kalerkantho

আবার মাতাতে এলেন জুনাইনা

১১ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আবার মাতাতে এলেন জুনাইনা

ক্রীড়া প্রতিবেদক : কাল প্রথম ইভেন্টে নেমেই রেকর্ড গড়লেন। ২০০ মিটার ফ্রি স্টাইল শেষ করলেন ২:১৯.৮৯ সেকেন্ডে। ২০০৭ সালের পর প্রথমবারের মতো সবুরা খাতুনের নাম তাই কাটা পড়ল রেকর্ড বই থেকে। কাটা পড়েছে আসলে দুই বছর আগেই। জুনাইনা আহমেদ তখন প্রথম বাংলাদেশে আসেন। বয়সভিত্তিক সাঁতারের সব রেকর্ড ভেঙে তছনছ করেন। তখনই বেশ কিছু সিনিয়র রেকর্ডও ভেঙে দিয়েছিলেন ১৪ বছরের কিশোরী। সবুরাদের ছাড়িয়েছিলেন তো তখনই। দুই বছর পর সিনিয়র সাঁতারেও যে রেকর্ড তাঁর প্রতি স্ট্রোকে কথা বলবে, তাতে আর অবাক হওয়ার কী!

তা-ই হয়েছে, লন্ডনপ্রবাসী এই সাঁতারু দ্বিতীয়বারের মতো বাংলাদেশে এসে কাল শুরু হওয়া জাতীয় সাঁতারে যে দুটি ইভেন্টে পানিতে নেমেছেন, নতুন জাতীয় রেকর্ডসহ সোনা সে দুটিতেই। বার্কিং অ্যান্ড ডাগেনহাম সুইমিং ক্লাবে সাঁতার শেখা এ তরুণীর মূল ইভেন্ট ফ্রি স্টাইল ও বাটারফ্লাই। সকালে ২০০ মিটার ফ্রি স্টাইলে নতুন রেকর্ড গড়ার পর বিকেলে ২০০ মিটার ব্যাক স্ট্রোকে নেমেছিলেন তেমন প্রত্যাশা ছাড়াই। কিন্তু দেশে থাকা শীর্ষ সাঁতারুদের মান এমনই যে জুনাইনার এই ইভেন্টে রেকর্ড গড়তেও সামান্য বেগ পেতে হয়নি। ২:৪০.৭৫ সেকেন্ডে সাঁতার শেষ করেছেন তিনি। আগের রেকর্ডের চেয়ে ৪.০৫ সেকেন্ড কম নিয়ে।  ২০১৬ সালে গড়া যাঁর রেকর্ডটি ভেঙেছেন তিনি সেই নাঈমা আক্তার ২:৪৬.৯৩ সেকেন্ডে সাঁতরে হয়েছেন তৃতীয়।

এই আসরে যে কয়টি ইভেন্টেই তাই অংশ নেবেন জুনাইনা, সবগুলোর রেকর্ডই এখন হুমকির মুখে। জুনাইনা অবশ্য রেকর্ড নিয়ে ভাবেন না, ‘আমি শুধু চাই আরো ভালো টাইমিং করতে।’ আরো বড় চাওয়া তাঁর আন্তর্জাতিক আসরে বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করা। বাবা জোবায়ের আহমেদের স্বপ্নও তাই। সে কারণেই মেয়েকে নিয়ে দেশে ছুটে আসা। জুনাইনা এ আসরে খেলছে নৌবাহিনীর হয়ে। দলটির হয়ে সোনিয়া আক্তার নতুন রেকর্ড গড়ে সোনা জিতেছে ১০০ মিটার বাটারফ্লাইয়ে, ছেলেদের এই ইভেন্টে নতুন রেকর্ড গড়েছেন নৌবাহিনীরই মাহমুদুনবী। সেনাবাহিনীর জুয়েল আহমেদ রেকর্ড গড়েছেন ২০০ মিটার ব্যাক স্ট্রোকে।

মন্তব্য