kalerkantho

বুধবার । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ১ ডিসেম্বর ২০২১। ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩

ভবিষ্যৎ কেমন হবে তা কেউ বলতে পারে না

সবুর খান, সমাজবিজ্ঞান বিভাগ, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়

২৬ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভবিষ্যৎ কেমন হবে তা কেউ বলতে পারে না

জহির রায়হান

নিম্নমধ্যবিত্ত এক পরিবারের ঘাত-প্রতিঘাত, আনন্দ-বেদনাকে উপজীব্য করে লেখা জহির রায়হানের উপন্যাস ‘বরফ গলা নদী’। উপন্যাসটিতে দেখা যায়, মাহমুদ লুই ফিসার হওয়ার স্বপ্নে বিভোর মাহমুদ। একটি পত্রিকার অল্প বেতনের সাব-এডিটর সে। একদিন চাকরি ছেড়ে দেয়। বন্ধু খোদাবক্স তাকে জানায় যে সপ্তাহখানেক আগে একেবারে আগুনের শিখার মতো দেখতে লিলি নামের এক মাস্টারনি এসেছে। লিলি ছিল তার বোন মরিয়মের বান্ধবী। অন্যদিকে মরিয়মের প্রতি মনসুরের চাপা ভালোবাসা শেষ পর্যন্ত বিবাহে রূপ নেয়। বিয়ের কিছুকাল যেতে না যেতেই মনসুর অবগত হয় যে জাহেদের সঙ্গে মরিয়মের পূর্ব প্রেম ছিল এবং তারা মাস কয়েক পালিয়ে একত্রে ছিল। এই বিষয়কে কেন্দ্র করে চরম বিতৃষ্ণার সৃষ্টি হয়। একদিন মরিয়মকে সংসার ছাড়তে বাধ্য করে মনসুর। পরদিন মাহমুদ বাড়ি ফিরে দেখে তার মা-বাবা, ভাই-বোন সবাই বাড়িধসের কারণে মারা গেছে। বিকেলে আজিমপুর গোরস্তানে কবরস্থ করা হয় লাশগুলো। সঙ্গী বলতে ছিল শুধু লিলি। লেখক বলেন, ‘অতীতের মতো বর্তমানও যেন ঘড়ির পেন্ডুলামের মতো ওঠা আর পড়ার মধ্য দিয়ে এগিয়ে চলেছে। ভবিষ্যত্ কেমন হবে তা কেউ বলতে পারে না।’

অনুলিখন : পিন্টু রঞ্জন অর্ক



সাতদিনের সেরা