kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সোহাগ জেতালেন মোহামেডানকে

১৬ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সোহাগ জেতালেন মোহামেডানকে

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ৪৯তম ওভারের প্রথম বলটি যখন ছক্কার ঠিকানায় পাঠিয়ে দেন সোহাগ গাজী, মোহামেডানের জয় তখন স্পর্শ দূরত্বে। ১১ বলে প্রয়োজন মাত্র চার রান। হাতে দুই উইকেটের বেশি না থাকলেও ক্রিজে ৭০ রান করা সোহাগের উপস্থিতি টানা তৃতীয় জয়ের কক্ষপথে রাখে মোহামেডানকে।

সে জয় তারা পেয়েছে বটে। তবে সে জন্য কম নাটকীয়তা হয়নি। মিরপুরে প্রাইম দোলেশ্বরের ৮ উইকেটে ২৪৮ রানের জবাব দিতে নেমে ১২৫ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে একরকম ছিটকে যায় মোহামেডান। এর পরই আট নম্বরে নামা সোহাগ গাজীর ব্যাটে নির্ভরতা। মাত্র ৫১ বলে ৭০ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলেন। দূরের জয় একটু একটু করে আসতে থাকে মোহামেডানের কাছে। কিন্তু ৪৯তম ওভারের প্রথম বলে ছক্কা মেরে পরের বলে আউট হয়ে আবার তাতে অনিশ্চয়তার প্রলেপ দেন মেখে। ছক্কার পরের ১০ বলে মাত্র দুই রান নেওয়া মোহামেডানের ইনিংসের একেবারে শেষ বলে জয়ের জন্য প্রয়োজন পড়ে দুই রান। এবার শফিউল ইসলাম চার মেরে টানা তৃতীয় জয় এনে দেন দলকে।

ঢাকা প্রিমিয়ার বিভাগ ক্রিকেট লিগের তিন রাউন্ড শেষে শতভাগ জয়ের রেকর্ড অক্ষুণ্ন রইল তাই প্রথাগত দুই পরাশক্তি মোহামেডান-আবাহনীর।

ওদিকে খেলাঘরকে তিন উইকেটে হারিয়ে নিজেদের দ্বিতীয় জয় পেয়েছে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স। আর উত্তরা স্পোর্টিংকে ২০ রানে হারিয়ে প্রথম জয় বিকেএসপির।

সংক্ষিপ্ত স্কোর : মোহামেডান-প্রাইম দোলেশ্বর : প্রাইম দোলেশ্বর : ৫০ ওভারে ২৪৮/৮ (তাইবুর ৭২*, মার্শাল ৬৮; আলাউদ্দিন ৩/৪৯, শফিউল ৩/৬২)। মোহামেডান : ৫০ ওভারে ২৫১/৯ (সোহাগ ৭০, আলাউদ্দিন ৩৮; ফরহাদ রেজা ৪/৫৫)। ফল : মোহামেডান এক উইকেটে জয়ী। ম্যান অব দ্য ম্যাচ : সোহাগ গাজী।

গাজী ক্রিকেটার্স-খেলাঘর : খেলাঘর : ৪৭.৫ ওভারে ১৩৮ (মাহিদুল ৫৭; কামরুল ৫/২৪)। গাজী ক্রিকেটার্স : ৩৯.৫ ওভারে ১৪২/৭ (পারভেজ ৫৯*, শামসুর ৫১; রবিউল ৫/৪১)। ফল : গাজী ক্রিকেটার্স তিন উইকেটে জয়ী। ম্যান অব দ্য ম্যাচ : কামরুল ইসলাম।

বিকেএসপি-উত্তরা স্পোর্টিং : বিকেএসপি : ৫০ ওভারে ২০১/৮ (মাহমুদুল ৬৬; নাহিদ ২/৩০)। উত্তরা স্পোর্টিং : ৪৯ ওভারে ১৮১ (রাজা ৫১, শাখির ৫০; সুমন ৪/৪১)। ফল : বিকেএসপি ২০ রানে জয়ী। ম্যান অব দ্য ম্যাচ : মাহমুদুল হাসান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা