kalerkantho


প্রস্তুতি ম্যাচে রাসেলকে হারাল কিংস

১৭ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০



প্রস্তুতি ম্যাচে রাসেলকে হারাল কিংস

প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে কেরভেন্স বেলফোর্ট ছিলেন, ডিফেন্সে ছিলেন আফগান মাসি সাইঘানি। শেষ পর্যন্ত এ দুজনকে বাদ দিয়ে স্প্যানিশ ডিফেন্ডার হোর্হে গোতর ও ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার মার্কোস ভিনিসিয়াসে আস্থা রেখেছেন কিংস কোচ অস্কার ব্রুজন। গতকালের প্রস্তুতি ম্যাচে নতুন দুই বিদেশিকে প্রথম দেখার সুযোগও ছিল তাঁর।

 

ক্রীড়া প্রতিবেদক : শক্তিমত্তায় বসুন্ধরা কিংসকে সবার ওপর রাখলে দ্বিতীয় স্থানের জন্য আবাহনীর সঙ্গে লড়াই হবে শেখ রাসেলের। বিদেশি এবং স্থানীয় খেলোয়াড়দের মান বিবেচনায় শিরোপার বড় দাবিদার তারাও আবার। সেই রাসেলকে কাল প্রস্তুতি ম্যাচে ১-০ গোলে হারিয়েই কিংস নিজেদের শক্তিমত্তা জানান দিয়েছে আবার। নীলফামারীতে কিংসের প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে কেরভেন্স বেলফোর্ট ছিলেন, ডিফেন্সে ছিলেন আফগান মাসি সাইঘানি। শেষ পর্যন্ত এ দুজনকে বাদ দিয়ে স্প্যানিশ ডিফেন্ডার হোর্হে গোতর ও ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার মার্কোস ভিনিসিয়াসে আস্থা রেখেছেন কিংস কোচ অস্কার ব্রুজন। গতকালের প্রস্তুতি ম্যাচে নতুন দুই বিদেশিকে প্রথম দেখার সুযোগও ছিল তাঁর। নিউ রেডিয়েন্টের বিপক্ষে ডিফেন্স নিয়ে কিছুটা ভাবনার কথা জানিয়েছিলেন। গোতর যোগ হওয়ার পর সেই ব্যাকলাইনের অবস্থাটাও কাল পরখ করেছেন রাসেলের শক্তিশালী আক্রমণভাগের বিপক্ষে। রাসেলও এবার ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার অ্যালেক্স রাফায়েলকে দলে ভিড়িয়েছে, গত মৌসুমে শেখ জামালের হয়ে ১৫ গোল করা রাফায়েল ওদোয়িনও এবার সাইফুল বারীর দলে। জাতীয় দলের উইঙ্গার বিপলু আহমেদও আছেন। এ আক্রমণভাগের বিপক্ষে গোতরের নেতৃত্বে কিংস ব্যাকলাইন ঠিকই উতরে গেছে। রেডিয়েন্টের বিপক্ষে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে লেফট ব্যাক হিসেবে নাঈম খেলেছিলেন কিংসে। এই পজিশনে কাল জাতীয় দলের উইঙ্গার মোহাম্মদ ইব্রাহিমকে খেলালেন ব্রুজন। বড় কোনো ভুল করেননি তিনি। গোতরের পাশে অভিজ্ঞ স্টপার নাসিরউদ্দিনও খেলেছেন আস্থা নিয়ে। ডিফেন্সিভ মিড হিসেবে নাসিরকে দারুণ ব্যাকআপ দিয়েছেন মাশুক মিয়া। জাতীয় দলের এ মিডফিল্ডারের একমাত্র গোলেই অবশ্য কিংসের জয়।

বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় শেখ রাসেলের মাঠে হয়েছে এই ম্যাচ। ফুটবল অনুশীলনের জন্য মাঠটি আদর্শ। মাঠের মসৃণতা ও ঘাসের অবস্থা বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামকেও হার মানাবে। এ মাঠেই বর্তমান সময়ের সেরা দুটি দলের ফুটবল লড়াই দারুণ উষ্ণতা ছড়িয়েছিল। প্রস্তুতি বা প্রীতি ম্যাচ হলে কী হবে, দুই দলই খেলেছে সিরিয়াস ফুটবল। রাফায়েলের কনুইয়ের আঘাতে আহত কিংসের রাইট ব্যাক সুশান্ত ত্রিপুরাকে তাই দেখা যায় ব্যান্ডেজ মাথায় ফের মাঠে নামতে, ব্রুজনের সঙ্গে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় হলো রাসেল সেন্টার ব্যাক আলিসনের। বিশ্বকাপ খেলা কোস্টারিকান তারকা ডেনিয়েল কলিনড্রেসও বারকয়েক সংঘর্ষে জড়ালেন বল দখলের জন্য। তবে তাঁর মূল যে খেলা—বল ছেড়ে দ্রুত জায়গা নেওয়া, দুরভিসন্ধি পাস, খেলার গতি নিয়ন্ত্রণ করা—এসব করেছেন ভালোভাবেই। মিডফিল্ডে কিংসের আধিপত্য নিতে তাই সমস্যা হয়নি। ইমন বাবু তাঁকে যোগ্য সঙ্গ দিয়ে গেছেন। পোস্টে মিতুল হাসান এদিনও খেলেছেন আস্থা নিয়ে, রাফায়েলকে দু-দুইবার গোলবঞ্চিত করেছেন। বিশ্বনাথের ক্রসে রাফায়েলের হেড প্রথমবার ঝাঁপিয়ে ফিরিয়েছেন তিনি। আবার অ্যালেক্সের কাছ থেকে বল পেয়ে বুলেট গতির যে শট নিয়েছিলেন রাসেল স্ট্রাইকার, সেটিও ফিস্ট করেছেন দারুণ দক্ষতায়। অন্য প্রান্তে মার্কোসের ক্রসে ডেনিয়েল বাইসাইকেল কিকের চেষ্টা করেছিলেন দারুণ জায়গা থেকে। বুটে-বলে ঠিকঠাক হলে সেটা জালে জড়াতেও পারত। আশরাফুল ইসলাম রানার অন্তত তাতে কিছু করার থাকত না। বক্সের ওপর থেকে নেওয়া মাশুকের শটে অবশ্য কিছুটা বিভ্রান্তও হয়েছেন রাসেল গোলরক্ষক। মার্কোসের সঙ্গে ওয়ান-টু খেলে আচমকা শটে করা ম্যাচের একমাত্র গোলটা কিংস মিডফিল্ডারেরই।

দ্বিতীয়ার্ধে দুই দলই বেশ কিছু পরিবর্তন আনে। কিংসের ফরোয়ার্ডে তৌহিদুল আলমের জায়গায় নামেন মাহবুবুর রহমান সুফিল, সোহানুর রহমানের পরিবর্তে মতিন মিয়া। নিউ রেডিয়েন্টের বিপক্ষে ইব্রাহিম মিডফিল্ডেই ছিলেন, তাঁকে নিচে নামিয়েই সোহানকে কাল একাদশে ঢুকিয়েছিলেন ব্রুজন। ডায়মন্ড মিডফিল্ডের ওপরে খেলেছেন তিনি, হতাশ করেননি। বদলি নেমে মতিনও তাঁর সহজাত, গতি ও মুভমেন্টে নজর কেড়েছেন। গোলের পরিষ্কার আর কোনো সুযোগ অবশ্য আসেনি। মার্কোসও উঠে গিয়েছিলেন হেমন্ত ভিনসেন্টকে খেলার সুযোগ দিতে। অন্য প্রান্তে রাফায়েল অবশ্য শেষ চেষ্টা করেছেন সমতা ফেরাতে। একা বল নিয়ে বক্সে ঢুকেও পড়েছিলেন, নাসির দৌড়ে শেষ মুহূর্তে ব্লক করেছেন তাঁর শট। তাতেই অক্ষুণ্ন ১-০ স্কোরলাইন। দুই দল আজও মুখোমুখি হবে একই মাঠে। কাল যাঁরা সুযোগ পাননি মূলত তাঁদের দেখে নিতেই এই দ্বিতীয় ম্যাচের আয়োজন। রাসেলের হয়ে কাল চার বিদেশি মাঠে নামলেও কিংসে কিরগিজ মিডফিল্ডার বখতিয়ার দুইশোকেভ এখনো দলের সঙ্গে যোগ দেননি। গতকালই জাতীয় দলের হয়ে ম্যাচ খেলেছেন তিনি মালয়েশিয়ার বিপক্ষে।



মন্তব্য