kalerkantho

মঙ্গলবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১২ রবিউস সানি     

আজ মাঠে এমবাপ্পে রোনালদো কেইন

২২ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আজ মাঠে এমবাপ্পে রোনালদো কেইন

বিশ্বকাপজয়ী কিলিয়ান এমবাপ্পে, ইউরোজয়ী ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো এবং রাশিয়া বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ গোলদাতা হ্যারি কেইন, তিনজনকেই আজ ফের মাঠে নামতে হবে জাতীয় দলের জার্সিতে। শুরু হয়ে গেছে ইউরো ২০২০ এর বাছাই পর্ব। গতকাল মাঠে নেমে গেছে বিশ্বকাপের রানার্স-আপ ক্রোয়েশিয়াসহ বেশ কয়েকটি দল। আজ মাঠে নামছে ফ্রান্স, ইংল্যান্ড, পর্তুগালসহ ইউরোপের আরো কয়েকটি দল।

ওয়েম্বলিতে ইংল্যান্ড তাদের ইউরো মিশন শুরু করছে চেক প্রজাতন্ত্রের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে। শেষ মুহূর্তে চোটের কারণে ছিটকে গেছেন লিভারপুলের রাইটব্যাক ট্রেন্ট আলেক্সান্ডার-আর্নল্ড। তাঁর বিকল্প হিসেবে কাউকে ডাকেননি ইংলিশ কোচ গ্যারেথ সাউথগেট, তাই দল হয়ে গেছে ২২ জনের। এ অবস্থায় ইংলিশ ক্লাব বার্নলিতে খেলা চেক প্রজাতন্ত্রের ফরোয়ার্ড মাচেই ভিদ্রা তো রীতিমতো হুমকিই দিয়ে রেখেছেন, ‘(হ্যারি) কেইন সেরা সময়ে, (মার্কাস) রাশফোর্ডও দারুণ খেলছে। কিন্তু রক্ষণকে নিয়ে ওরকম কিছু বলতে পারছি না। রক্ষণটা আক্রমণের মতো শক্তিশালী নয়। ধরা যাক (হ্যারি) ম্যাগুয়ারের কথা। মাঝে মাঝে ওকে দেখে মনে হয়, পেছনে কী হচ্ছে সে কিচ্ছু জানে না!’

বিশ্বকাপের পর পর্তুগালের জার্সি গায়ে মাঠে নামেননি রোনালদো। ক্লাব বদল করেছেন, ব্যক্তিগত জীবনেও ছিল কিছু অনাকাঙ্ক্ষিত ঝামেলা। সব কিছু মিলিয়েই গুছিয়ে উঠতে একটু সময় নিয়েছিলেন ‘সিআরসেভেন’। ইউক্রেনের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আজ আবার মাঠে ফিরছেন রোনালদো। উয়েফার ক্লাব প্রতিযোগিতায় ইউক্রেনের ক্লাবের বিপক্ষে চার ম্যাচে ৮ গোল রোনালদোর, অর্থাৎ গড়ে প্রতি ৪৫ মিনিটে ১ গোল! জাতীয় দলের বিপক্ষে এই রেকর্ডটা ধরে রাখতে পারবেন তো রোনালদো। ইউক্রেনের কোচ আন্দ্রেই শেভচেঙ্কোও খেলোয়াড়ি জীবনে ছিলেন রোনালদোর মতোই বিখ্যাত। রোনালদোকে আটকাতে নিশ্চয়ই কোনো পরিকল্পনা আছে তাঁরও। ১৯৯৮ বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে ইউক্রেন ২-১ গোলে হারিয়ে দিয়েছিল পর্তুগালকে, যে দলটায় ছিলেন রুই কস্তা, লুই ফিগোরা। এবারও কি ওলেগ ব্লখিনের উত্তরসূরিরা পারবে রোনালদোর পর্তুগালকে থামাতে?

বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের ইউরো অভিযান শুরু হচ্ছে একদমই বেমানান প্রতিপক্ষের বিপক্ষে। ফিফা র‌্যাংকিংয়ে ১৭০তম স্থানে থাকা মলদোভার বিপক্ষে কিলিয়ান এমবাপ্পে, পল পগবা, আন্তোয়ান গ্রিয়েজমানরা হয়তো মেতে উঠবেন গোল উৎসবেই। এ ছাড়া অ্যান্ডোরা মুখোমুখি হবে আইসল্যান্ডের, আর তুরস্কের প্রতিপক্ষ আলবেনিয়া।

ওদিকে থোমাস মুল্যার, ম্যাটস হুমেলস ও জেরোম বোয়েটাংকে আর কখনো জাতীয় দলে ডাকা হবে না—স্পষ্ট বলে দিয়েছেন জার্মানির কোচ ইওয়াখিম ল্যোভ। তাঁদের ছাড়া নতুন প্রজন্মের শুরুটা অবশ্য খুব ভালো হয়নি। পরশু প্রীতি ম্যাচে সার্বিয়ার সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে জার্মানি। এএফপি

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা