kalerkantho

শুক্রবার । ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৫ রবিউস সানি          

জয়ে ফিরেছে চট্টগ্রাম আবাহনী, মোহামেডানের ড্র

১৩ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



জয়ে ফিরেছে চট্টগ্রাম আবাহনী, মোহামেডানের ড্র

ক্রীড়া প্রতিবেদক : হারের হতাশা কাটিয়ে ড্রয়ে ফিরেছে মোহামেডান। গতকাল মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে মোহামেডান। নোয়াখালীতে পাঁচ ম্যাচ পর জয়ে ফিরেছে চট্টগ্রাম আবাহনী, নাইজেরিয়ান স্ট্রাইকার মাগালান আওয়ালার জোড়া গোলে তারা ৩-০ গোলে হারিয়েছে নোফেল স্পোর্টিংকে। সুবাদে ১১ ম্যাচে তাদের সংগ্রহ ১৪ পয়েন্ট।

 

গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়াম গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর ৬৯ মিনিটে মোহামেডানের জালে বল পাঠিয়ে এগিয়ে  যায় মুক্তিযোদ্ধা। ইউসুকো কাতোর বাড়ানো বল ধরে কোত দি ভিয়ার ফরোয়ার্ড বালো ফামুসা বডি ডজে এক ডিফেন্ডারকে ছিটকে বল পাঠিয়ে দেন সাদা-কালোর জালে। আরেকটি হারের শঙ্কার মধ্যে পড়ে যান তাদের নতুন ব্রিটিশ কোচ শন ব্রেন্ডন লেন। ইনজুরি টাইমে এক পেনাল্টিতে সেই শঙ্কা দূর করেন কিংসলে চিগোজি। কর্নার কিকে মোহামেডানের এই নাইজেরিয়ানের হেডটি গোললাইন থেকে কামারা হাতে ফিরিয়ে ড্রয়ের সুযোগ করে দিয়েছিলেন। ১১ ম্যাচে ৪ জয় ও ৩ ড্রয়ে মুক্তিযোদ্ধার সংগ্রহ ১৫ পয়েন্ট আর মোহামেডানের মাত্র ৬ পয়েন্ট। মুক্তিযোদ্ধা কোচ আব্দুল কাইয়ুম সেন্টু এটাকে দুর্ভাগ্যই মনে করেন, ‘আমরা ভালো খেলেছি কিন্তু গোলসংখ্যা বাড়াতে পারিনি। তাই শেষদিকের চাপে গোলের সুযোগ পেয়ে গেছে মোহামেডান।’

নোয়াখালীর শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামে দিনের অন্য ম্যাচে নোফেলের বিপক্ষে দুই মিনিটেই চট্টগ্রাম আবাহনীকে এগিয়ে নেন নাইমুর রহমান শাহেদ। ২৩ মিনিটে ব্যবধান বড় করেন মাগালান আওয়ালা। লং বল ধরে ডিফেন্ডারকে ছিটকে ফেলে চমৎকার ফিনিশ করেন এই বিদেশি ফরোয়ার্ড। ইনুজরি টাইমে এই নাইজেরিয়ান আরেক গোল করে চট্টগ্রাম আবাহনী দারুণ এক জয় উপহার দেন। পাঁচ ম্যাচ পর জয়ে ফেরা আবাহনীর কোচ জুলফিকার মাহমুদ মিন্টুর মনেও ফিরেছে স্বস্তি, ‘ভালো খেলেছে আজ। আমার দলের সমস্যাটা হলো, ভালো খেলার ধারাবাহিকতা নেই। কিছুক্ষণের জন্য ভালো খেলল তো আবার ম্যাচ থেকে হারিয়ে গেল। এই জয় আশা করি সামনের ম্যাচের জন্য তাদের অনুপ্রাণিত করবে।’ এই লেগের শেষ ম্যাচটি খেলবে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষ দল বসুন্ধরা কিংসের সঙ্গে। গত লিগের তৃতীয় হওয়া দলটি প্রথম লেগ শেষে নতুন বিদেশি যোগ করার উদ্যোগ নিচ্ছে। ‘সত্যি বললে আমাদের দুর্বলতা অনেক আছে। গোলে সমস্যা আছে, আবার গোলের সাপ্লাই-লাইনও ভালো নয়। সব তো আর মধ্যবর্তী দলবদলে সারানো যাবে না, চেষ্টা করব স্কোরিংয়ের জায়গার দুর্বলতাটা কাটিয়ে ফিরতি লেগে আমরা নতুনভাবে ফিরতে’ বলেছেন আবাহনী কোচ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা