kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

রোনালদোকে হারানো ম্যাচে পর্তুগালের হোঁচট

২৭ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



রোনালদোকে হারানো ম্যাচে পর্তুগালের হোঁচট

বাঁ প্রান্তে ছুটে বল ধরতে গিয়েই বিপত্তি। হঠাৎ লাফিয়ে উঠে খোঁড়ানো শুরু। চিকিৎসা নিয়ে মাঠে ফেরেন আবার। কিন্তু টিকতে পারেননি বেশিক্ষণ। ম্যাচের ৩০তম মিনিটে মাংসপেশির ইনজুরির কারণে উঠে যেতে বাধ্য হন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো।

সার্বিয়ার বিপক্ষে ইউরো বাছাই পর্বের ম্যাচে ততক্ষণে ০-১ গোলে পিছিয়ে পর্তুগাল। অধিনায়কের বিদায়ে তাঁদের প্রত্যাবর্তন হয়ে যায় আরো কঠিন। ৪২তম মিনিটে দানিলো পাহেইরার গোলে সমতা ফেরায় ঠিকই; কিন্তু জয়সূচক গোলের খোঁজ আর মেলেনি। ইউক্রেনের সঙ্গে গোলশূন্য ড্রয়ের পর পরশু সার্বিয়ার সঙ্গেও ১-১ সমতায় ম্যাচ শেষ করে পর্তুগাল।

ঘরের মাঠে টানা দুই ড্রয়ে বাছাই পর্বের ‘বি’ গ্রুপে ৩ নম্বরে এখন রোনালদোর দল। পরশু পিছিয়ে পড়েও লুক্সেবার্গকে ২-১ গোলে হারানো ইউক্রেন ৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে। ৩ পয়েন্ট লুক্সেমবার্গের। বাছাই পর্বের এমন শুরুতেও ঘাবড়ানোর কিছু দেখছেন না রোনালদো, ‘ঘরের মাঠে টানা দুটি ম্যাচ ড্র করাটা হতাশার। তবে আমি ইতিবাচক দিকেই আলো ফেলতে চাই। আমার মনে হয়, আজ আমরা ভালো খেলেছি। জয়ের জন্য সম্ভাব্য সব কিছু করেছি, তৈরি করেছি গোলের অনেক সুযোগ—শুধু তা কাজে লাগাতে পারিনি। পরিষ্কার একটি পেনাল্টি পেয়েছিলাম, রেফারি তা দেখেননি অথবা দেননি। তবে সব মিলিয়ে দল ভালোই খেলেছে।’ নিজের ইনজুরি সেরে উঠতে দু-এক সপ্তাহ লাগবে জানিয়ে দলের ওপর আস্থা না হারানোর আহ্বান তাঁর, ‘পর্তুগালকে ২০২০ ইউরোতে খেলানোর জন্য সব কিছুই করব আমরা। এখনই তাই নার্ভাস হওয়ার কিংবা এই দলের ওপর থেকে আস্থা তুলে নেওয়ার কারণ ঘটেনি। সমর্থকদের আমাদের ওপর বিশ্বাস রাখতে হবে। যারা খেলাগুলো দেখেছে এবং যারা ফুটবল বোঝে, তারা মানবে যে এ দুটো খেলাতেই জয় আমাদের প্রাপ্য ছিল। কিন্তু ফুটবলে তো বল বেশি জালে গেলেও দল জেতে। এ দুটো ম্যাচে তা হয়নি, সামনের ম্যাচগুলোয় নিশ্চয়ই হবে।’

পর্তুগালের হতাশার বিপরীতে চলছে ফ্রান্স-ইংল্যান্ডের জয়যাত্রা। ‘এইচ’ গ্রুপে টানা দ্বিতীয় জয়ে প্রতিপক্ষের জালে টানা দ্বিতীয়বার চার গোল বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের। উমতিতি-জিরু-এমবাপ্পে-গ্রিয়েজমানের লক্ষ্যভেদে পরশু ৪-০ গোলে তারা হারায় আইসল্যান্ডকে। আর ‘এ’ গ্রুপে টানা দ্বিতীয় জয়ে ইংল্যান্ডের পাঁচ গোল। পরশু মন্টেনেগ্রোর বিপক্ষে পিছিয়ে পড়েও রস বার্কলির জোড়া গোলের সঙ্গে মাইকেন কিন, হ্যারি কেন, রহিম স্টার্লিংয়ের গোলে তারা জেতে ৫-১ ব্যবধানে। এএফপি

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা