kalerkantho

রবিবার । ২৬ জুন ২০২২ । ১২ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৫ জিলকদ ১৪৪৩

মায়ের সংগ্রাম নিরন্তর

সানজিদা অ্যানি, সরকারি মাইকেল মধুসূদন কলেজ

২০ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মায়ের সংগ্রাম নিরন্তর

ম্যাক্সিম গোর্কি

রুশ সাহিত্যিক ম্যাক্সিম গোর্কির কালজয়ী উপন্যাস ‘মা’ ১৯০৬ সালে প্রথম প্রকাশিত হয়। উপন্যাসটি শ্রমিক আন্দোলনের পটভূমিকায় রচিত। কারখানায় খেটে খাওয়া এক অতি সাধারণ পরিবার পাভেল ভ্লাসভদের। সেখানে তার মা পেলাগেয়া নিলাভনা প্রতিনিয়ত তাঁর স্বামীর নির্যাতনের শিকার হয়ে আসছেন।

বিজ্ঞাপন

অবশ্য এই নির্যাতন তাঁকে খুব বেশিদিন সহ্য করতে হয়নি। কারণ অতিরিক্ত মদ্যপানের ফলে পাভেলের বাবা কিছুদিন পরেই মারা যান। বড় হয়ে পাভেলও একটা সময়ে কারখানায় কাজ করতে শুরু করে। কিন্তু কারখানার শ্রমিকদের ওপর করা অসহনীয় নির্যাতন সে সহ্য করতে পারে না। তাই সে গোপনে পড়াশোনা শুরু করে এবং একটি সংঘ গড়ে তোলে। তখন রাশিয়ার সম্রাট ছিলেন জার। জারের বিরুদ্ধে কেউ কথা বললে তাকে প্রকাশ্যে মেরে ফেলা হতো। পাভেলের মা প্রথমে ছেলের এই কাজকে সমর্থন করেন না, কিন্তু পরবর্তী সময়ে যখন নিজের ছেলের পরিবর্তন ও কাজের উদ্দেশ্য বুঝতে পারেন, তখন তিনি নিজেও পাভেলদের সাহায্য করতে শুরু করেন। পাভেলের এই সংঘের কথা বেশিদিন চাপা থাকে না। জারের পুলিশ বাহিনী পাভেলসহ বেশ কয়েকজনকে বন্দি করে নির্বাসনে পাঠিয়ে দেয়। এই অবস্থায় সংঘের কাজ যখন পুরোপুরি বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়, তখন সব দায়িত্ব কাঁধে তুলে নেন মা পেলাগেয়া নিলাভনা। মায়ের এই নিরন্তর সংগ্রামের গল্প নিয়েই এই উপন্যাস।



সাতদিনের সেরা