kalerkantho

বুধবার । ২১ আগস্ট ২০১৯। ৬ ভাদ্র ১৪২৬। ১৯ জিলহজ ১৪৪০

রাত পোহালেই কঠিন পরীক্ষায় বাংলাদেশ

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



রাত পোহালেই কঠিন পরীক্ষায় বাংলাদেশ

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ব্যক্তিগত কিছু অর্জন ছাড়া নিউজিল্যান্ড সফর আর কিছুই দেয়নি বাংলাদেশ দলকে। এবার কি ধরা দেবে সাফল্য? আগামীকাল সকাল ৭টায় নেপিয়ারে শুরু হতে যাওয়া সিরিজের প্রথম ওয়ানডের পূর্বাভাসে প্রবল আশাবাদী খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না কোথাও।

ওয়ানডেতে ক্রমাগত উন্নতি করতে করতে এখন ক্রিকেটবিশ্বেও সমীহ পায় বাংলাদেশ। তবে একে তো নিউজিল্যান্ডের বৈরী কন্ডিশন, তার ওপর সাকিব আল হাসানের অনুপস্থিতি আশাবাদী হওয়ার শক্তি অনেকটাই শুষে নিয়েছে। বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার কণ্ঠেও এ নিয়ে আক্ষেপ ঝরেছে, ‘সাকিব কতটা গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়, সেটা নতুন করে বলার দরকার নেই। ওর অনুপস্থিতিতে প্রতিবারই কঠিন সমস্যায় পড়তে হয়েছে। এমনিতেই নিউজিল্যান্ড সফর কঠিন চ্যালেঞ্জ। সাকিব না থাকায় সে চ্যালেঞ্জটা দ্বিগুণ কঠিন হলো।’ তাই বলে হতাশায় ঝিমিয়ে পড়ার তো সুযোগ নেই। সবশেষ এশিয়া কাপের প্রসঙ্গ টেনে আশার বাণীও শুনিয়েছেন তিনি, ‘যারা আছে, তাদের নিয়েই লড়াই করতে হবে। গত এশিয়া কাপেও এমন পরিস্থিতিতে পড়েছিলাম আমরা।’ সে আসরে সাকিবকে ছাড়া ফাইনাল খেলাকে অনুপ্রেরণা বানিয়ে সতীর্থদের মাঝে ছড়িয়ে দিচ্ছেন মাশরাফি, ‘চ্যালেঞ্জ জিততে হলে সব ভুলে ইতিবাচক মানসিকতা নিয়ে আমাদের খেলতে হবে। এটা সত্যি যে সাকিব না থাকায় দলের ভারসাম্যে সমস্যা হবে। তবে আমাদের মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকতে হবে, যেন ওর অভাব আড়াল করে দিতে পারি।’  

কিন্তু নিউজিল্যান্ড সিরিজের প্রেক্ষাপট ভিন্ন। সাকিবের অভাব দূর করার আগে কেউ কেউ নিজের ফর্ম খুঁজে পাওয়া নিয়েই ব্যতিব্যস্ত! সফরের একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে রান পাননি লিটন কুমার দাশ ও সৌম্য সরকার। তাতে টপ অর্ডারে সেই তামিম ইকবালের দিকেই তাকিয়ে থাকতে হবে দলকে। তবু ভালো যে ইনফর্ম মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে রানে ফিরেছেন মাহমুদ উল্লাহ। আশার কথা রানে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছেন সাব্বির রহমানও। সে তুলনায় বোলিং আক্রমণেই আস্থা বেশি। ওখানকার কন্ডিশনে মুস্তাফিজুর রহমান, মাশরাফি, রুবেল হোসেনদের ওপর বাজি ধরাই যায়। কিন্তু সাকিবের মহামূল্য ১০ ওভারের অভাব পূরণ করবেন কে?

নেপিয়ারে অনুষ্ঠিত সবশেষ ওয়ানডে ম্যাচের স্কোরকার্ড এ শোক বাড়িয়ে দিতে পারে আরো। ২৩ জানুয়ারির সে ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে মাত্র ১৫২ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল নিউজিল্যান্ড। ধ্বংসযজ্ঞের শুরুটা পেসার মোহাম্মদ সামি করেছিলেন বটে, তবে স্বাগতিকদের ভরাডুবি নিশ্চিত করেছেন ভারতীয় স্পিনাররা। বাকি সব উইকেটই যে তাঁদের। আর এ মাঠেই কিনা সাকিবের বোলিংটা পাবে না বাংলাদেশ!

মন্তব্য