kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

টেস্টেও ফ্রি-হিট!

১৪ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এক শ বছরের ওপরে হয়ে গেল ক্রিকেটের বয়স, তবু থামছে না খেলাটির বিবর্তন। বাণিজ্যিক কারণে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির ওপর দিয়ে চলেছে অনেক পরীক্ষা-নিরীক্ষা, টেস্ট ক্রিকেট অনেকটাই বাইরে ছিল কাটা-ছেঁড়ার। কিন্তু সেই বাণিজ্যের ধুয়ো তুলে দিনরাতের টেস্ট, গোলাপি বলে খেলাও শুরু হয়ে গেছে। এবারেও লন্ডনে এমসিসির বিশ্ব ক্রিকেট কমিটি বৈঠক শেষে ক্রিকেটের প্রচলিত আইনে বেশ কিছু পরিবর্তন আনার প্রস্তাব জানিয়েছে। সাবেক ইংল্যান্ড অধিনায়ক মাইক গ্যাটিং এই কমিটির প্রধান। কমিটিতে আছেন সৌরভ গাঙ্গুলিও। গত সপ্তাহে বেঙ্গালুরুতে কয়েকজন টেস্ট ক্রিকেটারের সঙ্গে আলাপ করেছিলেন কমিটির সদস্যরা। সেখানেই উঠে আসে স্লো-ওভার রেটের মতো একটি বিষয়ের সমাধানে শট ক্লকের ব্যবস্থার কথা। যেসব দলে পেসার বেশি বোলিং করে তাদের খেলায় আর ডিআরএস পদ্ধতির কারণে এখন টেস্টে এক দিনের ৯০ ওভার শেষ হতে নির্ধারিত সময়ের চেয়ে বেশি লাগছে। ক্রিকেটের আইন প্রণয়ন সংস্থার প্রস্তাবনা, স্কোরবোর্ডে ঘড়ির ব্যবহার এবং দুই ওভারের মাঝের সময় বেঁধে দেওয়াটাই হতে পারে সমাধান। আম্পায়ার ওভারের সংকেত দেওয়ার পর নতুন ওভার শুরুর মাঝে ৪৫ সেকেন্ড, নতুন ব্যাটসম্যান হলে ৬০ সেকেন্ড আর বোলার পরিবর্তন হলে ৮০ সেকেন্ড সময় বেঁধে দেওয়ার প্রস্তাব করেছে কমিটি। বেশি সময় ক্ষেপণ হলে সতর্কতার পর ৫ রান জরিমানার বিধান রাখতে চায় এমসিসির ক্রিকেট কমিটি। সেই সঙ্গে দাগের বাইরে পা ফেলে নো বলের জন্য টেস্টেও ফ্রি হিট রাখার মত তাঁদের। পিটিআই

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা