kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ব্যাংককে শুরুর দিনে সেরা রুমান সানা

২৭ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ব্যাংককে শুরুর দিনে সেরা রুমান সানা

ক্রীড়া প্রতিবেদক : এশিয়া কাপ ওয়ার্ল্ড র‌্যাংকিং টুর্নামেন্টের প্রথম দিনে ব্যাংকক মাতিয়েছেন রুমান সানা। কোয়ালিফিকেশন রাউন্ডে দুর্দান্ত খেলে ৬৮১ স্কোর করে বাংলাদেশের এই তীরন্দাজ হয়েছেন প্রথম। সুবাদে তিনি আগামীকাল সরাসরি খেলবেন তৃতীয় রাউন্ডে। রিকার্ভ এককে নামা দেশের অন্য দুই তীরন্দাজ হাকিম আহমেদ রুবেল ও ইমদাদুল হক মিলনকে খেলতে হবে প্রথম রাউন্ড থেকেই। এই তিনে মিলে অবশ্য রিকার্ভ দলগতে চতুর্থ হয়েছে বাংলাদেশ। তবে মেয়েদের রিকার্ভ এককে তিনজনই বিদায় নিয়েছেন প্রথম রাউন্ড থেকে।

দেশে সর্বশেষ আন্তর্জাতিক সলিডারিটি আর্চারির ফাইনালে ব্যর্থ হওয়া রোমান সানা দারুণ শুরু করেছেন ব্যাংককে। গতকাল ২০১৯ এশিয়া কাপ ওয়ার্ল্ড র‌্যাংকিং টুর্নামেন্টের স্টেজ-১-এর কোয়ালিফিকেশন রাউন্ডে বাংলাদেশের এই তীরন্দাজ ৭২০ এর মধ্যে সর্বোচ্চ ৬৮১ স্কোর করে সেরা হয়েছেন। টুর্নামেন্টের নিয়মানুযায়ী শীর্ষ বাছাই হওয়ার সুবাদে তিনি প্রথম দুই রাউন্ড টপকে সরাসরি খেলবেন তৃতীয় রাউন্ড থেকে। সানার এই পারফরম্যান্সে খুব খুশি কোচ মার্টিন ফ্রেডরিখ, ফোনে বাংলাদেশের এই জার্মান তীরন্দাজ কোচ বলেছেন, ‘রোমান সানা দুর্দান্ত খেলেছে। তার পারফরম্যান্সে আমি খুব খুশি। দেশের বাইরে এটাই তার সেরা স্কোর। এই ধারা বজায় রেখে শেষ পর্যন্ত খেলতে পারাটাই হলো চ্যালেঞ্জিং। তৃতীয় রাউন্ডে সে কার মুখোমুখি হবে, তা এখনো পরিষ্কার নয়। তবে ভারত-থাইল্যান্ডের সঙ্গে পড়তে পারে তার খেলা। প্রতিপক্ষ যে-ই হোক, এখানে সহজ-কঠিন হিসাব করার কোনো সুযোগ নেই। লড়াইটা নিজের সঙ্গে, নিজের সেরাটা শেষ পর্যন্ত ধরে রেখে খেলা।’ এই কোচের আরেকটা গর্বের উপলক্ষ হলো ছেলেদের রিকার্ভ দলগতে রোমান, রুবেল ও মিলন মিলে ১৯৭৬ স্কোর করে চতুর্থ হওয়া। কোচের দাবি অনুযায়ী, এটা বাংলাদেশের জাতীয় রেকর্ড এবং এখানে ভালো করার সম্ভাবনা আছে। যদিও কোয়ালিফিকেশন রাউন্ডে হাকিম আহেমদ রুবেল ৬৫৪ স্কোর করে ২২তম এবং ইমদাদুল হক মিলন ৬৪১ স্কোর করে ৩৫তম হয়ে আগামী ২৮ মার্চ প্রথম রাউন্ডে খেলার জন্য অপেক্ষা করছেন।

তবে মেয়েদের পারফরম্যান্স খুব খারাপ হয়েছে। কোয়ালিফিকেশন রাউন্ডে খারাপ করে দিয়া সিদ্দিকী. বিউটি রায় ও নাসরিন আক্তার প্রথম রাউন্ডে কঠিন প্রতিপক্ষের মুখোমুখি হয়েছেন এবং বিদায় নিয়েছেন। দিয়া ৭-১ সেটে হংকংয়ের লাম চুক চিংয়ের কাছে হেরেছেন। বিউটি চাইনিজ তাইপের লিও সিহ-লিংয়ের কাছে ৬-৪ সেটে এবং নাসরিন ভারতের প্রিমিলাবেনের কাছে ৬-৪ সেটে হারেন। মেয়েদের এই পারফরম্যান্স দেখে মার্টিন বেশ হতাশ, ‘মেয়েদের পারফরম্যান্সে অমি খুব হতাশ। তারা কোয়ালিফিকেশন রাউন্ডের মতো প্রথম রাউন্ডেও বাজে পারফরম করেছে। তাদের কাছ থেকে আমি আরো বেশি আশা করেছিলাম, টিম মিটিংয়ে তাদের পারফরম্যান্স নিয়ে আলাপ হয়েছে। এখনো সুযোগ আছে দলগতে ভালো করার।’ রিকার্ভ দলগতে এই তিনে মিলে ১৭৩০ স্কোর করে দ্বাদশ স্থানে বাংলাদেশ মহিলা রিকার্ভ দল।

রিকার্ভ মিশ্র দলগতেও বাংলাদেশ এখনো টিকে আছে। কোয়ালিফিকেশন রাউন্ডে রুমান সানা ও দিয়া সিদ্দিকীর গড়া জুটি আছে দ্বাদশ স্থানে। আগামী ৩০ মার্চ তাঁরা লড়বেন ভিয়েতনামের সঙ্গে। আজ দ্বিতীয় দিনে কম্পাউন্ড পুরুষ ও মহিলা বিভাগের খেলা হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা