kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৭ রবিউস সানি ১৪৪১     

এসি চলবে মুখের কথায়

১৩ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্মার্ট হয়ে উঠেছে টিভি, ফ্রিজ থেকে ঘরের বাতিটি পর্যন্ত। তো সেখানে এসিই বা বাদ যাবে কেন? আইওটি (ইন্টারনেট অব থিংস) নির্ভর স্মার্ট এসি নিয়ে এসেছে ওয়ালটন। এটি ভয়েস কমান্ড ও স্মার্টফোনে নিয়ন্ত্রণযোগ্য। অর্থাৎ ‘ভয়েস কন্ট্রোল’ বা ‘অ্যামাজন একো’র মাধ্যমে রিমোট কন্ট্রোল ছাড়াই স্মার্ট এসির শীতাতপ নিয়ন্ত্রণব্যবস্থা বাড়ানো, কমানো, চালু বা বন্ধ করা যাবে। এসিতে প্রতিদিন বা মাসিক বিল আসছে কত? ভোল্টেজ লো না হাই? কম্প্রেসর কি ওভারলোডে চলছে?—এসবের উত্তরও মিলবে এই স্মার্ট এসিতে।

ওয়ালটন গ্রুপের অতিরিক্ত পরিচালক (পিআর, মিডিয়া ও ব্র্যান্ডিং) মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ভেঞ্চুরি ও রিভারাইন সিরিজের ১.৫ টনের ওয়ালটন স্মার্ট এসির দাম ৬৫ হাজার টাকা। আর একই সিরিজের দুই টনের স্মার্ট এসির দাম পড়বে ৭৬ হাজার ৪০০ টাকা।

ওয়ালটন স্মার্ট এসিতে আছে ইনভার্টার প্রযুক্তির কম্প্রেসর। ফলে এই এসি ঘরের তাপমাত্রা বুঝে ঘরকে ঠাণ্ডা করে। আবার ঘর ঠাণ্ডা হয়ে গেলে কম্প্রেসর স্লিপ মোডে বা ঘুমন্ত অবস্থায় চলে যায়। প্রয়োজন অনুযায়ী তাপমাত্রা সরবরাহ করে বলে এতে বিদ্যুৎ খরচ হয় অনেক কম। একই সঙ্গে কম্প্রেসরের স্থায়িত্বও বাড়ে। এ ছাড়া এসব এসিতে রয়েছে আয়োনাইজার প্রযুক্তি, যা রুমকে ঠাণ্ডা করার পাশাপাশি রুমের বাতাসকে ধুলা-ময়লা ও ব্যাকটেরিয়ামুক্ত করে। এ ছাড়া কম্প্রেসরের অ্যাকুইরেসি এবং কুলিং সিস্টেমে আনা হয়েছে দারুণ উৎকর্ষ। কম্প্রেসরে বিল্ট-ইন অটোমেটিক ভোল্টেজ প্রটেকশন সিস্টেম থাকায় বিদ্যুৎ প্রবাহের বিচ্যুতি বা তারতম্যে ওয়ালটন কম্প্রেসরের তেমন কোনো ক্ষতি করে না।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা