kalerkantho

শনিবার । ২০ আগস্ট ২০২২ । ৫ ভাদ্র ১৪২৯ । ২১ মহররম ১৪৪৪

একমলাটে হাজার বছরের ইতিহাস

সজল ঘোষ, গাইবান্ধা   

১ জুলাই, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



একমলাটে হাজার বছরের ইতিহাস

রাহুল সাংকৃত্যায়ন

‘ভোল্গা থেকে গঙ্গা’ দুই খণ্ডের বই। প্রথম খণ্ডে মোট ২০টি আর দ্বিতীয় খণ্ডে ৯টি গল্পের সমাহার আছে এখানে। আপাতদৃষ্টিতে গল্পগুলোর সরাসরি যোগাযোগ না থাকলেও আসলে সেগুলো ধারাবাহিক একটিই গল্প। প্রাচীন রাশিয়ান ঊনমানুষদের ধীরে ধীরে ভারতবর্ষে ছড়িয়ে পড়ার গল্প, আর্য জাতির উত্থানের গল্প, বৈদিক যুগের গল্প।

বিজ্ঞাপন

আসলে সব মানুষের গল্প। রাহুল সাংকৃত্যায়ন বইটিতে এমন এক সময়ের স্বাপ্নিক ছবি এঁকেছেন ইতিহাসের মোড়কে, পাঠক এক লহমায় হাজার বছর ঘুরে আসতে পারবেন। বইটির শুরু প্রাচীনকাল থেকে, রাশিয়ার ভোলগা নদীর তীর থেকে। সেখানে খ্রিস্টপূর্ব ৬০০০ অব্দ থেকে তখনো ‘মানুষ’-এর অবয়ব পায়নি এমন কিছু প্রাগৈতিহাসিক প্রাণীর গল্প থেকে শুরু। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এই বিরাট স্রোতোধারার তীর ধরে ধরে রাহুল এগিয়েছেন ভারতবর্ষের দিকে। শেষ হয়েছে এসে গঙ্গার তীরে। শেষ করেছেন ‘সুমের’ নামক অধ্যায়ে : ১৯৪২-এ এসে। এর ঠিক পরের খণ্ড হলো ‘কনৈলা কি কথা’। সেখানে ভারতবর্ষের স্বরাজ আন্দোলন পর্যন্ত সময়কে ধরা হয়েছে। অসংখ্য ইতিহাস ও পুরাণ গ্রন্থের সহায়তায় লেখা। একেবারে খুবই আবেগবহুল কাহিনির নির্মোহ বর্ণনা দিয়েছেন লেখক।



সাতদিনের সেরা