kalerkantho

মঙ্গলবার। ২০ আগস্ট ২০১৯। ৫ ভাদ্র ১৪২৬। ১৮ জিলহজ ১৪৪০

জয়ে ফিরেছে রিয়াল জুভেন্টাস

১৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



জয়ে ফিরেছে রিয়াল জুভেন্টাস

চ্যাম্পিয়নস লিগে ইয়াং বয়েজের মাঠে জুভেন্টাসের হেরে যাওয়াটা বড় ঘটনা ছিল। অখ্যাত দলের কাছে হারের কারণেই শুধু না, এর আগের প্রায় এক বছর কোনো অ্যাওয়ে ম্যাচেই যে হারেননি ওল্ড লেডি। সুইজারল্যান্ডের সেই ধাক্কা কাটিয়ে পরশু জয় পেয়েছে তারা তোরিনোর মাঠে। জেতাটা সহজ হয়নি এদিনও, ৭০ মিনিটে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর পেনাল্টি থেকে এসেছে জয় নিশ্চিত করা একমাত্র গোলটি।

চ্যাম্পিয়নস লিগের সেই অভিশপ্ত বুধবারে নিজেদের মাঠে সিএসকেএর কাছে ৩-০-তে বিধ্বস্ত হওয়া রিয়াল মাদ্রিদও পরশু ন্যূনতম ব্যবধানে হারিয়েছে রায়ো ভায়োকানোকে। স্কোরলাইন বলছে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর এ ম্যাচে জিততে তাদেরও ঘাম ঝরাতে হয়েছে। করিম বেনজেমার গোলে শুরুতে এগিয়ে যাওয়ার পরও পয়েন্ট হারানোর শঙ্কায় ছিল লস ব্লাংকোরা। ইনজুরি সময়ে থিবো কোর্তুয়ার ডাবল সেভের সঙ্গে সের্হিয়ো রামোসের গোললাইন সেভ না হলে ম্যাচটা হয়তো ড্র-ই করে ফেলে লা লিগার ১৯ নম্বর দল রায়ো। সেই ফাঁড়া কাটিয়ে রিয়াল পয়েন্ট টেবিলের তিনে উঠে গেছে। শীর্ষে থাকা বার্সেলোনা ও দ্বিতীয় স্থানে থাকা অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের ২ পয়েন্টের মধ্যে এবং চারে থাকা সেভিয়ার চেয়ে ১ পয়েন্ট এগিয়ে। কাল রাতেই অবশ্য লেভান্তের বিপক্ষে পয়েন্ট বাড়িয়ে নেওয়ার সুযোগ ছিল বার্সার, জিরোনার বিপক্ষে সেভিয়া জিতলে তারাও পেছনে ফেলেছে রিয়ালকে। পরশু রিয়াল ভায়াদোলিদকে ৩-২ গোলে হারিয়ে পয়েন্টে বার্সাকে ছুঁয়েছে অ্যাতলেতিকো। আন্তোনিও গ্রিয়েজমানের জোড়া গোলের কাছেই হেরেছে ম্যাচে দুইবার সমতা ফেরানো ভায়াদোলিদ। নিকোলা কালিনিচের করা অ্যাতলেতিকোর প্রথম গোলটিতেও অ্যাসিস্ট গ্রিয়েজমানের।

অনেকের কাছেই এবারের ব্যালন ডি’অর জয়ে ফেভারিট ছিলেন বিশ্বকাপজয়ী এ ফরাসি তারকা। যাঁর কাছে হেরেছেন সেই লুকা মডরিচ পরশু মাঠের পারফরম্যান্সে না হলেও ম্যাচের শুরুতে সোনার বল হাতে পুরোটা আলো কেড়ে নিয়েছিলেন সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে। বছর শেষে এই ব্যালন ডি’অর হাতে একজনের মাঠে প্রবেশের আনুষ্ঠানিকতায় অভ্যস্ত হয়ে ওঠা বার্নাব্যুর দর্শকরা নতুন বর্ষসেরাকেও শুভেচ্ছায় ভাসাতে কার্পণ্য করেনি। তবে রিয়ালের মাঠের পারফরম্যান্সে ম্যাচ শেষে সেই উচ্ছ্বাস আর থাকেনি তাদের। সোলারির দলকে মাঠ ছাড়ার সময় দুয়োও শুনতে হয়েছে এদিন। রিয়ালের নতুন কোচ তা সহজভাবেই নিয়েছেন, ‘এটাই ফুটবল। যখন সেরাটা দেওয়া যাবে না, তখন ভুগতেই হবে।’ সোলারির সামনে এখন নতুন মিশন ক্লাব বিশ্বকাপ। ১৯ ডিসেম্বর আবুধাবিতে জাপানের কাশিমা আন্টলার্সের বিপক্ষে তারা সেমিফাইনাল খেলবে।

তুরিনের অলিম্পিক স্টেডিয়াম একটা সময় জুভেন্টাসেরও হোম ভেন্যু ছিল। ২০১১-তে বানানো জুভেন্টাস স্টেডিয়ামে চলে আসার পর সেই মাঠে এখন অতিথি সাদা-কালোরা। তবে ডার্বির উত্তেজনাটা রয়ে গেছে আগের মতোই। তাতেই শিকার হতে চলেছিল সিরি ‘এ’-এর সর্বশেষ সাতবারের চ্যাম্পিয়নরা। সিমোনে জাজার একটা ব্যাক পাস নিয়ন্ত্রণে নিতে গিয়েই মারিও মান্দজুকিচকে ফাউল করে বসেন তোরিনো গোলরক্ষক, তাতেই পেনাল্টি থেকে গোলের সুযোগটা চলে আসে জুভেন্টাসের। রোনালদো যা হাতছাড়া করেননি। সিরি ‘এ’তে যা কিনা ৫০০০তম গোল জুভেন্টাসের। বায়ার্নের হয়ে এদিন ৩০০তম ম্যাচ খেলতে নেমেছিলেন থমাস মুলার। বায়ার্ন ক্যারিয়ারে তাঁর এই ৩০০ ম্যাচের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো গোল করেছেন এমন ৮৪টি ম্যাচে হারেনি বায়ার্ন। পরশু গোল না পেলেও অবশ্য তাঁর দল ৪-০ গোলের বড় ব্যবধানেই জিতেছে হ্যানোভারের বিপক্ষে। বুন্দেসলিগায় স্টুর্টগার্ট-হার্থা বার্লিনের ম্যাচে ঘটেছে হৃদয়বিদারক ঘটনা। ম্যাচ দেখতে এসে অসুস্থ হয়ে গ্যালারিতেই শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন স্টুর্টগার্ট অধিনায়ক ক্রিশ্চিয়ান জেন্টনারের বাবা। এএফপি

মন্তব্য