kalerkantho

সোমবার । ২১ অক্টোবর ২০১৯। ৫ কাতির্ক ১৪২৬। ২১ সফর ১৪৪১                       

অভিজ্ঞতায় ভরসা ভারতের

১৬ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বিরাট কোহলিদের বিশ্বকাপ দল একরকম তৈরিই ছিল। বেশি জল্পনা একাদশে চার নম্বরে কে ব্যাট করবেন, তা নিয়ে। সবচেয়ে বেশি ঝালিয়ে দেখা হয়েছে আম্বাতি রাইডুকে। ঋষভ পান্টও ছিলেন আতশিকাচের তলায়। শেষ পর্যন্ত তাঁদের বাদ দিয়ে অভিজ্ঞ দীনেশ কার্তিককে সুযোগ দিলেন ভারতীয় নির্বাচকরা। গতকাল ঘোষিত বিশ্বকাপ দলে ভরসা রাখা হয়েছে অভিজ্ঞদের ওপর। কপাল পুড়েছে শ্রেয়াস আইয়ার, শার্দূল ঠাকুর, হনুমা বিহারি, খলিল আহমেদদের মতো তরুণদের। তবে পান্ট না থাকায় বিস্মিত কিংবদন্তি সুনীল গাভাস্কার, ‘পান্তের নাম না দেখে আমি অবাক। বিশ্বকাপের অনেক আগে থেকে রান করে চলেছে ও। উন্নতি করেছে উইকেটকিপিংয়েও।’

অধিনায়ক হিসেবে যথারীতি সময়ের সেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি। দুই ওপেনার রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান। লোকেশ রাহুল ইনিংসের উদ্বোধন করতে পারলেও বিশ্বকাপে দেখা যেতে পারে চার নম্বরে। এই পজিশনে খেলতে পারেন বিজয় শংকর আর কেদার যাদবও। উইকেটরক্ষক যথারীতি শেষ বিশ্বকাপ খেলতে চলা মহেন্দ্র সিং ধোনি। অলরাউন্ডার হিসেবে বিজয় শংকরের পাশাপাশি আছেন রবীন্দ্র জাদেজা, কেদার যাদব ও হার্দিক পাণ্ডে। শংকর ও পাণ্ডের জন্য লম্বা এই সফরে পেসার মাত্র তিনজন মোহাম্মদ সামি, ভুবনেশ্বর কুমার ও জাসপ্রিত বুমরাহ। আইসিসি টুর্নামেন্টের পিচগুলো ব্যাটিং সহায়ক হয় সাধারণত। এ জন্যই ইংল্যান্ডে তিন পেসার ও চার অলরাউন্ডার রাখার সাহস দেখিয়েছেন নির্বাচকরা।

নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে ভারতকে বাগে পেয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। সেই ম্যাচ দীনেশ কার্তিকের ৮ বলে ২৯ রানের বিস্ফোরণে হারে সাকিব আল হাসানের দল। চাপের মুখে ম্যাচ বের করার এমন অভিজ্ঞতার জন্যই কার্তিককে বেছে নেওয়া হয়েছে বলে জানালেন প্রধান নির্বাচক এম এস কে প্রসাদ, ‘ধোনি চোট পেলেই শুধু সুযোগ আসবে পান্ট বা কার্তিকের। এ ধরনের সময়ে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে চাপটা বেশি সামলাতে পারবে কে? এ জন্যই আমরা কার্তিককে নিয়েছি।’

চার নম্বর ব্যাটিং নিয়ে প্রসাদের ব্যাখ্যা, ‘বিজয় শংকর বোলিং-ব্যাটিং-ফিল্ডিং তিন বিভাগে দুর্দান্ত। ইংল্যান্ডের মেঘলা কন্ডিশন থাকলে ওর বোলিং কার্যকরী হবে। শংকরকে চারে ভাবা হচ্ছে। কেদার যাদব, দীনেশ কার্তিকদের জন্য আমাদের হাতে বিকল্পও থাকছে।’ ক্রিকইনফো

 

ভারত : বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), শিখর ধাওয়ান, রোহিত শর্মা, বিজয় শংকর, মহেন্দ্র সিং ধোনি, দীনেশ কার্তিক, লোকেশ রাহুল, রবীন্দ্র জাদেজা, যুযবেন্দ্র চাহাল, কেদার যাদব, হার্দিক পাণ্ডে, কুলদীপ যাদব, মোহাম্মদ সামি, ভুবনেশ্বর কুমার ও জাসপ্রিত বুমরাহ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা