kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ১৭ অক্টোবর ২০১৯। ১ কাতির্ক ১৪২৬। ১৭ সফর ১৪৪১       

আবারও ম্যানইউর ডাগআউটে ফার্গুসন

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আবারও ম্যানইউর ডাগআউটে ফার্গুসন

শুধু ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড নয়, ফুটবলেরই কিংবদন্তি স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসন। ২৬ বছর ছিলেন ম্যানইউর ডাগআউটে। ফার্গুসনের হাত ধরে সে সময়ে ইংলিশ ক্লাবটি জিতেছে ৩৮ শিরোপা। ইংলিশ ফুটবলে আর কোনো ম্যানেজারের নেই এমন সাফল্য। ২০১৩ সালে ফার্গুসন অবসর নিয়ে ফুটবল ছাড়ার পর আর কোনো প্রিমিয়ার লিগ নেই ম্যানইউর! তাহলে কি আবারও তাঁর দ্বারস্থ হবেন ক্লাব কর্তারা?

না, ফার্গুসন আর পেশাদার ক্যারিয়ারে ফিরবেন না। তবে ম্যানইউ ফাউন্ডেশনের জন্য একটি চ্যারিটি ম্যাচে আবারও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ডাগআউটে দেখা যাবে তাঁকে। ১৯৯৮-৯৯ মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগ, এফএ কাপ আর চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়টা সেরা অর্জন ফার্গুসনের। চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে ৯০ মিনিট পর্যন্ত ০-১ গোলে পিছিয়ে ছিল ম্যানইউ। তবে ইনজুরি টাইমের দুই গোলে নাটকীয় জয় পায় ২-১ ব্যবধানে। সেই ম্যাচের ২০ বছর পূর্তিতে ২৬ মে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে মুখোমুখি হচ্ছে ম্যানইউ ও বায়ার্ন মিউনিখের সাবেক খেলোয়াড়রা। ম্যাচটিতে ম্যানইউর ডাগআউটে দেখা যাবে ফার্গুসনকে। ম্যাচ থেকে পাওয়া অর্থ দান করা হবে ম্যানইউর ফাউন্ডেশনে। আবারও চেনা জায়গায় যাওয়ার সুযোগ পেয়ে ফার্গুসনের উচ্ছ্বাস, ‘বিশেষ দিন হতে যাচ্ছে।’

বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে ইনজুরি টাইমে এক গোল করেছিলেন বর্তমান ভারপ্রাপ্ত ম্যানেজার ওলে গানার শোলসকায়ের। তিনিও খেলবেন ২৬ মে হতে যাওয়া ম্যাচটিতে। এ নিয়ে ম্যানইউর ম্যানেজিং ডিরেক্টর রিচার্ড আর্নল্ড জানালেন, ‘ম্যানইউর ইতিহাসে ১৯৯৯ সালের ট্রেবলের সাফল্য ঐতিহাসিক ও গুরুত্বপূর্ণ। ফুটবলের সত্যিকারের কিংবদন্তিরা ছিলেন তখনকার দলে। বায়ার্নের বিপক্ষে ফাইনাল ভুলতে পারবে না আমাদের সমর্থকরা। আবারও সাবেক সেই খেলায়াড়দের মুখোমুখি হওয়াটা বিশেষ কিছু।’ বিবিসি

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা