kalerkantho

বুধবার । ২১ আগস্ট ২০১৯। ৬ ভাদ্র ১৪২৬। ১৯ জিলহজ ১৪৪০

পুরনো অটোরিকশা ভেঙে গড়া হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজধানী ঢাকা ও চট্টগ্রামের পথে চলতে চলতে বুড়িয়ে যাওয়া মেয়াদোত্তীর্ণ অটোরিকশা ভেঙে গড়া হচ্ছে। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) ঢাকার ইকুরিয়া কার্যালয়ে ১ এপ্রিল থেকে পুরনো অটোরিকশা ভাঙার কাজ শুরু করেছে। অটোরিকশাগুলো ভেঙে ফেলার পর নতুন করে নামানো হবে রাস্তায়। আর প্রতিটি অটোরিকশার জন্য মালিকদের নতুন করে নিবন্ধন দেওয়া হবে।

ঢাকায় ১৩ হাজার ৬৫২ ও চট্টগ্রামে ১৩ হাজার মিলিয়ে মোট ২৬ হাজার ৬৫২টি অটোরিকশা চলাচল করছে। এর মধ্যে ঢাকায় ২০০২ সালে পাঁচ হাজার ৫৬১ ও চট্টগ্রামে সাত হাজার ৪৫৯টির নিবন্ধন দেওয়া হয়। এই ১৩ হাজার ২০টি অটোরিকশার মেয়াদ শেষ হয়েছে গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর। বাকিগুলোর মেয়াদ শেষ হবে চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর।

ঢাকা ও চট্টগ্রাম শহর থেকে ১৫ বছরের পুরনো ১৩ হাজার অটোরিকশা তুলে দিতে গত ১৫ মার্চ বিআরটিএকে চিঠি দেয় সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ। এতে ঢাকায় আগামী সেপ্টেম্বর ও চট্টগ্রামে জুলাইয়ের মধ্যে অটোরিকশা প্রতিস্থাপন প্রক্রিয়া শেষ করতে বলা হয়েছে।

ঢাকা ও চট্টগ্রামে দু’জন উপ-পরিচালককে প্রধান করে একটি আহ্বায়ক কমিটি গঠন করেছে বিআরটিএ। কমিটির অধীনে পুরনো অটোরিকশা প্রতিস্থাপন প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে। গত ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত তিন হাজারের বেশি অটোরিকশা মালিক তাদের বাহন প্রতিস্থাপনের জন্য আবেদন করেন।

পুরনোগুলো ভেঙে ফেলার পাশাপাশি নতুন অটোরিকশার নিবন্ধন দেওয়াও চলছে। ২৪ এপ্রিল পর্যন্ত মিরপুর কার্যালয় থেকে ১৫০ ও ইকুরিয়া কার্যালয় থেকে ৬৩টি নতুন অটোরিকশা নিবন্ধন করা হয়েছে।

অটোরিকশার ধ্বংসাবশেষ মালিকরা নিয়ে যাচ্ছেন। তবে সিলিন্ডার রেখে দেওয়া হচ্ছে বিআরটিএ’তে। বিস্ফোরক অধিদপ্তরের সহায়তায় এসব সিলিন্ডার পরে ধ্বংস করা হবে।

দ্রুততম সময়ে নতুন অটেরিকশার নিবন্ধন দেওয়া হবে বলে জানান বিআরটিএ’র সংশ্লিষ্ট শাখার কর্মকর্তারা।

মন্তব্য