঝাই রিচার্ডসন, নাথান কোল্টার-নাইল ও জেসন বেহেনডরফ। তবে ২৩ মের মধ্যে পুরোপুরি ফিটনেস ফিরে না পেলে জায়গা হারানোরও শঙ্কা অছে স্টার্ক, রিচার্ডসনের। এই সময় পর্যন্ত আইসিসির অনুমতি ছাড়া পরিবর্তন আনা যাবে দলে।

বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার নেতৃত্বে থাকছেন অ্যারন ফিঞ্চ। শেন ওয়ার্ন তাঁর বিশ্বকাপ দলে উসমান খাজাকে না রাখলেও অস্ট্রেলিয়ান নির্বাচকরা বাদ দেননি তাঁকে। দলে আরো আছেন শন মার্শ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মার্কাস স্টোইনিস, দুই স্পিনার অ্যাডাম জাম্পা ও নাথান লায়ন। এই দল নিয়ে নির্বাচক প্রধান ট্রেভর হোনস জানালেন, “আমাদের অনেক কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে। দুর্ভাগ্যজনকভাবে ভারত ও আরব আমিরাতে খেলা পিটার হ্যান্ডসকম্ব, অ্যাশটন টার্নার ও কেন রিচার্ডসন বাদ পড়েছে। তবে ইংল্যান্ড সফরে আমাদের ‘এ’ দলে রাখা হয়েছে তিনজনকেই। হ্যাজেলউডও আছে। অ্যাশেজের আগে হ্যাজেলউড পুরো প্রস্তুত হয়ে উঠবে বলে আশা করছি আমরা।’’ ক্রিকইনফো

 

অস্ট্রেলিয়া : অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার, উসমান খাজা, শন মার্শ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মার্কাস স্টোইনিস, অ্যালেক্স ক্যারি, প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্ক, ঝাই রিচার্ডসন, নাথান কোল্টার-নাইল, জেসন বেহেনডরফ, অ্যাডাম জাম্পা ও নাথান লায়ন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা